বিধানসভা ভোটের আগে অমিত শাহ-আসাদউদ্দিন ওয়েইসির জোড়াতালি ছবি ছড়াল

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি ভুয়ো—অমিত শাহ আর আসাদউদ্দিন ওয়েইসির আলাদা সম্পর্কহীন দু'টি ছবি জুড়ে সেটি তৈরি করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) ও সর্বভারতীয় মজলিস এ-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (AIMIM)-এর সভাপতি আসাদউদ্দিন ওয়েইসির (Asaduddin Owaisi) একসঙ্গে জুড়ে দেওয়া ছবি ভাইরাল হয়েছে। সেই সঙ্গে দাবি করা হয়েছে যে, বিধানসভা নির্বাচনের (Assembly Election)আগে ওয়েইসি ভারতীয় জনতা দলের (BJP) সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন।

বুম দেখে, শাহ ও ওয়েইসির দু'টি আলাদা ছবিকে জুড়ে একটি ছবি তৈরি করা হয়েছে। ভাইরাল ছবিটি শেয়ার করা হচ্ছে এই বক্তব্য সমেত যে মুসলিম সস্প্রদায়ের মানুষরা যেন এআইএমআইএম-কে ভোট না দেয়।

ছবিটিতে অমিত শাহকে একটি ঘরে আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ও তাঁর ভাই আকবরউদ্দিন ওয়েইসির সঙ্গে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

একাধিক বিভ্রান্তিকর ক্যাপশন সমেত ছবিটি ভাইরাল হয়েছে। তার মধ্যে একটি হিন্দি ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "কী স্টাইল। আবারও বলছি, কী স্টাইল।"

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

একটি ইংরেজি ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "ওয়েইসি বিজেপির বি টিম। মুসলমানরা ওয়েইসিকে ভোট দেবেন না। হিন্দুস্তান ভাল থাকবে।

ওই পোস্টগুলি আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে

একটি বাংলা ক্যাপশন সমেতও ছবিটি শেয়ার করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ""ছবি কথা বলে। ছবি দেখলেই বোঝা যায় তুমি কোন পথের প্রতীক।বিশেষ করে আমার সংখ্যালঘু ভাইদের কাছে বিশেষ অনুরোধ ছবি দেখে পথ চলার সিদ্ধান্ত নেবেন। জয় বাংলা"।

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

একই ধরনের বক্তব্য সমেত ছবিটি টুইটারেও শেয়ার করা হয়েছে। তার স্ক্রিনশট নিচে দেওয়া হল।

তথ্য যাচাই

বুম ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। তার ফলে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮-য় 'নিউজ মিনিট'-এ প্রকাশিত একটি রিপোর্ট দেখতে পাওয়া যায়। তাতে একটি ছবিতে আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ও আকবরউদ্দিন ওয়েইসিকে একটি সোফায় বসে থাকতে দেখা যায় যেটি ভাইরাল ছবিটিতেও রয়েছে। আসল ছবিটিতে তাঁদের সঙ্গে তেলেঙ্গানার এক আধিকারিককে বসে থাকতে দেখা যায়। ভাইরাল ছবিটিতে, সেই আধিকারিকের জায়গায়, অমিত শাহের ছবি কেটে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। রিপোর্টটিতে বলা হয়, হায়দরাবাদের সাংসদ ও বিধায়ক হিসেবে তাঁরা তেলেঙ্গানার আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করে, সরকারকে মুসি নদীর ওপর একটি সেতু নির্মাণের আবেদন জানান।

আমরা ওয়েইসির ফেসবুক প্রোফাইলে ওই মিটিংয়ের অন্যান্য ছবির সঙ্গে ওই ছবিটিও দেখতে পাই। সেই পোস্টের ক্যাপশনে বলা হয়, "এআইএমআইএম সভাপতি ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ও বিধানসভায় পরিষদীয় দলনেতা আকবরউদ্দিন ওয়েইসি, প্রিন্সিপ্যাল সেক্রেটারি এমএ ও ইউডি মি. অরবিন্দ কুমার, কমিশনার জিএইচএমসি জনার্দন রেড্ডির সঙ্গে দেখা করেন। সেই সময় তাঁরা চারমিনারের চারপাশের হকারদের পুনর্বাসনের জন্য নয়াপুলের কাছে একটি সেতু তৈরির ব্যাপারে স্মারকলিপি জমা দেন।"

এরপর বুম ভাইরাল ছবিটি থেকে অমিত শাহের ছবিটি আলাদা করে কেটে নিয়ে, সেটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। তার ফলে, ২৯ সেপেটম্বর ২০১৯-এ তোলা আসল ছবিটি আমরা দেখতে পাই। তাতে অমিত শাহ ও পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংহকে দেখা যাচ্ছে। দিল্লিতে পাঞ্জাবের নানা বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করার পর অমরেন্দ্র সিংহ ছবিটি টুইট করেন।

আমরা নিশ্চিত হই যে, দু'টি আলাদা ছবিকে সম্পাদনা করে জুড়ে দিয়ে ভাইরাল ছবিটি তৈরি করা হয়েছে। ভাইরাল ছবিটির সঙ্গে আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ও অমিত শাহকে মিলিয়ে দেখলে স্পষ্ট হয় যে, অমিত শাহর ছবিটি কেটে নিয়ে, উল্টে দিয়ে, আসাদউদ্দিন ও আকবরউদ্দিন ওয়েইসির ছবির ওপর বসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মিলিয়ে দেখার জন্য ছবিগুলি নীচে দেওয়া হল।

Updated On: 2021-03-15T12:45:09+05:30
Show Full Article
Next Story