কাঁথির জনসভার পর সাংসদ Abhishek Banerjee-কে চড় মেরেছে এক ব্যক্তি?

বুম দেখে ২০১৫ সালে পূর্ব মেদিনীপুরে এক জনসভায় যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মারে ওই ব্যক্তি।

২০১৫ সালের যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Abhishek Banerjee) এক ব্যক্তির চড় (slapping) মারার ভিডিও বিভ্রান্তিকর দাবি সহ জিইয়ে উঠল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্প্রতি কাঁথির (Contai) জনসভায় বলা ''তোর বাপ কে গিয়ে বল বাড়ির ৫ কিলোমিটারের মধ্যে আছি।'' নেটিজেনরা দুটি ভিডিওর দৃশ্য এক সঙ্গে শেয়ার করে দাবি করছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ে কাঁথির জনসভায় ওই মন্তব্য করার পর পরই চড় খেলেন!

বুম দেখে যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মারার ভিডিওটি ২০১৫ সালের।

শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে গত বছরের ডিসেম্বর যোগদান করার পর প্রথমবার পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথিতে গিয়ে ৬ ফেব্রুয়ারি এক জনসভায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "অধিকারী গড় আবার কি? এখানে আমার সভা আছে ৭ দিন ৮ দিন আগে বলেছিলাম। ফেসবুকে আবার অনেকে ভিডিও ছাড়ছে যাতে আমি এখানে না আসি। আমাকে ভয় দেখাবে। আমাকে ভাবছে হয়ত ধমকে, চমকে, তর্ক করে। ওই দুটো এমনি তো জোকারের মত মুখ তারপর আবার বড় বড় কথা। আমাকে বলছে যে এলে দেখে নোব। যদি না শোধরাও—ওই করবো, তাই করবো।''

তারপর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ''আরে তোর বাপ কে গিয়ে বল বাড়ির ৫ কিলোমিটারের মধ্যে আছি। যা করার কর আয়। আয় আয় হিম্মত আছে।''

এই ঘটনা নিয়ে এবিপি আনন্দের রিপোর্ট দেখা যাবে এখানে। নিউজ১৮ বাংলা ও আন্দবাজারের প্রতিবেদন দেখা যাবে এখানেএখানে

ভাইরাল হওয়া ৩০ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলতে শোনা যায়, ''যদি না শোধরাও—ওই করবো, তাই করবো। আরে তোর বাপ কে গিয়ে বল বাড়ির ৫ কিলোমিটারের মধ্যে আছি। যা করার কর আয়। আয় আয় হিম্মত আছে।''

এর পর দেখা যায় এক ব্যক্তি স্টেজে উঠে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গালে থাপ্পড় মারছে। দেহরক্ষী ও মঞ্চে থাকা ব্যক্তিরা তারপর ধরে ফেলে ওই ব্যক্তিকে।

ভিডিও টুইটারে শেয়ার করে ইংরেজি হরফে হিন্দিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে যার বাংলা অর্থ, "স্বাদ পেলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়?"

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে ভাইরাল

একই দাবি সহ ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি। "স্বাদ পেলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ইনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো।" পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: অমিত শাহ রবীন্দ্রনাথের চেয়ারে বসেন? অধীর চৌধুরীর মিথ্যে দাবি

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মারার ভিডিওটি ২০১৫ সালের।

বুম কিওয়ার্ড সার্চ করে এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের একাধিক প্রতিবেদন খুঁজে পায়। ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে পূর্ব মেদিনীপুরের চাঁদিপুরে যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মারে তমলুকের বাসিন্দা দেবাশীষ আচার্য নামে এক ব্যক্তি। দলের তরফে বলা হয় ছবি তোলার নাম করে দেবাশীষ মঞ্চে ওঠার অনুমতি পায়। তারপর হঠাৎই ওই কাণ্ড ঘটায়। তৃণমূল কংগ্রেস অবশ্য দাবি করে সে দলীয় কর্মী নয়, 'বহিরাগত'। বিস্তারিত পড়ুন এনডিটিভি প্রকাশিত প্রতিবেদনে

নিচে এবিপি আনন্দের রিপোর্ট দেওয়া হল।

দেবাশীষকে পরে বেধড়ক মারধর করে তৃণমূল যুব কংগ্রেস কর্মীরা। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

'তোর বাপ কে গিয়ে বল' অভিষেকের মন্তব্যের পরের দিন এর পাল্টা জবাব দেন শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত বিজেপি নেতা কণিষ্ক পাণ্ডা। কনিষ্ক পাণ্ডা বলেছিলেন, ভাইপো তোমায় আমরা বলে রাখি, তোমার পিঠের চামড়া আমরা গুটিয়ে নেব, আপনার স্ত্রীকে তো আপনার বাবা-মাই মেনে নেননি, আপনার পরিবারকে আগে সামলান, পরে রাজনীতি করবেন।'' পরে আবার ক্ষমাও চেয়ে নেন তিনি। বিস্তারিত পড়ুন এবিপি আনন্দের প্রতিবেদনে

আরও পড়ুন: আলাস্কাতে গলতে থাকা হিমবাহের ছবি উত্তরাখণ্ডের বলে ভাইরাল হল

Updated On: 2021-02-12T19:51:40+05:30
Claim Review :   ভিডিওর দাবি কাঁথির ভাষণের পর সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মেরেছে এক ব্যক্তি
Claimed By :  Facebook Post & Twitter User
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story