দিল্লির গ্যাং-ওয়ারে গুলি চালানোর ভিডিও ব্যাঙ্গালোর, মুম্বইয়ের বলে শেয়ার করা হল

ভিডিওটি আসলে দিল্লির দ্বারকা অঞ্চলে দুই দল দুষ্কৃতীর গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ঘটনার, সেখানে দুই বন্দুকবাজ প্রতিদ্বন্দ্বী দলের এক সদস্যের ওপর গুলি চালায়।

একটি রোমহর্ষক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দিল্লির এক ব্যস্ততম রাস্তার ওপর দুই প্রতিদ্বন্দী দলের মধ্যে সংঘর্ষে গুলি চলছে। এই ভিডিওটি ব্যাঙ্গালোর বা মুম্বইয়ের বলে মিথ্যে দাবি করে শেয়ার করা হয়েছে।

ভিডিওটি মে ১৯, ২০১৯-র দিল্লির দ্বারকা রোড মেট্রো স্টেশনের সামনে ঘটা দুই দল দুষ্কৃতীর সংঘাতের। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে দু’জন লোক রাস্তায় একটি গাড়ির দিকে লক্ষ্য করে গুলি চালাচ্ছে আর আশপাশের লোকেরা ভীত হয়ে গুলি থেকে বাঁচার জন্য আড়াল খোঁজার চেষ্টা করছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে এই ঘটনায় দুই গ্যাংস্টার মারা যায়।

১২ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি ফেসবুক, টুইটার এবং হোয়াটসঅ্যাপে শেয়ার করা হয়েছে দুটি আলাদা ক্যাপশনের সঙ্গে—একটিতে দাবি করা হয়েছে এটি ব্যাঙ্গালরের ঘটনা; অন্যটিতে বলা হয়েছে ঘটনাটি মুম্বইয়ের।

বুম এই ভিডিওটি পায় এক পাঠকের কাছ থেকে যিনি এটির সত্যতা জানতে চান। এই ভিডিওটির ক্যাপশনে দাবি করা হয়, “আজ হেব্বাল রোডে (এই রাস্তাটি দিয়ে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানো যায়) গুলি চলার ঘটনা।” হেব্বাল রোড ব্যাঙ্গালোরের একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা।

ব্যাঙ্গালোরের ঘটনা বলে শেয়ার করা ভিডিওর স্ক্রিনশট।

একই ভিডিও ফেসবুক, টুইটারে মুম্বইয়ের ঘাটকোপার অঞ্চলের ঘটনা বলেশেয়ার করা হয়েছে।



আরকাইভড ভার্সন দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

তথ্য যাচাই

বুম ‘শুট আউট ভিডিও ইন্ডিয়া’কিওয়ার্ড সার্চ করেদিল্লির দ্বারকার গুলিচলার ঘটনার উপর অনেকগুলিসংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পায়, যেখানে এই একই ভিডিও ব্যবহার করা হয়েছে।



হিন্দুস্থান টাইমসের এক্সিকিউটিভ এডিটর শচীন কালবাগ একটি টুইটের উত্তরে জানান যে গুলিচালানোর ঘটনা দিল্লিতে ঘটেছে, মুম্বইতে নয়। তিনি তাঁর টুইটের সঙ্গে মূল খবরটির একটি লিঙ্ক জুড়ে দেন।



ঘটনাচক্রে ২০১৯-র ২১শে মে মুম্বাইর ঘাটকোপার অঞ্চলে দিনের আলোয় সঞ্জয় দুবে ওরফে বাবলু নামে এক ব্যবসায়ীকে খুন করা হয়। ঘাটকোপারের একটি খাবারের দোকানের সামনে তাকে অনেকবার আঘাত করে কুপিয়ে মারা হয়। এখানে খবরটি সম্পর্কে আরও পড়ুন।

Claim Review :   আজ হেব্বাল রোডে (এই রাস্তাটি দিয়ে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানো যায়) গুলি চলার ঘটনা
Claimed By :  Facebook posts
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story