লন্ডনে ২০১৪ সালের এক পথনাটিকার ছবি আফগানিস্তানের বলে চালানো হল

কুর্দ সমাজকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে বুম জানতে পারে, ছবিটি লন্ডনে অনুষ্ঠিত একটি পথনাটিকার।

২০১৪ সালে লন্ডনে অনুষ্ঠিত কুর্দ রাজনৈতিক কর্মীদের আয়োজিত এক পথনাটিকায় ইরাক (Iraq) ও সিরিয়ায় (Syria) মহিলাদের ওপর ইসলামিক স্টেট-এর অত্যাচারের কথা তুলে ধরা হয়। কিন্তু ছবি আবার নতুন করে শেয়ার করা হচ্ছে। এবং মিথ্যে দাবিতে বলা হচ্ছে যে, আফগানিস্তানে (Afghanistan) তালিবানরা মহিলাদের নিলাম করছে, এমনটাই দেখা যাচ্ছে ছবিটিতে।

ওই অস্বস্তিকর ছবিতে হাতে শেকল বাঁধা দুই মহিলাকে দেখা যাচ্ছে। তাঁদের পাশে রয়েছেন তাঁদের আইএসআইএস বন্দিকারী।

বিগত কয়েক দিনে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে, বিশেষ করে যখন কট্টরপন্থী তালিবান শাসনে মহিলাদের নিরাপত্তা, ভবিষ্যৎ ও মৌলিক অধিকার হারানোর ব্যাপারে বিশ্ব চিন্তিত।

বুম দেখে ছবিটি হল, লন্ডনে আয়োজিত নকল "ইসলামিক স্টেটের দাস বাজার"র (Islamic State sex slave market) একটি দৃশ্য। ইসলামিক স্টেট অধিকৃত এলাকায় মহিলাদের দুর্দশার কথা প্রচার করাই ছিল ওই নাটিকার উদ্দেশ্য।

দক্ষিণপন্থী কলামনিস্ট শেফালি বৈদ্য ছবিটি টুইট করেন।

হিন্দিতে বিভিন্ন ক্যাপশন সহ ছবিটি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে।

তথ্য যাচাই

লন্ডনে কুর্দ সমাজকর্মী পথনাটিকাটির আয়োজন করেন। ইরাক ও সিরিয়ায়, সন্ত্রাসবাদী সংগঠন আইএসআইএস বা ইসলামিক স্টেটের হাতে বন্দি মহিলাদের অবস্থার কথা জানানোই সেটির উদ্দেশ্য ছিল। উত্তর ইরাকের কুর্দিস্তান হল একটি আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল।

২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে 'নিউজউইক' ওই বিতর্কিত প্রতিবাদী অনুষ্ঠানটি সম্পর্কে লেখে। লন্ডনে সংসদ ভবন, লিস্টার স্কয়ার ও ডাউনিং স্ট্রিটে সেটি আয়োজিত হয়।

আরও পড়ুন: লন্ডনের পথনাটিকার ভিডিওকে তালিবান অধিকৃত আফগানিস্তানের দৃশ্য বলা হল

বিবিসির খবর অনুযায়ী, 'কমপ্যাশন ফর কুর্দিস্তান' (Compassion 4 Kurdistan) ওই নাটিকাটির উদ্যোক্তা। কুর্দ প্রচার গোষ্ঠীর সদস্য আরি মুরাদের বক্তব্য উদ্ধৃত করা হয় লেখাটিতে।

বুম মুরাদের ফেসবুক পেজ খুঁজে বার করে। দেখা যায়, ওই একই পথনাটিকার ভিডিও ২০১৬ সালের মার্চ মাসে সেখানে আপলোড করা হয়। ভিডিওটির শুরুতেই চিত্রগ্রাহক ও অভিনেতাদের নাম ক্রেডিটকার্ডে দেখানো হয়। তা থেকে স্পষ্ট হয় যে, দৃশ্যগুলি আসল নয়। বুম মুরাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনিও এ ব্যাপারে আমাদের নিশ্চিত করেন।

ভিডিওটির প্রথম কয়েক সেকেন্ডে, একই অভিনেতাদের দেখা যায়।

তালিবান আফগানিস্তান দখল করার পর থেকে, বুম ভাইরাল হওয়া বিভ্রান্তিকর ও মিথ্যে খবর খন্ডন করে চলেছে। নিচের থ্রেডে আমাদের তথ্য যাচাইয়ের লেখাগুলি দেখা যাবে।

আরও পড়ুন: সিরিয়ায় এক মহিলাকে প্রকাশ্যে খুন করার ভিডিও আফগানিস্তানের বলে ছড়াচ্ছে

Updated On: 2021-08-20T20:02:48+05:30
Claim :   আফগানিস্তান তালিবানদের দখলে আসার পর সেখানের মেয়েদের পরিস্থিতি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.