প্রধানমন্ত্রীর জার্সির লেখা এমনভাবে বিকৃত করা হয়, যাতে তাঁকে একজন জালিয়াত বলা যায়

প্রধানমন্ত্রীর জার্সির লেখা এমনভাবে বিকৃত করা হয়, যাতে তাঁকে একজন জালিয়াত বলা যায়
ফেসবুক ও টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর একটি জার্সি নেওয়ার ফোটোশপ করা ছবি ব্যাপকভাবে ছড়ানো হয়েছে, যাতে দেখা যাচ্ছে, জার্সিটার গায়ে ৪২০ সংখ্যাটা লেখা রয়েছে। তথ্য যাচাই করে দেখা গেল, মূল ছবিটি তোলা হয়েছিল আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিত জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের সময় এবং জার্সির গায়ে জি-২০ কখাটিই দাগানো ছিল। আঞ্চলিক হিন্দি বুলিতে ৪২০ বা “চারশো-বিশ” শব্দটি কোনও জালিয়াতের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা হয়। ভারতীয় দণ্ডবিধিতেও ৪২০ ধারাটি প্রযুক্ত হয় প্রতারণা ও অসততার মাধ্যমে সম্পত্তি হাতড়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে। ফেসবুকের একটি পেজ—'আমরা সেহেলা রশিদকে সমর্থন করি'—এই ছবিটি প্রচার করছে। সঙ্গে হিন্দিতে ক্যাপশন, যার অনুবাদ করলে দাঁড়ায়—ইতিহাসে এমন অপমান আর কোনও প্রধানমন্ত্রীর হয়নি। ফিফার কর্তারাও চিনে ফেলেছেন কে কীরকম?
ছবিটির আর্কাইভ বয়ান দেখতে এখানে ক্লিক করুন। অন্যান্য ফেসবুক পেজ এবং টুইটার অ্যাকাউন্টও ছবিটি শেয়ার করেছ #মোদী ৪২০ হ্যাশট্যাগ দিয়ে। এই হ্যাশট্যাগ আগেও ব্যবহৃত হয়েছে। বুম দেখেছে, ২০১৫ সাল থেকেই ফেসবুকের বিভিন্ন পোস্টে হ্যাশট্যাগটি ছড়ায়। গুগল-এ ছবি-খোঁজার প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেখা গেছে, প্রধানমন্ত্রী যখন জার্সিটা গ্রহণ করছেন, তখন তার উপর তাঁর নাম এবং জি-২০ কথাটিই লেখা ছিল। ২০১৮ সালের ২ ডিসেম্বর হিন্দু সংবাদপত্র একটি নিবন্ধ গুগল-এ ছবি-খোঁজার প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেখা গেছে, প্রধানমন্ত্রী যখন জার্সিটা গ্রহণ করছেন, তখন তার উপর তাঁর নাম এবং জি-২০ কথাটিই লেখা ছিল। ২০১৮ সালের ২ ডিসেম্বর হিন্দু সংবাদপত্র একটি নিবন্ধ মোদি নিজেও টুইট করে এই ছবিটি প্রকাশ করেছিলেন এবং ফিফা সভাপতিকে তাঁর এই উপহারের জন্য ধন্যবাদও জানিয়েছিলেন। তাতে এ কথাও লিখেছিলেন—“আর্জেন্টিনায় আসব অথচ ফুটবলের কথা ভাবব না, এ হয় না। ভারতে আর্জেন্টিনার ফুটবলাররা দারুণ জনপ্রিয়”।
Claim Review :   FIFA presented Narendra Modi a Jersey with 420 written over it
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story