অত্যাচারিত গর্ভবতী মহিলার ছবি আসামের নয়

গর্ভবতী মহিলার ভাইরাল ছবি আসামের নয় কিন্তু বাংলাদেশ থেকে
Claim: বিজেপির আসামে পুলিশ গর্ভবতী মহিলার উপর হামলা করেছে Fact: শেফালী বেগম বাংলাদেশের এবং গরু চোরাচালানের অভিযোগে অভিযুক্ত হন এই ফেসবুক পোস্টটি একটি ব্যবহারকারী বাবলু ঘোরুইয়ের দ্বারা ভাগ করা হয়েছিল । ব্যবহারকারী একটি গর্ভবতী মহিলার দুটি ছবির ছবির একটি কোলাজ করেছেন . প্রথম ছবিতে মহিলার উপর হামলা চালানো দুই নারী পুলিশ সদস্য! দ্বিতীয় ছবিতে সে মারা গেছে । একটি শিশু তার পাশে ছিল। প্রথম ছবি তে প্রত্যক্ষদর্শীদের দেখা যায়। ফেইসবুক ইউসার ফোটোটিকে ক্যাপশন করে, "এটি বিজেপি রাজ্য অসম. এক গর্ভবতী মহিলা কে গাছে বেঁধে সারাদিন নির্যাতন। এর পরেও বিজেপি কে বর্বর না বললে, আর কবে বলবো ।  পোস্ট টি অগাস্ট ১২ তে শেয়ার করা হয়েছে । পোস্টিতে 20000 শেয়ার, 100 কমেন্ট এবং 1400 প্রতিক্রিয়া আছে । পোস্টটি দাবি করে যে বিজেপি শাসিত অসম আ নিম্ন জাতি দের উপর প্রচন্ড অত্যাচার হচ্ছে কিন্তু একটি ফ্যাক্ট চেক প্রমাণ করে যে ফটো টি অসম এর নয় । ফটো টি আসলে ডিমলা বাংলাদেশ এর । ফটো টি প্রথম প্রকাশিত হয় অগাস্ট, 2017, বাংলা ট্রিবিউন খবরের কাগজ এ ।  খবরটিতে লেখা ছিলো যে শেফালী বেগম নামে এক ব্যক্তিকে  পুলিশ বেধড়ক মার গরু পাচার এর অভিযোগে। মহিলা পুলিশ কর্মীদের ইউনিফর্ম এবং ব্যাজ ও প্রমাণ করে যে ছবিটি বাংলাদেশের ।
Show Full Article
Next Story