রাহুল গান্ধী বানিয়াদের চোর বলেছেন, ভাইরাল হওয়া খবরের কাগজের এই ক্লিপিংটি ভুয়ো

আগেও এক বার এই ক্লিপিংটি ভাইরাল হয়েছিল, অমিত শাহের নামে। দেখা যাচ্ছে, দুটোই ভুয়ো দাবি।

সম্প্রতি একটি ‘খবরের কাগজের ক্লিপিং’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। আপাতদৃষ্টিতে সংবাদ মনে হওয়া সেই ক্লিপিংটিতে দাবি করা হয়েছে যে রাহুল গান্ধী বানিয়া সম্প্রদায়ের মানুষকে চোর বলেছেন।

হিন্দি ভাষায় শিরোনামটি এই রকম: “ভারতীয় বানিয়ারা চুরি করতে আর অবৈধ মুনাফা অর্জন করতে অভ্যস্ত: রাহুল গান্ধী”।

(হিন্দিতে লেখা: चोरी और मुनाफ़ाखोरी देश के बनियों की आदत : राहुल गाँधी)

ভাইরাল হওয়া পোস্ট

এই সংবাদটিতে দাবি করা হয়েছে যে রাহুল গাঁন্ধী গত বছর রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই মন্তব্যটি করেন। আরও দাবি করা হয়েছে যে রাজস্থানের বুঁদিতে একটি জনসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় এই মন্তব্যটি করেন রাহুন। ফেসবুক পোস্টটির আর্কাইভড সংস্করণ দেখা যাবে এখানে

খবরের যে টুকরোটি ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে, তার ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “বৈশ্য ভাইরা, দেখুন যে পাপ্পু (রাহুল গান্ধী) মোদীজিকে চোর বলতেন, তিনি এখন গোটা বানিয়া সম্প্রদায়কেই চোর বলছেন। তিনি নিজেই লুণ্ঠনের মাধ্যমে অবিশ্বাস্য সম্পদের মালিক হয়েছেন আর মনে করেন যে এই দেশের সব মানুষ চোর। অপেক্ষা করুন আর দেখুন, গোটা দেশের বানিয়া সম্প্রদায় তাঁকে কেমন শিক্ষা দেন।”

(হিন্দিতে লেখা ছিল: देश के वैश्य भाइयों देखिए, मोदी जी को चोर बोलते बोलते देश के सारे बनियों को ये पप्पू (राहुल गाँधी ) चोर कैसा बना दिया । ये तो खुद चोरी से अकूत संपत्ति बना लिया है और वैसे देश के सभी लोगों को चोर समझता है इसबार देश के बनियों कैसे उसको औकात पे लाता है देखिए ।)

তথ্য যাচাই

এই নির্দিষ্ট সম্প্রদায়টি সম্বন্ধে রাহুল গান্ধী মন্তব্য করেছেন, এমন কোনও খবর আছে কি না, বুম তার খোঁজ করেছিল। কিন্তু, আমরা তেমন কোনও খবর খুঁজে পাইনি। বস্তুত, ভাইরাল হওয়া ক্লিপিংয়ের গোটা খবরটিতে কোথাও সংবাদপত্রের নামের উল্লেখ না থাকাতেই আরও বেশি সন্দেহ হয় যে খবরটি ভুয়ো।

মজার কথা হল, ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর তারিখে ঠিক একই মন্তব্য সংক্রান্ত সংবাদপত্রের খবর ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছিল। তবে, সে সময় অভিযোগ ছিল, ভারতীয় জনতা পার্টির সভাপতি অমিত শাহ ওই মন্তব্যটি করেছেন।

ওই মন্তব্য অমিত শাহের, বলছে সংবাদের ক্লিপিং

অমিত শাহের নামে একেবারে একই মন্তব্য সমতে সংবাদের ক্লিপিংটি গত ডিসেম্বরে ভাইরাল হয়।

এ দিক ও দিক দুই একটি শব্দ বাদ দিলে দুটি সংবাদের ভাষা প্রায় এক।

যে সংবাদটিতে এই মন্তব্যের অমিত শাহের বলে চালান হয়েছে, তার বয়ান এই রকম: রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারপর্বের আগে ভারতীয় জনতা পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বিতর্কিত মন্তব্য করে বানিয়াদের চোর ও ধান্দাবাজদের সঙ্গে তুলনা করলেন। রাজস্থানের বুঁদিতে একটি জনসভায় বিজেপি সভাপতি বলেন যে বানিয়া সম্প্রদায়ের মানুষদের এবং ব্যবসায়ীদের অভ্যাসই চুরি করা। তাঁরা যে শুধু কর ফাঁকি দেন, তা-ই নয়, আজ দেশের কৃষকদের দুরবস্থার প্রধান কারণ তাঁরা, কারণ তাঁরা পুরো মুনাফাই নিজেদের পকেটে ভরেন।

राजस्थान विधानसभा चुनाव प्रचार के दौरान भाजपा के राष्ट्रीय अध्यक्ष अमित शाह ने विवादास्पद बयान देते हुए देश के बनिया समाज और व्यापारियों की तुलना चोरों से कर डाली। राजस्थान के बूंदी में आयोजित भाजपा की चुनावी रैली में भाजपा अध्यक्ष ने कहा की चोरी करना तो देश के बनिया और व्यापारियों की आदत है, टैक्स तो चोरी करते ही हैं साथ ही किसानो की बर्बादी का भी मुख्य कारण ये बनिया और व्यापारी वर्ग ही है जो सारा मुनाफा अपनी जेब में डाल जाते हैं।

সংবাদটির যে সংস্করণ রাহুল গান্ধীর নামে বেরিয়েছে, সেখানে বিজেপি আর অমিত শাহের নামদুটি পাল্টে কংগ্রেস ও রাহুল গান্ধী করে দেওয়া হয়েছে।

राजस्थान विधानसभा चुनाव प्रचार के दौरान कांग्रेस के राष्ट्रीय अध्यक्ष राहुल गाँधी ने विवादास्पद बयान देते हुवे देश के बनिया समाज और व्यापारियों की तुलना चोरों से कर डाली। राजस्थान के बूंदी में आयोजित कांग्रेस की चुनावी रैली में कांग्रेस अध्यक्ष ने कहा की चोरी करना तो देश के बनिया और व्यापारियों की आदत है, टैक्स तो चोरी करते ही हैं साथ ही किसानो की बर्बादी का भी मुख्य कारण ये बनिया और व्यापारी वर्ग ही है जो सारा मुनाफा अपनी जेब में डाल जाते हैं।

একই শিরোনামে প্রকাশিত দুই নেতার নামে চালিয়ে দেওয়া সংবাদের টুকরো
Claim Review :   ক্লিপিং-এ দাবি করা হয়েছে যে রাহুল গান্ধী বানিয়া সম্প্রদায়ের মানুষকে চোর বলেছেন।
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story