লকডাউনে রেলযাত্রীদের জলপান করিয়েছে উত্তরপ্রদেশের নিগৃহীত মুসলিম বালক?

বুম দেখে রেলযাত্রীদের জলপান করানো মুসলিম নাবালকদের ছবি অনলাইনে ২০১৬ সাল থেকে রয়েছে, তখন কোনও কোভিড-১৯ লকডাউন হয়নি।

মন্দিরে জল খেতে যাওয়ায় উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে (Ghaziabad) নিগৃহীত হওয়া মুসলিম নাবালকটি (muslim boy) লকডাউনের সময় জল বিতরণ করেছিল—এই দাবিতে একটি সম্পর্কহীন পুরনো ছবি সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে।

গত কয়েকদিন ধরে সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও দেখা যায় এক নাবলকের হাত মোচড় দিয়ে বেপোরোয়া ভাবে মারধর করছে এক ব্যক্তি। লাথি মরা হয় গোপানাঙ্গতেও। মন্দিরে জল খেতে এসেছিল এই কথা বলায় বেধড়কভবে মারা হয় ওই মুসলিম ধর্মাবলম্বী নাবালককে। ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়।

গাজিয়াবাদ পুলিশ টুইট করে জানায়, "তৎপরতার সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বিহারের ভগলপুরের গোপালপুর থানার বাসিন্দা অশ্ময় কুমার যাদবের ছেলে শ্রীরাঙ্গি নন্দন যাদবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একটি কেস নথিভুক্ত করা হয়েছে সবরকম পদ্ধতি মেনে।'' বিষয়টি নিয়ে এনডিটিভির প্রতিবেদন পড়া যাবে এখানে

ভাইরাল হওয়া পোস্টে দেখা যায় কয়েকজন টুপি ও পাজামা-পাঞ্জাবি পরা নাবালক স্টেশন চত্বরে দাঁড়িয়ে ট্রেনের জানালা দিয়ে যাত্রীদের জলপান করাচ্ছ। আর অন্য ছবিটিতে ভাইরাল ভিডিওতে দেখানো উত্তরপ্রদেশে নিগৃহীত মুসলিম নাবালকটি রয়েছে।

"যে* শুধুমাত্র মুসলিম হওয়ার জন্য,, তৃষ্ণা মেটানোর জন্য মন্দিরে জল পান করতে গিয়ে মার খেয়েছে,, সেই * কিন্তু লকডাউনের সময় হাজারো তৃষ্ণার্ত মানুষদের (সমস্ত জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে) তৃষ্ণা মিটিয়েছিল। কারণ সে জানে "সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই!!" কারণ দ্বীন ইসলাম নিশংসতা শেখায়না, শেখায় মানবতা.."

ওই গ্রাফিক পোস্টে লেখা হয়েছে, সেই * লকডাউনের সময় তৃষ্ণার্ত মানুষের তৃষা মিটিয়ে ছিল। সেই * নিজের তৃষা মেটানোর জন্য মন্দিরে গিয়ে মার খেল।'' ওই গ্রাফিক ছবিত এক নাবলকতে লাল তির চিহ্ন দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে।

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

(*নাবালক হওয়ায় নাম উহ্য ও ছবি ধূসর রাখা হয়েছে)

তথ্য যাচাই

বুম ছবিটির রিভার্স সার্চ করে জানতে পারে ছবিটি কোভিড-১৯ অতিমারি প্রতিরোধে লকডাউন হওয়ার অনেক আগে থেকেই অনলাইনে রয়েছে। ভারতে দেশজুড়ে ২১ দিনব্যাপী প্রথম সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল ২০২০ সালের ২৪ মার্চ।

২০১৬ সালের ১৬ মে প্রকাশিত শুভনাপ্রিরিয়ান নামে একটি তামিল ভাষার ব্লগে দেখা যায় ছবিটি। ছবিটি ২০১৮ সালে উইইন্ডিয়ান মুসলিম নামে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়।

বুম স্বাধীনভাবে ছবিটির উৎস যাচাই করতে না পরালেও এব্যাপারে নিশ্চিত হতে পেরেছে যে এটি লকডাউনের সময় গাজিয়াবাদে নিগৃহীত নাবালকের জলপান করানোর ছবি। বুম আরও দেখে ভাইরাল ভিডিওর নাবালকের ছবির সঙ্গে রেলযাত্রীদের জলপান করানো নাবালকদের কারও মুখের মিল নেই।

আরও পড়ুন: বিগ্রেড যাওয়া বিজেপি কর্মীরা মজুরি পায়নি এবিপি আনন্দের গ্রাফিকটি ভুয়ো

Updated On: 2021-03-15T18:57:57+05:30
Claim Review :   উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে নিগৃহীত হওয়া মুসলিম নাবালকটি লকডাউনের সময় জল বিতরণ করেছিল
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story