Farm Bill এর পক্ষে Kejriwal, কাটছাঁট ক্লিপ ছড়ালেন Sambit Patra

বুম দেখে ভাইরাল ক্লিপটি সম্পাদিত, আসল ভিডিওতে কেজরিওয়াল কৃষি বিলের সমালোচনা করেছেন।

ভারতীয় জনতা পার্টির মুখপাত্র (BJP Spokesperson) সম্বিত পাত্র (Sambit Patra) একটি কাটছাঁট করা ভিডিও (Cropped Video) শেয়ার করে মিথ্যে দাবি করেছেন যে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) সম্প্রতি পাস-হওয়া কৃষি বিলকে (Farm Bills) সমর্থন করে বলেছেন যে, সেটি হল বিগত ৭০ বছরের সবচেয়ে বৈপ্লবিক ঘটনা।

বুম দেখে যে, ১৮ সেকেন্ডের ক্লিপটি কেজরিওয়ালের একটি ইন্টারভিউ থেকে নেওয়া। এবং সেটিকে এমনভা্বে সম্পাদনা করা হয়েছে যাতে মিথ্যে দাবি করা যায় যে, উনি কৃষি আইনকে সমর্থন করেছেন। কিন্তু আসল সাক্ষাৎকারটিতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কৃষি বিলের সমালোচনাই করেছেন।
পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশ থেকে আসা কৃষকরা ২৬ নভেম্বর ২০২০ থেকে দিল্লির নানা সীমান্তে কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই ভাইরাল ক্লিপটি শেয়ার করা হচ্ছে। গত বছর পাস-হওয়া তিনটি কৃষি বিল বাতিল করতে হবে বলে দাবি করছেন কৃষকরা।
ভাইরাল ক্লিপটি একটি সাক্ষাৎকার থেকে নেওয়া। তাতে কেজরিওয়ালকে হিন্দিতে কথা বলতে শোনা যাচ্ছে। উনি বলছেন, "এই বিলগুলিতে আপনার জমি চলে যাবে না। আপনার এমএসপি (MSP) চলে যাবে না। আপনার মাণ্ডি চলে যাবে না। এখন কৃষকরা দেশের যে কোনও জায়গায় পণ্য বিক্রি করতে পারেন। এখন কৃষকরা ভাল দাম পাবেন। মাণ্ডির বাইরে কৃষকরা যে কোনও জায়গায় বিক্রি করতে পারেন। দিলীপ জি, বিগত ৭০ বছরে কৃষি ক্ষেত্রে এমন বৈপ্লবিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।"
ভারতীয় জনতা পার্টির মুখপাত্র ক্লিপটি শেয়ার করেন এবং ক্যাপশনে লেখেন, "তিনটে কৃষি আইনের সুবিধেগুলি হিসেব করে দেখছেন...স্যার।"
দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন; আর্কাইভের জন্য এখানে
দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন; আর্কাইভের জন্য এখানে
ফেসবুকে ভাইরাল
একই ক্যাপশান দিয়ে সার্চ করলে দেখা যায়, মিথ্যে দাবি সমেত ক্লিপটি ফেসবুকেও শেয়ার করা হচ্ছে।

