তথ্য যাচাই: Capitol Hill-এর মার্কিন সংসদ ভবনে ভাঙচুর করছে TMC কর্মী?

বুম দেখে ছবিতে থাকা ব্যক্তি ডোনাল্ড ট্রাম্পের এক কট্টর সমর্থক অ্যাডাম ক্রিস্টিয়ান জনসন।

ওয়াশিংটনে(Washington) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাংসদ (US Congress) ভবন চত্বর—ক্যাপিটল হিলে (Capitol Hill) অনুপ্রবেশ করে তাণ্ডবলীলা চালানো ভীড়ের মধ্যে একজন তৃণমূল সদস্যকেও দেখা যাচ্ছে, এই ভুয়ো দাবি সহ কটাক্ষ করে একটি সম্পাদিত ছবি ব্রেকিং নিউজ হিসেবে ভাইরাল করা হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

বুম দেখে ছবিতে থাকা ব্যক্তির নাম অ্যাডাম ক্রিস্টিয়ান জনসন (Adam Christian Johnson) যে একজন ট্রাম্প সমর্থক (Trump Supporter)। তিনি হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির লেকটার্ন তুলে নিয়ে হট্টোগোল করেন। বুম রাজনৈতিক দল সর্ব ভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের (All India Trinamool Congress) সঙ্গে অ্যাডাম ক্রিস্টিয়ান জনসনের কোনও যোগসূত্র খুঁজে পায়নি।

৬ জানুয়ারি, ২০২১ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংসদের উভয় কক্ষসেনেট এবং হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভের যৌথ অধিবেশনের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ভাবি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে(Joe Biden) ইউ এস কংগ্রেসের নির্বাচনী শংসাপত্র দেওয়ার সাংবিধানিক প্রক্রিয়া চলছিল। কিন্তু তার মধ্যেই মার্কিন সাংসদ ভবন চত্বরে চড়াও হয় কয়েক হাজার উগ্র ট্রাম্প সমর্থক। তারা জোর করে নিরাপত্তা বলয় অগ্রাহ্য করে ক্যাপিটল স্থিত সেনেট এবং হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভের অফিসে ঢুকে পড়ে এবং সেখানে উন্মত্ত তাণ্ডবলীলা চালাতে থাকে। তাদের মধ্যে কেউ কেউ আবার ঢুকে পরে হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির (Nancy Pelosi) অফিস কক্ষে এবং ভাঙচুর চালিয়ে, স্পিকারের লেক্টারন নিয়ে চলে যায়। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ, গুলি বিনিময় হয় নিরাপত্তারক্ষীদের। ক্যাপিটল হিলের এই ঘটনায় এক মহিলা সহ চার জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং বেশ কয়েক জনের আহত হওয়ার খবর সামনে এসেছে। পুলিশে আটক করেছে প্রায় ৫০ জনকে।
বিস্তারিত পড়ুন
২০০৬ সালে সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণ জট চলাকালীন তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কারখানা অঞ্চলে যেতে চাইলে নিরাপত্তারক্ষীদের দ্বারা বাধার সম্মুখীন হন। নিগৃহীত হওয়ার অভিযোগ তুলে বিধানসভা ভবনে বিক্ষোভ দেখাতে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তেজিত কয়েকজন তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক বিধানসভার আসবাব ভাঙচুর করেন। বিস্তারিত পড়ুন
এর প্রেক্ষিতে ছবিটি শেয়ার করা হলেও। নেটিজেনরা এই ছবিটিকে সত্য ঘটনা বলে ভুল করছেন। গ্রাফিক ছবিতে এক ব্যক্তিকে এক হাতে লেকটার্ন তুলে নিয়ে উল্লাস করতে দেখা যায়। লেকটার্ন হল কাঠ বা ধাতব স্ট্যান্ড যার উপরে বই বা কাগজ রেখে বক্তব্য পেশ করা হয় দর্শকদের সামনে। ছবিটিতে সংবাদ চ্যানেলের গ্রাফিক্সে ব্রেকিং নিউজ হিসেবে লেখা হয়েছে, "আমেরিকায় টিএমসি সদস্য" এবং "একজন টিএমসি সদস্যের আন্তর্জাতিক পদচারণা।"
পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "যা ভেবেছিলাম তাই..."
পোস্ট দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে
তথ্য যাচাই
বুম যাচাই করে দেখে মার্কিন সাংসদ ভবনে তাণ্ডব চালানো এই ব্যক্তির সাথে তৃণমূল কংগ্রেস দলের কোনও সংযোগ নেই ভাইরাল হওয়া গ্রাফিকটি ভুয়ো। ওই ব্যক্তিটির নাম অ্যাডাম জনসন, যে একজন কট্টর ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থক, তাঁকে এই ছবিতে মার্কিন হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির অফিসের লেকটার্ন তুলে নিয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে।
বুম ছবিটিকে রিভার্স সার্চ করে গেট্টি ইমেজ ছবিটির সন্ধান পায়। ছবিটি তোলেন চিত্রসংবাদিক উইন ম্যাকনেমি। গেট্টি ইমেজ-এ ছবির বর্ণনায় লেখা রয়েছে, "ওয়াশিংটন ডিসি, জানুয়ারী ৬: বিক্ষোভকারীরা ২০২১ সালের ৬ জানুয়ারী অয়াশিংটন ডিসিতে ইউ এস ক্যাপিটল বিল্টিং-এ ঢুকে পরে। কংগ্রেসে যৌথ অধিবেশনে আজ জো বাইডেনকে ৩০৬-২৩২ ইলেক্টরাল কলেজে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারানোর জন্য শংসায়িত করার প্রক্রিয়া চলছিল। একদল রিপাব্লিকান সেনেটররা বলেছিল তারা কতিপয় রাজ্যের ইলেক্টোরাল কলেজের ফলাফল বাতিল করবে যদি না কংগ্রেস নতুন কমিশন বসিয়ে নির্বাচনের ফলাফলের হিসেব না কষে। (ছবি উইন ম্যাকনেমি, গেট্টি ইমেজ)"
৭ জানুয়ারি প্রকশিত ব্রাডেন্টন হেরল্ড-এর প্রতিবেদনে ছবির প্যাররিসের (Parrish) ওই ব্যক্তিকে অ্যাডাম ক্রিস্টিয়ান জনসন (Adam Christian Johnson) হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ৩৬ বছর বয়সী অ্যাডাম ক্রিস্টিয়ান জনসন একজন ট্রাম্প সমর্থক।
Updated On: 2021-01-08T23:28:08+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি এক তৃণমূল কংগ্রেস সদস্য মার্কিন সেনেট বিল্ডিং-এ ভাঙচুর করছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story