অমূলের নতুন বিজ্ঞাপনের নিশানায় মোদী সরকারের জিএসটি নীতি? না, একদমই ভুয়ো

বুম যাচাই করে দেখে অমূলের আসল বিজ্ঞাপনটি ছিল ২০১৪ সালে সাধারণ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জয়লাভ সম্পর্কিত।

নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের উপর নরেন্দ্র মোদী সরকারের গুডস এবং সার্ভিসেস ট্যাক্স (জিএসটি) বৃদ্ধিকে (GST Hike) নিশানা করে কিংবদন্তি অমূল (Amul) কন্যার ছবি সহ অমূল বিজ্ঞাপনের (Advertisemnet) একটি ছবি সোশাল মিডিয়া ছড়াচ্ছে। ছবিটি ভুয়ো (Fake) এবং সম্পাদনা করে তৈরি করা হয়েছে।

বুম অমূল বিজ্ঞাপনের সঙ্গে যুক্ত একজন ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর রাহুল দা কুনহার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান যে, ভাইরাল হওয়া বিজ্ঞাপনটি ২০১৪ সালের আমূল কার্টুন থেকে নেওয়া হয়েছে। রাহুল দা কুনহা ১৯৯৪ সাল থেকে অমূল বিজ্ঞাপনের এক জন ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর।

জি এস টি কাউন্সিলের ৪৭তম মিটিং-এ ২০২২ সালের ১৮ জুলাই থেকে জি এস টি'র হার বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। প্যাকেটজাত দই, লস্যি, মাখন এবং দুধের মতো বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের উপর এখন থেকে ৫% জিএসটি ধরা হবে। আগে এই জিনিসগুলির উপর জিএসটি ছাড় ছিল।

অমূল কন্যা এই দুগ্ধপণ্য সংস্থাটির অফিসিয়াল ম্যাসকট, যার মাধ্যমে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ও অন্যান্য ঘটনার উপর কার্টুনের মাধ্যমে মজাদার মন্তব্য করা হয়।

ভাইরাল হওয়া ছবিতে অমূলের বিখ্যাত বিজ্ঞাপনের ধরণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে অমূল কন্যার সঙ্গে সেলফি তুলতে দেখা যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপনটিতে লেখা হয়েছে, "আব কি বার জিএসটি কা মার" ( বাংলায়: পরের বার জিএসটির মার)

তেলঙ্গনা রাষ্ট্র সমিতির (টিআরএস) সোশাল মিডিয়া আহ্বায়ক কৃষ্ণনভাইরাল হওয়া বিজ্ঞাপনটি টুইট করেছেন এবং সঙ্গে ক্যাপশন দিয়েছেন, "দুধের উপর ৫% বাড়ল গলত সরকার ট্যাক্স।"

টুইটটি দেখুন এখানে

এই একই বিজ্ঞাপন টুইটারে ভাইরাল হয়েছে এবং ভুপালপাল্লে থেকে নির্বাচিত তেলঙ্গনা রাষ্ট্র সমিতির বিধায়ক গন্দ্র ভেঙ্কটরমন রেড্ডিও এই ছবিটি টুইট করেছেন।

টুইটটি দেখুন এখানে

আরও পড়ুন: ২১ জুলাই: তৃণমূল কংগ্রেস যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্যের নামে ভুয়ো টুইট ছড়াল

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া অমূল বিজ্ঞাপনটি ২০১৪ সালে প্রকাশিত একটি কার্টুন থেকে সম্পাদনা করে তৈরি করা হয়েছে। ২০১৪ সালের মে মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপির সাধারণ নির্বাচনে জয়লাভের পর ওই বিজ্ঞাপণটি প্রকাশ করা হয়েছিল।

আমরা কিছু শব্দের উপর কিওয়ার্ড সার্চ করি, এবং দেখতে পাই যে, ২০১৪ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করার পর বিজেপিকে অভিনন্দন জানিয়ে তৈরি করা অমূলের ওই বিজ্ঞাপনটির কথা বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছিল।

অমূল ২০১৪ সালে আসল কার্টুনটি প্রকাশ করেছিল, এই সূত্র ধরে আমরা টুইটারে অ্যাডভান্স সার্চ করি। তাতে আমরা অমূলের একটি টুইট দেখতে পাই, তাতে লেখা ছিল, " Ab Ki Baar, Bhajap Sweekar".

আসল কার্টুনটি জিএসটি নয়, বরং বিজেপির ২০১৪ সালের নির্বাচনে জয়লাভের প্রসঙ্গে ছিল। দুটি বিজ্ঞাপণের মধ্যে তুলনা করলে দেখা যাবে যে "আব কি বার জিএসটি কা মার" কথাটি মিথ্যে দাবি করার উদ্দেশ্যে সম্পাদনা করা হয়েছে।

বুম অমূল বিজ্ঞাপনের অন্যতম ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর রাহুল দা কুনহার সঙ্গেও যোগাযোগ করে। তিনি জানান যে, ভাইরাল হওয়া বিজ্ঞাপনটি ভুয়ো। রাহুল দা কুনহা ১৯৯৪ সাল থেকে অমূল অ্যাডভার্টাইজমেন্টের অন্যতম ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর।

দা কুনহা বুমকে বলেন, "এটা পুরোপুরি ফোটোশপ করে তৈরি করা হয়েছে।" দা কুনহা আমাদের ২০১৪ সালের আসল বিজ্ঞাপণটি, এবং জিএসটি বিষয়ে অমূলের অন্য দুটি বিজ্ঞাপনও পাঠান। ওই বিজ্ঞাপনগুলির কোনওটিতেই জিএসটির সমালোচনা করা হয়নি।


বুম এর আগেও অমূল বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে ছড়ানো ভুয়ো তথ্য এবং দাবির সত্যতা যাচাই করেছে, এবং সেগুলিকে ভুয়ো প্রমাণ করেছে।

আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রতিবাদ সভায় ভাষণের সঙ্গে হিমালয়ার কোনও যোগ নেই

Updated On: 2022-07-24T18:40:53+05:30
Claim :   ছবির দাবি অমূলের নতুন বিজ্ঞাপনে নরেন্দ্র মোদী সরকারকে নিশানা করা হয়েছে
Claimed By :  Krishank TRS
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.