চিনে এক পুলিশের ট্রাকে চাপা পড়ার ভিডিওকে ভারতের ঘটনা বলে শেয়ার করা হল

বুম অনুসন্ধান করে দেখে যে ঘটনাটি চিনের হেবেই প্রদেশের। পুলিশ অফিসারটি একটি বেপরোয়া ট্রাককে ধাওয়া করছিলেন। সেই ট্রাক ড্রাইভার তার উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দেয়।

চিনে এক পুলিশকে একটি ট্রাকের চাপা দেওয়ার মর্মান্তিক ভিডিওকে ভারতের ঘটনা বলে মিথ্যে দাবি করে শেয়ার করা হল। ওই পুলিশ অফিসার একটি বেপরোয়া ট্রাককে ধাওয়া করছিলেন। তখনই এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।

১ মিনিট ১৫ সেকেন্ড লম্বা ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি পুলিশের গাড়ি একটি ট্রাককে থামানোর জন্য ধাওয় করছে। সে সময় গাড়ি দুটি আগেপিছে করে চলছিল। শেষ পর্যন্ত পুলিশ ভ্যানটি এগিয়ে যায় এবং ট্রাকটিকে থামিয়ে দেয়। যখন ওই পুলিশ অফিসার ট্রাক ড্রাইভারকে ধরার জন্য বেরিয়ে আসেন তখন ট্রাকটি তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়।

এই ক্লিপটি ভাইরাল হয়েছে। তার ক্যাপশনে ইঙ্গিত করা হয়েছে যে সম্প্রতি মোটর ভেহিকলস অ্যামেন্ডমেন্ট অ্যাক্ট ২০১৯-এ শাস্তির পরিমাণ অনেকখানি বেড়ে যাওয়ার ফলেই এমন ঘটনা ঘটল।

গত মাসে সড়ক পরিবহণ ও হাইওয়ে মন্ত্রক  নতুন মোটর ভেহিকেল সংশোধনী আইন ২০১৯-এর অন্তর্গত শাস্তির বিধানগুলি ঘোষণা করে। ১ সেপ্টেম্বর থেকে বিভিন্ন রাজ্যে এই নতুন আইন চালু করা হয়েছে। এই নতুন আইনে ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করার জন্য এবং বেপরোয়া চালকদের জন্য আগের চেয়ে বেশি জরিমানার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ক্লিপটিতে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে: “ভারত সরকারের নতুন এমভিএ অ্যাক্ট ২০১৯-এ বড় গলদ রয়েছে। এর ফলে নানা দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটছে। ট্রাকচালক সরকারের চাপিয়ে দেওয়া অন্যায্য শাস্তি এড়াতে গিয়ে যে পুলিশকর্মীকে চাপা দিয়ে মারলেন, তার জন্য খুবই খারাপ লাগছে।”

টুইটটি ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে



টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির কিছু ফ্রেমের উপর রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখতে পায় যে এই ঘটনাটি চিনের হেবেই প্রদেশের হেংশুয়ে শহরের। ঘটনাটি  এ বছর গোড়ার দিকে ঘটেছিল।

২০১৯ সালের ৩১ মে এই একই ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল।



চিনের অনেকগুলি স্থানীয় সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে ঘটনাটি ৩০ মে চিনের
শেনঝাউ প্রদেশের হেংশুয়ে অঞ্চলে ঘটেছিল। পুলিশ যখন একটি বেপরোয়া ট্রাককে ধাওয়া করে তখন এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, “উত্তর চিনের হেবেই প্রদেশের হেংশুয়ে শহরের শেনঝাউ অঞ্চলে অফিসার গুয়ো সাই এবং তার সঙ্গী রুটিন ট্রাফিক ইন্সপেকশনের জন্য বাই নামের সন্দেহভাজনকে থামানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু বাই তার পণ্যবাহী গাড়িটিকে থামাতে চায়নি ফলে অফিসাররা শহরের মধ্যে তাকে ধাওয়া করেন।”

পুলিশ অফিসাররা যখন গাড়িটিকে থামানোর চেষ্টা করে তখন গাড়িটি এক জন অফিসারের উপর দিয়ে চলে যায়। ড্রাইভার পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তবে পরে ধরা পড়ে যায়।   শেঞ্ঝেন পাবলিক সিকিউরিটি ব্যুরোর ট্রাফিক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট জানায় যে ওই পুলিশ অফিসারের শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল তবে তাঁর আঘাতের সম্পর্কে বিশদে জানা যায়নি।

প্রতিবেদনগুলি দেখা যাবে এখানে, এখানেএখানে

Claim Review :   মোটর ভেহিকেল আইন সংশোধনের পরে ট্রাক ড্রাইভার পুলিশকে চাপা দিল
Claimed By :  TWITTER USER
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story