পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার মেয়াদ শেষ হবে ৩০ মে। ২৯৪ টি আসনের মধ্যে তফশিলি আসন ৬৮ টি, তফশিলি উপজাতি আসন ১৬ টি।

দু'বারের নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মূল প্রতিপক্ষ এবার বিজেপি। ২ মে জানা যাবে ভোটের ফলাফল।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সহ বিজেপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব দফায় দফায় প্রচারে আসছেন রাজ্যে।
এবারের ভোটে নতুন আত্মপ্রকাশ দলিত ও মুসলিম সমাজে প্রভাবশালী আব্বাস সিদ্দিকির নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রান্ট।
আব্বাস সিদ্দিকি জোটের মাধ্যমে আসন সমঝোতা চাইছেন বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্বের কাছে। তাঁর সঙ্গে জানুয়ারি মাসে দেখা করেন এআইএমআইএম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়েইসি।
২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেডে জনসভা বামেদের। ২০১১ সালে হারানো আসন ফিরে পেতে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির প্রতিদ্বন্ধীতায় এক জোটে সামিল বাম ও কংগ্রেস।
বাম নেতৃত্বরে নতুন কিছু মুখ এবার বিধানসভা ভোটে লড়তে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।
শুভেন্দু অধিকারী সহ একাধিক তৃণমূল নেতৃত্ব পুরনো সঙ্গ ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। তাঁরা কেমন ভোট লড়ছেন তাকিয়ে রয়েছে রাজ্যবাসী।
কয়েকবছর ধরে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের হাল রয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে। এখন দেখার বিধানসভা ভেটে আসন জিততে তাঁর সাংগঠনিক দক্ষতা কার্যকরি কিনা।