আন্দিজ পর্বতের কন্ডর পাখির ভিডিও রামায়ণের জটায়ু বলে দাবি করা হচ্ছে

কেরলে 'আসল' জটায়ু আছে যদিও তা মূর্তির আকারে।
https://youtu.be/_qrut7A9Neo

আন্দিজ পার্বতের একটি কন্ডর পাখিকে বিষক্রিয়া ও ডিহাইড্রেশনের (জলের ঘাটতি) হাত থেকে বাঁচিয়ে তোলার পর সেটিকে বনে ছেড়ে দেওয়া হয়। সেই ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ক্যাপশনে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে যে, ওই পাখিটা হল রামায়ণের জটায়ু।

হোয়াটসঅ্যাপে মহাকাব্যিক বার্তা

১১ অগস্ট ২০১৯ বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনে নীচের ভিডিও আর ক্যাপশনটি আসে।

"জটায়ু। রামায়ণের সেই দেবতুল্য পাখিটিকে সচরাচর দেখা যায় না। সম্প্রতি সেটিকে কেরলের সদয়মঙ্গলমে দেখা গেছে। আমি নিশ্চিত যে, আপনারা নিজেদের জীবদ্দশায় ওই পাখি দেখেননি। মুগ্ধ হয়ে দেখুন তার ডানার বিস্তার।"

ভিডিওটি অতি নাটকীয়। তাতে দেখা যাচ্ছে, শকুনের মত এক বিরাট পাখি একটি পাহাড়ের ধারে দাঁড়িয়ে ডানা ঝাপ্টাচ্ছে। আর একটু দূর থেকে কয়েকজন সেই দৃশ্যের ছবি তুলছেন। তার কিছু পরেই পাখিটা বিরাট ডানা মেলে উড়ে যায়, হাততালি দেয় সকলে।

সোশাল মিডিয়ায় সার্চ করলে দেখা যায়, ফেসবুক আর টুইটারে ওই একই দাবি সমেত ভিডিওটি অক্টোবর ২০১৮ থেকে ভাইরাল হয়।





তথ্য যাচাই

ক্লিপটির কয়েকটি মূল ফ্রেম নিয়ে রিভার্স সার্চ করলে, ইউটিউবে ওই ভিডিওর পূর্ণাঙ্গ সংস্করণটি পাওয়া যায়। ব্রাজিলের পশু অধিকার সংক্রান্ত সংবাদ সংস্থা 'অ্যান্ডা' সেটি ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর আপলোড করে।



বুম অ্যান্ডায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনও দেখতে পায়। সেখানে ওই পাখিটি সম্পর্কে অনেক তথ্য দেওয়া আছে।

ওই প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, যে পাখিটিকে ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সেটি হল আন্দিজ পর্বতের কন্ডর পাখি। সে পাখির স্থানীয় নাম সায়ানি। বিষক্রিয়া আর ডিহাইড্রশনের ফলে ঘোরতরভাবে অসুস্থ পাখিটিকে আর্জেন্টিনায় উদ্ধার করা হয় ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বর।

পাখিটিকে বেয়নস আইরেসের চিড়িয়াখানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে এক বছর তার চিকিৎসা চলে। আর্জেন্টিনার কাটামার্কা জেলায় আছে অ্যানকাস্টি পাহাড়। সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠলে, সায়ানিকে বনে ফেরানোর জন্য সেখানে নিয়ে যাওয়া হয় ১৪ মার্চ, ২০১৪ তারিখে। ওই পাখিটির অরণ্যে ফিরে যাওয়ার আগের মৃহূর্তগুলি ধরা আছে ভিডিওটিতে।

আমরা ওই ভিডিওটি ইউটিউবেও দেখতে পাই। সেটি আপলোড করা হয়েছিল ২০১৪ সালের ১২ এপ্রিল।



কেরলের 'আসল' জটায়ু

ভিডিওতে যে পাখি দেখা গেল, সেটি অবশ্যই জটায়ু নয়। কিন্তু জটায়ুর এক বিশাল স্ট্যাচু আছে কেরলের সদয়মঙ্গলমে। তাই দেখে অনেকে কন্ডরকে জটায়ু বলে ভুল করতে পারেন।

বলা হয়, পৃথিবীতে ওটাই জটায়ুর বাসস্থান। কথিত আছে যে, রাবনের সঙ্গে এক ভয়ঙ্কর যুদ্ধ শেষে সদয়মঙ্গলমেই নাকি পতিত হন জটায়ু উপদেবতা।



Updated On: 2020-02-27T16:12:33+05:30
Claim Review :  ভিডিও দেখায় রামায়নের জটায়ু
Claimed By :  SOCIAL MEDIA
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story