অম্বাজি মন্দিরে অনুশীলনের মহড়ার ভিডিও জঙ্গি হামলার চিত্র বলে ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে শেয়ার

মন্দির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে বুম জেনেছে, এটি গত সপ্তাহে বনস্কন্থ পুলিশের বিশেষ অপারেশন গোষ্ঠীর একটি অনুশীলনের মহড়া

গুজরাটের বনস্কন্থ জেলার অম্বাজি মন্দিরে একটি অনুশীলনের মহড়ার ভিডিও হোয়াট্স্যাপ ও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে দুই জঙ্গির সত্যিকারের আক্রমণ রূপে । কাঁপা-কাঁপা হাতে তোলা ক্যামেরা ফুটেজের মন্তাজ করে বানানো এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, মন্দিরের ভিতর দুই সশস্ত্র বন্দুকবাজকে নিরাপত্তা রক্ষীরা কব্জা করে ফেলছে । ভিডিওতে গুজরাটি ভাষায় লেখা সাইনবোর্ডও দেখা যাচ্ছে ।

বুম মন্দির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জেনেছে, এটা ছিল একটা অনুশীলনের মহড়া, যা বনস্কন্থ পুলিশ মঞ্চস্থ করেছিল । ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ক্লিপটতে গুজরাটি ভাষায় লেখা— ‘দুজন জঙ্গি অম্বাজি মন্দিরের ভিতর ঢুকে পড়লে নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে সংঘর্ষে এক জঙ্গি নিহত হয়, অন্যজন জ্যান্ত ধরা পড়ে ।’

পোস্টটির আর্কাইভ সংস্করণ দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।

বুম-এর হেল্পলাইনে (৭৭০০৯০৬১১১) ভিডিওটির ঘটনা সত্যি কিনা যাচাই করার অনুরোধ জানিয়ে বার্তাও আসে ।

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির ফ্রেম ভেঙে-ভেঙে ছবিগুলি পরীক্ষা করে । ২০১৯-এর ৩০ মার্চ গুজরাটি পত্রিকা দিব্য ভাস্করে একটি প্রতিবেদনে এই ঘটনাটিকে পুলিশি অনুশীলনের মহড়া হিশেবেই বিবৃত করা হয়েছে ।

অম্বাজি মন্দির পরিষদের মিডিয়ার ভারপ্রাপ্ত আশিস রাওয়ালের সঙ্গে বুম কথাও বলে । তিনি জানান— ২৯ মার্চ একটি পুলিশি অনুশীলনের মহড়া সত্যিই চালানো হয়েছিল ।

“লোকসভা নির্বাচনের আগে এ ধরনের একটি মহড়া চালানো অত্যাবশ্যক হয়ে পড়েছিল । বনস্কন্থ পুলিশের বিশেষ অপারেশন গোষ্ঠী এলাকার ডেপুটি পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে এই মহড়া চালায় ।” রাওয়াল আরও জানান, “এই প্রথম যে এমন মহড়া চলল, এমন নয় । যেহেতু নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে, তাই পুলিশ বিভাগ স্থির করেছিল, মহড়ার বিষয়ে জনসাধারণকে সচেতন করে দেবে, যাতে অযথা আতঙ্ক সৃষ্টি না হয় । মহড়ার ঠিক পরেই চাচা চকে একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে পুলিশ তা সকলকে জানিয়েও দেয় ।”

রাওয়াল আরও বলেন, সকাল থেকেই মন্দির কর্তৃপক্ষ একের পর এক প্রশ্নে জেরবার হয়ে যান । "আমার অভিপ্রায় মন্দিরের ওয়েবসাইটেই একটি বিবৃতি জারি করে জনসাধারণকে আশ্বস্ত করার ।"

Claim :   দুজন জঙ্গি অম্বাজি মন্দিরের ভিতর ঢুকে পড়লে নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে সংঘর্ষে এক জঙ্গি নিহত হয়, অন্যজন জ্যান্ত ধরা পড়ে
Claimed By :  Facebook and Whatsapp
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.