অমিত শাহের মেঝেয় বসে পানাহারের ছবিটি ফটোশপ করা হয়েছে

২০১৭ সালের মে মাসে অমিত শাহ গুজরাটে নির্বাচনের প্রাক্কালে জনসংযোগ বাড়াতে এক উপজাতি নেতার বাড়িতে আহার সারেন। ওই ছবিটিই ফেটোশপ করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পাত পেরে বসে খাওয়ার দৃশ্যের একটি পুরনো ছবি ফটোশপ করে মিথ্যে দাবি সহ ফেসবুকে ছড়িয়ে বলা হচ্ছে তিনি পানাহারও করেছিলেন।

ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে স্বরাষ্টমন্ত্রী অমিত শাহ আরও কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে মেঝেই বসে খাচ্ছেন। ওই ছবিতে দুর্বলভাবে ফটোশপ করে কয়েকটি মদের বোতল রাখা হয়েছে।

পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘দেশের নেতাদের যদি হাল হয় এমন তাহলে দেশ চলবে কেমন’’

ফেসবুক পোস্টে শেয়ার হওয়া ছবিটি।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

ছবিটিকে ভালোভাবে দেখলেই বোঝা যায় ছবিটিকে দুর্বলভাবে ফটোশপ করা হয়েছে।

বুম প্রাসঙ্গেক শব্দ লিখে গুগুলে কিওয়ার্ড সার্চ করে মূল ছবিটি খুঁজে পেয়েছে।

২০১৭ সালের মে মাসে গুজরাটের দেভালিয়া গ্রামে অমিত শাহ ও অন্যান্য বিজেপি নেতা-কর্মীরা, বুথ প্রমুখ—এক উপজাতি নেতার বাড়ি দুপুরের আহার করেন। অমিত শাহের টুইটার অ্যকাউন্ট থেকে ছবিটি টুইট করা হয়েছিল ৩১ মে ২০১৭ সকাল ৯ টা ২৫ এ। বলাবাহুল্য মূল ছবিটিতে কোনও মদের বোতল রাখা নেই।



অমিত শাহের টুইট।
উপরে: ফটোশপ করা ছবি। নীচে: আসল ছবি

সংবাদ সংস্থা এএনআই ৩১ মে ২০১৭ তারিখে তাদের ইউটিউব চ্যানেলে পোস্ট করা ভিডিওতে অমিত শাহ সহ অন্যান্য নেতাদের দেখা যাবে খাবার খেতে।



সেবছর গুজরাটের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে জনসংযোগ বাড়াতে অমিত শাহ ওই গ্রামে যান। বিস্তারিত পড়া যাবে এখানে

Next Story