Connect with us

ভাইরাল পোস্টের ভুয়ো দাবিঃ যারা কাশ্মীরিদের আক্রমণ করেছে, তারা কংগ্রেস, এসপি-র সদস্য

ভাইরাল পোস্টের ভুয়ো দাবিঃ যারা কাশ্মীরিদের আক্রমণ করেছে, তারা কংগ্রেস, এসপি-র সদস্য

কাশ্মীরি ফল-বিক্রেতাদের আক্রমণ করার দায়ে গ্রেফতার হওয়া চারজনই লখনউয়ের একটি দক্ষিণপন্থী গোষ্ঠী বিশ্ব হিন্দু দলের সদস্য

লখনউয়ে দু জন কাশ্মীরি ফল-বিক্রেতাকে আক্রমণ করার দায়ে অভিযুক্ত এবং গ্রেফতার হওয়া চারজনের ছবি দিয়ে একটি পোস্ট সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার হয়েছে যে, ওরা সবাই নাকি কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টির সদস্য । কিন্তু সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট এবং পুলিশের বয়ান, উভয়েই বলছে, এরা একটি দক্ষিণপন্থী গোষ্ঠী বিশ্ব হিন্দু দলের সদস্য ।

পোস্টটি যে হিন্দি বিবরণ সহ ভাইরাল হয়েছে, তা হলঃ গেরুয়া জামাকাপড় পরে যারা কাশ্মীরি যুবকদের মারধর করেছে, তারা সবাই কংগ্রেস ও এসপি-র সদস্য ।

এই লেখার সময় পর্যন্ত পোস্টটি ৩০০ জন শেয়ার করেছে ।

পোস্টের আর্কাইভ বয়ানটি এখানে দেখতে পারেন ।

ক্যাপশনের লেখাটি তুলে খোঁজ চালিয়ে বুম দেখেছে, ফেসবুক ও টুইটারে অনেক পোস্টই একই ছবির স্ক্রিনশট দিয়ে একই ক্যাপশন শেয়ার করেছে ।

তথ্য যাচাই

শুকনো ফল বিক্রেতা কাশ্মীরিদের গেরুয়া কুর্তা পরা কয়েকজন মিলে নিগ্রহ করছে, এমন একটি ভিডিও লখনউয়ের সাংবাদিক প্রশান্ত কুমার টুইট করেন । ছবিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, হামলাকারী দুষ্কৃতীরা ওই ফল-বিক্রেতাদের কাশ্মীর-বিরোধী মন্তব্য করে গালি দিচ্ছে এবং মারধর করছে । ভিডিওটি সঙ্গে-সঙ্গেই ভাইরাল হয় এবং লখনউ পুলিশ বজরঙ সোনকর নামে এক দাগি দুষ্কৃতী এবং দক্ষিণপন্থী সংগঠনের সদস্য সহ চারজনকে গ্রেফতার করে ।

লখনউয়ের সিনিয়র পুলিশ সুপার কলানিধি নৈথানি ঘটনাটি নিয়ে একটি সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, নিগ্রহকারী চারজনই একটি দক্ষিণপন্থী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু দল ট্রাস্ট-এর সদস্য, যা পরিচালনা করেন জনৈক অম্বুজ নিগম ।

বুম ফেসবুকে বিশ্ব হিন্দু দলের খোঁজ লাগায় এবং সংগঠনের একটি সরকারি পেজ-এর খোঁজও পায় । পেজটিতে দেওয়া প্রধান ছবির একেবারে ডান দিকে বজরঙ সোনকরকে দেখাও যাচ্ছে । অনেক চেষ্টা করেও অবশ্য আমরা বিশ্ব হিন্দু দল -এর কাছে পৌঁছতে পারিনি ।

নৈথানি সাংবাদিকদের জানান, সোনকরের বিরুদ্ধে বেশ কিছু ফৌজদারি মামলা রয়েছে ।

বুম বজরঙ সোনকরের ফেসবুক পোস্ট তল্লাশ করে এমন অনেক পোস্ট পেয়েছে, যেগুলি সাম্প্রদায়িক চরিত্রের । এমনই একটি সাম্প্রতিক পোস্টে তিনি জনসাধারণের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন, “হিন্দুদের জন্য এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য তাঁর লড়াইয়ে শামিল হতে ।”

অন্য একটি পোস্টে সোনকর দাবি করেছেন, যদি ভারত পাকিস্তান দখল করে নেয়, তা হলে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের স্ত্রী রেহম খানের উপর কেবল তাঁর একারই অধিকার বর্তাবে । হিন্দিতে তিনি লিখেছেন, “রেহম খান কেবল আমারই হবে, অন্য কেউ তাঁর উপর দখল নিতে চাইলে গুলি চলবে…”ইত্যাদি । সবশেষে লেখা—মাফিয়া বিশ্ব হিন্দু দল । এবং পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে ।

(BOOM is now available across social media platforms. For quality fact check stories, subscribe to our Telegram and WhatsApp channels. You can also follow us on Twitter and Facebook.)

Claim Review : Four People Who Attacked Kashmiri Dry-Fruit Sellers In Lucknow Are From Congress & Samajwadi Party

Fact Check : FALSE


Continue Reading

Krutika Kale is BOOM's video producer and works on stories through the intelligent use of images, text, and video. She is also the producer of our flagship show Fact Vs Fiction.

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top