গলি রাস্তায় ট্যাক্সি জলে ডুবে যাওয়ার ছবিটি আমপানের সময়ের

বুম দেখে কলকাতায় কোনও গলিতে তোলা ছবিটি ২০২০ সালের মে মাসে সাইক্লোন আমপানের পর একাধিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল।

গলি রাস্তায় ট্যাক্সি (taxis) জলে ডুবে যাওয়ার ছবি সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর দাবি সহ শেয়ার করা হচ্ছে। বর্ষার (monsoon) আবহে ছবিটি শেয়ার হওয়ায় অনেকে এবারের বর্ষায় কলকাতায় (Kolkata) তোলা ছবি বলে ভুল করছেন।

সাইক্লোন ইয়াস-এর ধাক্কার পর বঙ্গে এবার বর্ষার আগমণ কিছুটা আগে ভাগেই। করোনা অতিমারি ও লকডাউনে নাচার আম জনতা বর্ষার জন্য আর হা-পিত্যেশ না করলেও সপ্তাহজুড়ে তিলত্তমা নগরীর আনাচে কানাচে রাস্তায় জমা জলে স্থলযান-জলযানের সহাবস্থান বলা চলে!

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যায় গলি রাস্তায় কলকাতার ঐতিহ্যবাহী একটি হলুদ ট্যাক্সি সহ আরও দুটি গাড়ি জলে প্রায় বনেট অবধি ডুবে রয়েছে।

ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "ধরো যদি হঠাৎ বাংলায়, তুমি আমি এক গামলায়, মুখোমুখি আমরা দুজন, মাঝখানে পিসির লন্ডন।"

এই রকম ছবি সহ দুটি ফেসবুক পোস্ট দেখা যাবে এখানেএখানে। পোস্ট দুটি আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল ছবিটি এবারের বর্ষায় কলকাতার রাস্তায় জল জমার দৃশ্য নয়। ছবিটি ২০২০ সালে ঘূর্ণিঝড় আমপান পরবর্তী সময়ের।

বুম রিভার্স সার্চ করে ২১ মে ২০২০ প্রকাশিত ওয়াশিংটন পোস্টের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায়। প্রতিবেদনটির শিরোনাম, "সাইক্লোন আমপানে ভারত ও বাংলাদেশে নিহত ৮৫ জনের বেশি"

এই প্রতিবেদনে ব্যবহার করা ছবিটির ক্যাপশনে লেখা হয়, "ভারতের কলকাতায় সাইক্লোন আমপানের পর বৃষ্টিপাতের জেরে কলকাতার গলিপথে ডুবছে গাড়িগুলি, বুধবার ও বৃহঃস্পতিবার তোলা কয়েকটি ছবি।" এএফপির তরফে ছবিগুলি তোলেন সাত্যকি সান্যাল।

এএফপি ও ফোটোগ্রাফার সাত্যকি সান্যালকে ছবির সৌজন্য জানিয়ে একই ছবি প্রকাশ করেছে বেলজিয়ামের গণমাধ্যম আরটিবিএফ

একই ছবি প্রকাশিত হয়েছে ডেকান হেরল্ড, স্কটিশ সানহিন্দুস্তান টাইমসেও

২০২০ সালের মে মাসে সাইক্লোন আমপানের ফলে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। কলকাতায় গাছ উপড়ে যাওয়ার ফলে বেশ কয়েকদিন ধরে বিপর্যস্ত হয় বিদ্যুৎ ও পানীয় জল পরিষেবা।

আরও পড়ুন: প্রাক্তন বিজেপি মন্ত্রী জিইয়ে তুললেন ২০০৯ সালে দিল্লিতে জলসংকটের ছবি

Updated On: 2021-06-28T21:37:17+05:30
Claim :   ছবির দাবি বর্ষায় বৃষ্টিতে জলে ডোবা ট্যাক্সি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.