কাটা মাথা নিয়ে আততায়ী থানায়—মিথ্যে দাবি সহ জিইয়ে উঠল পুরনো ভিডিও

কর্ণাটকে লিঙ্গায়েত সম্প্রদায়ের দুই লোক ব্যক্তিগত কারণে মারামারি করলে শিরোচ্ছেদের ঘটনাটি ঘটে। এর সঙ্গে ধর্ষণের অভিযোগের কোনও সম্পর্ক নেই।

Claim

চেন্নাইতে এক ব্যক্তি তার বোনকে ধর্ষণ করার জন্য সে ধর্ষণকারীর মাথা কেটে নেয়।

Fact

পুলিশ স্টেশনে আত্মসমর্পণ করার ওই বীভৎস ভিডিও তোলা হয় কর্ণাটকের মান্ডেয়া জেলায়, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে। সে দিন দুই ব্যক্তির মধ্যে ঝগড়া হচ্ছিল। কিন্ত একজন অপরজনের মা সম্পর্কে কটূক্তি করলে, বচসা মারাত্মক আকার ধারণ করে। পুলিশ বুমকে জানায় যে, দুই ব্যক্তিই লিঙ্গায়েত সম্প্রদায়ের লোক। ওই ভিডিও আগেও শেয়ার করা হয়েছিল। তখন মিথ্যে দাবি করা হয়েছিল যে, একজন হিন্দু, তার মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার জন্য, সে একজন মুসলমানের মাথা কেটে ফেলে।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2020-10-02T13:44:01+05:30
Claim Review :   এক ব্যক্তি তাঁর বোনকে ধর্ষণ করার জন্য ধর্ষণকারীর মাথা কেটে নিয়েছে
Claimed By :  Facebooks Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story