বাংলাদেশের দাঙ্গার ভিডিও পশ্চিমবঙ্গের বলে চালানো হচ্ছে

ভাইরাল হওয়া পোস্টেটির দাবি, মুসলমানরা হিন্দুদের পশ্চিমবঙ্গের বাইরে তাড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে। মূল ভিডিওটি ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসের বাংলাদেশের ঘটনা।

বাংলাদেশের একটি পুরনো ভিডিও—যাতে মুসলিম পুরুষদের দাঙ্গা করতে দেখা যাচ্ছে—পশ্চিমবঙ্গের ঘটনার ছবি বলে চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ভাইরাল হওয়া পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, “মুসলিমরা হিন্দুদের পশ্চিমবঙ্গ থেকে তাড়িয়ে বের করে দিচ্ছে, ঠিক যেমনটা তারা কাশ্মীরে করেছিল। পলাতক হিন্দুরা, অসহায় পুলিশ এবং জ্বলন্ত ঘরবাড়ি। যারা কাশ্মীর দেখেননি, তারা পশ্চিমবঙ্গকে দেখে নিন।”

মূল পোস্টটি হিন্দিতে লেখা হয়েছে, “कश्मीर की तरह ,बंगाल से हिन्दुओ को भगाते मुस्लिम। भागते हिन्दू,लाचार पुलिस जलते मकान देखलो। जिसने कश्मीर न देख हो वो बंगाल देख लो।”

এমন একটা সময়ে এই পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে, যখন কলকাতায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড-শো হিংসাত্মক আকার নিয়েছিল।

ভাইরাল হওয়া পোস্টটি এখানে দেখতে পারেন, আর তার আর্কাইভ সংস্করণ দেখা যাবে এখানে।
ফেসবুকের বেশ কয়েকটি দক্ষিণপন্থী পেজ-এ এবং কয়েকটি ব্যক্তিগত প্রোফাইলেও পোস্টটি শেয়ার হয়েছে।

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির অনুসন্ধান চালিয়ে দেখেছে, মূল ভিডিওটি বাংলাদেশের টঙ্গি এলাকার ২০১৮ সালের ১ ডিসেম্বর মাসের ঘটনা।



২০১৮ সালের ১ ডিসেম্বর ইউটিউবে আপলোড হয়েছিল ভিডিওটি।

ঢাকা ট্রিবিউনের রিপোর্ট জানায়, তবলিগী জামাত-এর দুটি গোষ্ঠী বিশ্ব ইজতেমা অর্থাৎ আন্তর্জাতিক ধর্মীয় সমাবেশ প্রাঙ্গণের দখল নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ওই ঘটনায় একজন নিহত এবং ২০০ জনের বেশি আহত হয়। বিশ্ব ইজতেমা বাংলাদেশের টঙ্গিতে মুসলিমদের একটি বাত্সরিক অরাজনৈতিক সমাবেশ। এই প্রার্থনা-সমাবেশ তিন দিনের একটি অনুষ্ঠান, যাতে যোগ দিতে সারা বিশ্ব থেকে মুসলমানরা আসেন। জামাতের শীর্ষ নেতা কে হবেন, তাই নিয়ে দ্বন্দ্বে তবলিগ দুটি পরস্পরবিরোধী গোষ্ঠীতে বিভক্ত হয়ে যাওয়ার পর থেকেই এই গোলমাল বাঁধে। তবলিগী জামাত ও তার হিংসাত্মক সংঘর্ষ বিষয়ে আরও জানতে এখানে এবং এখানে ক্লিক করুন।

বুম এর আগেও একই ঘটনার ভিডিও শেয়ার করে ভুয়ো দাবি জানানো ভুয়ো পোস্টকে খন্ডন করেছে।
আরও পড়ুন: বাংলাদেশের ভিডিওকে পশ্চিমবঙ্গে মুসলিমদের দাঙ্গার ছবি হিসাবে শেয়ার করা হচ্ছে

Show Full Article
Next Story