ব্রাজিলে বেখেয়াল এক বাইক চালকের দুর্ঘটনার ভিডিও বেঙ্গালুরুর ঘটনা বলে ছড়ানো হচ্ছে

বুম দেখে ভিডিওটি ব্রাজিলের সাও পাওলোর একটি ঘটনার। তাতে দেখা যাচ্ছে, হাইওয়েতে এক বাইক আরোহীকে ধাক্কা মারছে একটি গাড়ি।

বেশ ভয়াবহ একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, হাইওয়েতে একজন বাইক-চালক যখন খেলা দেখাচ্ছেন, তখন একটি গাড়ি তাকে সজোরে ধাক্কা মারে। দুর্ঘটনাটি ঘটে ব্রাজিলের সাও পাওলো জেলায়। কিন্তু সেটিকে বেঙ্গালুরুর ইলেক্ট্রনিক সিটি ফ্লাইওভারের ঘটনা বলে চালানো হচ্ছে।

১২ সেকেন্ডের ভিডিওটি তুলেছেন অন্য এক বাইক আরোহী। যখন অপরজন খেলা দেখানোর জন্য বাইকের সামনের চাকাটি মাটি থেকে তুলে শুধু পেছনের চাকার ওপর ভর করে চলেছিলেন। এই স্টান্ট শুরু হওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে, একটি ছুটে-আসা গাড়ি ওই বাইক চালককে ধাক্কা মেরে ছিটকে ফেলে দেয়।

সাবধান! অস্বস্তিকর ভিডিও

https://www.boomlive.in/wp-content/uploads/2019/10/VID-20191018-WA0025.mp4

ভিডিওটির সত্যতা জানতে চেয়ে বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনেও পাঠানো হয়েছিল ভিডিওটি।

ওই একই ক্লিপ ফেসবুক ও ইউটিউবেও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে ঘটনাটি বেঙ্গালুরুতে ঘটেছে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে



তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটিকে কয়েকটি প্রধান ফ্রেমে ভেঙ্গে রুশ সার্চ ইঞ্জিন ইয়ান্ডেক্সের সাহায্যে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে।

এর ফলে আমরা ভিডিওটির আরও বড় একটি সংস্করণ পাই। সেটি এ বছর জুলাই মাসে ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল। ভিডিওটির শেষের দিকে কিছু আতঙ্কগ্রস্ত ব্যক্তিকে পর্তুগিজ ভাষায় কথা বলতে শোনা যায়। ব্রাজিলের সাও পাওলো জেলার স্যান্টস-ডুমন্ট হাইওয়েতে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনার ভিডিও বলে সেটিকে চিহ্নিত করা হয়।



ব্রাজিলের ‘জার্নাল ইপিটিভি’ ঘটনাটি সম্পর্কে রিপোর্ট করে। তাদের বুলেটিনে বলা হয়, ক্যাম্পিনাস হাইওয়েতে মোটরবাইক চালিয়ে যাওয়ার সময়, ওই বাইক আরোহীকে একটি গাড়ি ধাক্কা মারে।

দুর্ঘটনাটি ঘটে ২৩ জুলাই। সাও পাওলোর ক্যাম্পিনাস হাইওয়ে দিয়ে যাওয়ার সময় ২০ থেকে ২৫ বছর বয়সী মোটরসাইকেল চালককে প্রচণ্ড বেগে ধেয়ে আসা একটি গাড়ি ধাক্কা মারে। বেশ কয়েকটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ধাক্কার ফলে বাইকটি ভেঙ্গে চুরমার হয়ে গেলেও, চালক অক্ষত থাকেন।

ভিডিওটির বিস্তারিত অংশ ব্রাজিলের সংবাদ ওয়েবসাইটগুলির ফেসবুক পেজেও আপলোড করা হয়।

ওই বাইক চালকের ইন্টারভিউয়ের ভিডিও-ও শেয়ার করে বেশ কয়েকটি সংবাদ ওয়েবসাইট। কিভাবে দুর্ঘটনাটি ঘটল এবং কিভাবেই বা উনি অক্ষত থেকে গেলেন, সে কথাই উনি বলেন ওই ইন্টারভিউতে। ওয়েবসাইটগুলি অবশ্য তার পরিচয় জানায়নি।



ওই ঘটনার তদন্ত শেষ হয়েছে ৮ অগস্ট।

Claim Review :   বেঙ্গালুরুর ইলেকট্রনিক্স সিটির দুর্ঘটনা
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story