শপথ গ্রহণের সময় জগন্মোহন রেড্ডি কি কেবল খ্রিস্টান পাদ্রিদের আশীর্বাদ নিয়েছিলেন?

বুম দেখেছে, শপথ নেওয়া অন্ধ্রপ্রদেশের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিন্দু, মুসলিম ও খ্রিস্টান সকল ধর্মগুরুদের আশীর্বাদ নিয়েছেন।

অন্ধ্রপ্রদেশের নতুন মুখ্যমন্ত্রী জগন্মোহন রেড্ডির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের একটি ভিডিও কাটছাঁট করে শেয়ার করা হচ্ছে এই বলে যে, তিনি অনুষ্ঠানে অন্য সব ধর্মকে বাদ দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিজয়ওয়াড়ায় আয়োজিত এই এক ঘন্টার অনুষ্ঠানটির ভিডিও কাটছাঁট করে ২ মিনিট ২০ সেকেন্ডে সম্পাদিত করা হয়েছে।

জগন্মোহনের যুবজন শ্রমিক রায়তু কংগ্রেস পার্টি (ওয়াইএসআরসিপি) রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল গরিষ্ঠতা নিয়ে জয়লাভ করেছে এবং বৃহস্পতিবারই তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন।

সম্পাদিত ভিডিও ক্লিপটির ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, “একবার কল্পনা করুন, যদি কোনও বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে এ ধরনের ধর্মীয় ব্যাপার ঘটতো। সে ক্ষেত্রে চারিদিকে হৈ-হৈ পড়ে যেত!”



একই ক্যাপশন দিয়ে ফেসবুকেও পোস্টটি শেয়ার হয়েছে।

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম দেখেছে, বেশ কিছু সংবাদ-প্রতিবেদনে এই অনুষ্ঠানের খবর লিখতে গিয়ে বলা হয়েছে, “জগন্মোহনের জন্য মঞ্চের উপরেই একটি সর্বধর্ম প্রার্থনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।”

এনডিটিভি শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানটির সরাসরি সম্প্রচারের সময় রিপোর্ট করে—"জগন্মোহন আনুষ্ঠানিক ভাবে শপথ নেওয়ার পরেই হিন্দু, মুসলিম ও খ্রিস্টান ধর্মের পুরোহিত, ইমাম ও যাজকরা মঞ্চের উপরেই প্রার্থনামন্ত্র উচ্চারণ করেন।"

জগন্মোহন রেড্ডির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের এনডিটিভির লাইভ আপডেটের স্ক্রিনশট।

দ্য হিন্দু সংবাদপত্র রিপোর্ট করে—“১২টা ৪০ মিনিটে একটি সর্বধর্ম প্রার্থনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। হিন্দু, মুসলিম ও খ্রিস্টান ধর্মের গুরুরা রাজ্যে পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের জন্য প্রার্থনা করেন।”

দ্য হিন্দুর লাইভ আপডেটের স্ক্রিনশট।

ইউ-টিউবেও বুম অনুষ্ঠানটির সরাসরি সম্প্রচার করা ভিডিও খুঁজে পেয়েছে। জগন্মোহনের দল ওয়াইএসআরসিপি-র সরকারি ইউ-টিউব চ্যানেল দেখাচ্ছে, প্রথমে এক গির্জার পাদ্রি জগন্মোহনকে আশীর্বাদ করছেন, তারপর মুসলিম ধর্মীয় নেতারা এবং সবশেষে হিন্দু পুরোহিতরা।

তিন ধর্মের গুরুরা মন্ত্র উচ্চারণ করছেন এবং জগন্মোহন ও তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে থাকা তাঁর মাকে আশীর্বাদ করছেন।



ভিডিওটির ১০:২০ সময়ে দক্ষিণ ভারতীয় গির্জার (চার্চ অফ সাউথ ইন্ডিয়া) দুই যাজককে দেখা যায় মঞ্চের উপর জগন্মোহনকে সম্ভাষণ করে মন্ত্র উচ্চারণ করতে।

ভিডিওটির ১৮.০১ মিনিটে দুই মুসলিম মৌলবি মঞ্চে এসে জগন্মোহনকে আশীর্বাদ করেন এবং কোরান থেকে কয়েকটি সুরা পাঠ করেন। সবশেষে আসেন হিন্দু পুরোহিতরা, যাঁদের মঞ্চে দেখা যায় ভিডিওটির ২২:০১ মিনিটে। তাঁরা জগন্মোহনকে একটি শাল উপহার দেন এবং মন্ত্র পড়ে তাঁকে আশীর্বাদ করেন।

সম্প্রতি জগন্মোহনের নামে এ ধরনের আরও একটি ভুয়ো খবর রটানো হয়, যাতে হৃষিকেশে তাঁর একটি পুরনো ফোটো দেখিয়ে বলার চেষ্টা করা হয় যে, জগন্মোহন হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছেন।

ওয়াইএসআরসিপি দলের মুখপাত্র সেই গুজবটি অস্বীকার করে বুমকে জানিয়েছেন, “জগন্মোহন রেড্ডি যিশু খ্রিস্টের একজন একনিষ্ঠ ভক্ত।”
এ ব্যাপারে তথ্য যাচাই পড়ুন এখানে

Claim Review :  জগন্মোহন রেড্ডি কেবল খ্রিস্টান পাদ্রিদের আশীর্বাদ নিয়েছিলেন
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  MISLEADING
Show Full Article
Next Story