নির্বাচনী প্রচার চালাতে গিয়ে কংগ্রেস প্রার্থীরা কি মারধর খেয়েছেন? তথ্য-যাচাই

২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর পাঞ্জাবের আজনালায় একটি ঘটনা ঘটেছিল, যেখানে শিরোমণি অকালি দলের কর্মীরা কংগ্রেস সমর্থকদের একটি বাইক-শোভাযাত্রায় আক্রমণ চালায়

কংগ্রেস দলের পাঞ্জাব শাখা আয়োজিত একটি মোটরসাইকেল মিছিলের উপর একদল লোকের হামলা চালানোর একটি পুরনো ছবি ভুয়ো ক্যাপশন দিয়ে ভাইরাল করা হয়েছে ।

ফেসবুকে ভুল ক্যাপশন দিয়ে বলা হচ্ছে, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে প্রচার চালানোর সময় পাঞ্জাবের কংগ্রেস নেতারা স্থানীয়দের হাতে মারধর খাচ্ছেন ।

ক্যাপশনটিতে দাবি করা হয়েছে, “মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, রাজস্থান ও পাঞ্জাবে ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটে জিতে ক্ষমতায় আসার পর কংগ্রেস প্রার্থীরা লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে বের হলে স্থানীয় মানুষজন তাঁদের তাড়া করে মারধর করছেন” ।

পোস্টটি অনেক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকেই ভাইরাল করা হচ্ছে—

তথ্য যাচাই

পোস্টে ব্যবহৃত ছবিটির খোঁজখবর চালিয়ে বুম দেখেছে, ২০১৬ সালে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে ঘটনাটির বিশদ রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছিল । ঘটনাটি ২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বরের, পাঞ্জাবের আজনালার, যখন শিরোমণি অকালি দলের একদল কর্মী কংগ্রেস নেতাদের একটি বাইক-মিছিলে হামলা চালায় । সে সময় জেলা কংগ্রেস সভাপতি গুরজিত সিং আউজলা ঘটনার জন্য অভিযুক্ত করেন রাজ্যের তদানীন্তন শাসক দল অকালিদের ।

হিন্দুস্তান টাইমস এবং ডেইলি পোস্ট-এ প্রকাশিত নীচের সচিত্র রিপোর্টেও স্পষ্ট যে ঘটনাটি ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালের ঘটনা নয়, বরং ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসের, যখন শিরোমণি অকালি দল রাজ্যে ক্ষমাতাসীন ছিল ।

কংগ্রেসের বাইক-মিছিলের উপর সেই হামলার রিপোর্ট পড়ুন এখানে এবং এখানে

Claim Review :  ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে প্রচার চালানোর সময় পাঞ্জাবের কংগ্রেস নেতারা স্থানীয়দের হাতে মারধর খাচ্ছেন
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story