কর্নাটকের মুসকান খান নিহত ভুয়ো দাবিতে ছড়াল কাশ্মীরের ২০১৭ সালের ছবি

ভাইরাল ছবি ২০১৭ সালে কাশ্মীরে সংঘর্ষে আহত এক ছাত্রীর। বুমকে মুসকান খানের পরিবারের তরফে জানানো হয় ভালো আছেন তিনি।

কর্নাটকের কলেজ ছাত্রী (Muskan Khan) মুসকান খানকে হত্যা করা হয়েছে ভুয়ো দাবিতে ২০১৭ সালে কাশ্মীরের (Kashmir) লালচকের কাছে নিরাপত্তারক্ষী ও বিক্ষোভকারী ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষে (Clash) আহত ছাত্রীর ছবি সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে।

বুমের তরফে মুসকান খানের পরিবারের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ করা হলে জানানো হয় কুশলে আছেন মুসকান।

মুসকান খান ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে খবরের শিরোনামে আসেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ ঘিরে সমর্থনকারী দক্ষিণপন্থী ছাত্রদের বিরুদ্ধে কলেজ অভ্যন্তরে রুখে দাঁড়ান কর্নাটকের মাণ্ড্যর পিইএস কলেজের ছাত্রী মুসকান।

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ফেসবুক পোস্টগুলিতে কলেজ চত্ত্বরে হিজাব পরিহিত মুসকানের ছবির সঙ্গে আরেকটি সম্পর্কহীন ছবি শেয়ার করা হচ্ছে। ওই ছবিতে দেখা যায় এক টুপি পরিহিত এক ব্যক্তি সাদা পোশাক পরিহিত এক সংজ্ঞাহীন মেয়েকে পাঁজাকোলা করে নিয়ে নিয়ে আছেন।

ফেসবুকে ছবি দুটি শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "ইন্ন-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মুসকান আর নেই। ভারত বর্ষে যে মেয়েটা আল্লাহু আকবার বলে আওয়াজ দিয়ে বিশ্ব কাঁপিয়ে দিয়েছিল,সেই মুসকান বোনটাকে কাফেরের দলেরা হত্যা করে ফেলেছে। আল্লাহ তুমি এই বোনকে জান্নাতুল ফেরদাউস নসিব করুন আমিন আমিন ছুম্মা আমিন।"

বুম দেখে একই দাবিতে ছবিগুলি ব্যাপকভাবে ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে। দুটি ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে এখানে


তথ্য যাচাই

বুম দেখে কালো হিজাব পরিহিত মুসকানের ছবিটি সত্যি হলে সাদা পোশাকের অন্য ছবিটি মুসকানের নয়। মুসকান নিহত এব্যাপারে কোনও প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়নি নির্ভরযোগ্য গণমাধ্যমে।

বুমের তরফে মুসকান খানের পরিবারের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ মারফত যোগাযোগ করা হলে জানানো হয় কুশলে আছেন মুসকান।

বুম রিভার্স সার্চ করে দেখে সাদা পোশাকের ছবিটি প্রকাশিত হয়েছিল ২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল প্রকাশিত রেডইফ নিউজের প্রতিবেদনে। ওই প্রতিবেদনের শিরোনাম, "ছবিগুলি: ছাত্রছাত্রীদের নীরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে কাশ্মীরে সংঘর্ষ।"(মূল ইংরেজিতে: PHOTOS: Students clash with security forces in Kashmir")

ওই সংবাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী, লালচকের অদূরে মওলানা আজাদ রোডের উপর উপস্থিত শ্রী আজাদ কলেজের কাছে পুলওয়ামা ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভে সামিল হয় একদল ছাত্রছাত্রী। পরে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে। পাথরছোঁড়ার ঘটনা ঘটলে পুলিশ লাঠি চালায় ও কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোঁড়ে। ঘটনায় আহত হয় বেশ কিছু ছাত্রছাত্রী।

ভাইরাল ছবিটি প্রসঙ্গে রেডইফ নিউজ ক্যাপশন লেখে, "আহত ছাত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে।" সেসময়ই একই ছবি প্রকাশিত হয় মিড-ডে-এর ওয়েবসাইটে।

সম্পাকীয় নোট: মুসকান খানের পরিবারের তরফে প্রত্যুত্তর যোগ করে প্রতিবেদনটি ১০ মে ২০২২ সংস্করণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: যোগরাজ সিংহের ক্রিকেট খেলার ভিডিও ছড়াল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নামে

Updated On: 2022-05-10T10:00:55+05:30
Claim :   ছবির দাবি মুসকান খান আর নেই হত্যা করা হয়েছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.