এই বিকট আওয়াজ করা প্রাণীটি কি কবর বিজ্জু?

এটি একটি সাধরান ‘স্ন্যাপিং কচ্ছপ’। ভিডিওতে ওই শব্দ কারসাজি করে সম্পাদন করা হয়েছে।

সোশাল মিডিয়ায় একটি বিরল প্রাণীর বিকট আওয়াজের ভিডিও শেয়ার করে ভুয়ো দাবি করা হয়েছে সেটি কবর বিজ্জুর ছবি যা নাকি মৃত দেহের মাংস খেয়ে বেঁচে থাকে। ভিডিওটিতে এক ব্যক্তি হাতে নিয়ে এই কুর্মাকার প্রাণীটিকে ধরে আছেন। প্রাণীটির মুখ থেকে শোনা যাচ্ছে বিকট আওয়াজ।

ফেসবুক পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে,‍‍ “ধরা পড়লো সেই ভূত প্রেত! সোশাল মিডিয়ায় এই ভিডিও নিয়ে তোলপাড়! সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও এবং তথ্য দিয়ে বলা হচ্ছে এই জন্তুর নাম কবর বিজ্জু। এদের সাধারণত কবরস্থানেই পাওয়া যায়। এরা মাটির নিচেই থাকে। ইঁদুরের মত গর্ত করে। সচরাচর লোকের চোখে এরা পরে না। কারণ এরা দিনে বের হয় না। রাত্রি বেলায় কবরস্থানে মৃত দেহ খায় এরা। আর এরাই বিরাট একটা আওয়াজ করে। সবাই ভাবে শ্মশানে বা কবরস্থানে হয়তো কোন আত্মা বা ভুত প্রেত আছে। এই হল সেই আত্মা এই সেই ভুত-প্রেত যার আওয়াজ তোমরা ভিডিওতে শোনো ...এই ভিডিওর সত্যতা যাচায় করেনি বাংলার সময়।”

ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

পোস্টটির স্ক্রিনশট

তথ্য যাচাই

বুম ইনভিডে কি ফ্রেম বিশ্লেষন ও ইউটিউবে কিওয়ার্ড সার্চ করে জেনেছে ভিডিওটি বিভিন্ন সময় ধরেই ইউটিউবে রয়েছে। এটি মটেই কবরস্থানে পাওয়া ‘কবর বিজ্জু’ নামের জন্তু নয়। এটি একটি স্ন্যাপিং টার্টল (এক প্রজাতির কচ্ছপ)

১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ একই রকমের একটি ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করে যেখানে আরবিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছিল, " حيوان يبكي مثل الانسان سبحان الله"

গুগুল টান্সলেটার এটি ইংরেজিতে অনুবাদ করে: "Animal crying like a human. Subhan allah" (মানুষের মত কাঁদছে প্রাণী। সুভান আল্লাহ)

২০ জুন ২০১৯ ইউটিউবে ওই একই ধরনের ভিডিও আপলোড করে লেখা হয়, "Suara dalam kubur (মালয় থেকে অনুবাদে: Sound of grave) alligator turtle."

বুম এর পর ইউটিউবে ‍‘অ্যালিগেটর টার্টল’, ‘স্ক্রিমিং টার্টল’ লিখে সার্চ করে। বুম আরেকটি ইউটিউব ভিডিও খুঁজে পায়। সেখানে মাইকেল ডানফোর্ড নামে এক ইউটিউব চ্যনেলে ১৪ ফেব্রুয়ারী ভিডিওটি আপলোড করা হয় এই শিরোনামে। ‘‍স্ক্রিমিং টারডেল, অ্যালিগেটর এনকাউন্টরস’



টার্টলের ভোকাল কর্ড নেই। এত জোরে আওয়াজ করার ক্ষমতা নেই স্ন্যাপিং টার্টেলের। তবে এটি সাধারন স্ন্যাপিং টার্টল না অ্যলিগেটর স্ন্যাপিং টার্টেল তা বুমের পক্ষে যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

বুম অবশ্য এই দুই প্রজাতির তুলনামুলক বৈশিষ্ট্যের একটি ভিডিও খুঁজে পেয়েছে। এই শিক্ষামূলক ভিডিওটি তৈরি করেছেন আমেরিকার বন্য পাণ বিশেষজ্ঞ কোয়োটো পিটারসন। তার ইউটিউবে চ্যানেলে ব্রেভ ওয়াইল্ডারনেস-এ রয়েছে এই ভিডিওটি।
নীচে দেওয়া হল।



সম্প্রতি 'কানাডার টারজান' দাভে সালমোনি জিমি কেমিলের অনুষ্ঠানে স্ন্যপিং টার্টল নিয়ে হাজির হন।



Claim Review :  পাওয়া গেল বিরল প্রাণী কবর রজ্জু
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story