তথ্য যাচাই

বুম দেখে আসল সাক্ষাৎকারটিতে, অরবিন্দ কেজরিওয়াল কেন্দ্রীয় সরকারের পাস করা তিনটি কৃষি বিলেরই সমালোচনাই করেছেন। এবং সেই সাক্ষাৎকারের বিভিন্ন অংশ এমন করে কেটে জোড়া হয়েছে যে, মনে হয় কেজরিওয়াল বিলগুলির পক্ষে বলছেন।
১৫ জানুয়ারি, ২০২১-এ 'জি পাঞ্জাব হরিয়ানা হিমাচল' চ্যানেলে সাক্ষাৎকারটি দেখানো হয়। সেখানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপি নেতারা বিলগুলির পক্ষে যে যুক্তিগুলি দেখাচ্ছেন, সেগুলির পুনরাবৃত্তি করেন। অংশটা ক্লিপটিতে রাখা হয়েছে। কিন্তু এর পর, কেজরিওয়াল বিলগুলির পক্ষে খাড়া করা যুক্তিগুলিকে খণ্ডন করেন। কিন্তু সেই অংশটা ক্লিপ থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে।
ওই সাক্ষাৎকারের ছ'মিনিটের মাথায়, কেজরিওয়াল বলেন, "কেন্দ্রীয় সরকার ও বিজেপি তাদের সব বড় বড় নেতাদের ময়দানে নামায় এটাই বোঝাতে যে, বিলগুলি কৃষকদের পক্ষে। তাঁরা তাঁদের ভাষণে কি বলছেন, আমি তাঁদের সব ভাষণই শুনেছি।" তার এই লাইনটির পর, ভাইরাল ক্লিপে যা আছে, তার একটা অংশ শোনা যায়। তার পর উনি বলেন, "এই বিলের ফলে, আপনার জমি চলে যাবে না। কিন্তু এতে সুবিধাটি কি। জমি তো আছেই। আপনার এমএসপি চলে যাবে না। এতে সুবিধেটি কি। এমএসপি তো আছেই। আপনার মাণ্ডি চলে যাবে না। এতে কি নতুন সুবিধে দেওয়া হল। মাণ্ডি তো আছেই। সুবিধাটি কোথায়, তাঁদের নেতারা তো সে কথা বোঝাতে পারছেন না।"
ভাইরাল ক্লিপটিতে কেজরিওয়ালকে যে কথা বলতে শোনা যাচ্ছে, আসল ভিডিওটিতেও বিলগুলির পক্ষে বিজেপির সেই যুক্তিগুলির পুনরাবৃত্তি করতে শোনা যাচ্ছে তাঁকে। তারপর যে অংশে উনি সেই যুক্তিগুলির সমালোচনা করছেন, সেই অংশটি বাদ দেওয়া হয়েছে।
কেজরিওয়াল আরও বলেন, "তাঁদের অনেক বার জিজ্ঞেস করলে তাঁরা বলছেন, কৃষকরা এখন তাঁদের পণ্য দেশের যে কোনও জায়গায় বিক্রি করতে পারেন। এবার কৃষকরা ভাল দাম পাবেন। তাঁরা মাণ্ডির বাইরে যে কোনও জায়গায় বিক্রি করতে পারেন। সেখানে তাঁরা ভাল দাম পাবেন। আমি খুব বিনম্রভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে একটা জিনিস জানতে চাই। এখন পাঞ্জাব ও হরিয়ানার মাণ্ডিতে ন্যুনতম সহায়ক মূল্য (এমএসপি) হল ১,৮০০ টাকা। বিহারে কোনও মান্ডি নেই। সেখানে কৃষক বিক্রি করেন ৮০০ টাকায়। যে কৃষক ৮০০ টাকায় বিক্রি করছেন, তাঁকে বলে দিন মাণ্ডির বাইরে দেশের কোথায় বিক্রি করলে ১৮০০ টাকার বেশি দাম পাবেন?"
ভাইরাল ক্লিপটির শেষ ভাগে কেজরিওয়ালকে বলতে শোনা যায় যে, কৃষি ক্ষেত্রে এটা হবে এক বৈপ্লবিক পদক্ষেপ। আসলে তিনি যাকে বৈপ্লবিক পদক্ষেপ বলছিলেন তা হল, স্বামীনাথন কমিশনের পরামর্শের ভিত্তিতে এমএসপি আইন আনার যে দাবি কৃষকরা তুলছেন, সেটি মেনে নেওয়া।
৯.৪৮ মিনিটের মাথায়, কেজরিওয়ালকে কৃষকদের আন্দোলন সমর্থন করতে শোনা যায়। উনি বলেন, "এই আন্দোলন সম্পর্কে আমার অনেক আশা আছে। প্রথমত, এই তিনটি কৃষি বিল ফেরত নেওয়া উচিৎ। দ্বিতীয়ত, এমএসপি নিশ্চিত করার জন্য কৃষকরা যে আইন আনার কথা বলছেন, সেটি আনা উচিৎ। স্বামীনাথন কমিশনের পরামর্শ অনুযায়ী উৎপাদনের খরচের ৫০% যোগ করে এমএসপি স্থির করা উচিত, যাতে কৃষকরা ৫০% লাভ দেখতে পায়। দিলীপজি, এটা যদি হয়, তাহলে ৭০ বছরের মধ্যে কৃষি ক্ষেত্রে এটাই হবে সবচেয়ে বৈপ্লবিক পদক্ষেপ।" শেষ উক্তিটির আগের অংশটা কেটে বাদ দেওয়া হয়েছে, যাতে মনে হয় যে, কেজরিওয়াল কৃষি বিলগুলির প্রশংসা করছেন।
সাক্ষাৎকারের দু'টি অংশ ৬.০০ মিনিট আর ৯.৪৮ মিনিট সময় চিহ্ন থেকে নীচে দেখা যাবে।

বর্তমান কৃষক আন্দোলন সম্পর্কে নানান মিথ্যে খবর বুম আগেও খণ্ডন করেছে। পুরনো ছবি ও ভিডিওকে সাম্প্রতিক বলে কৃষক আন্দোলনকে নিশানা করা হয় বেশ কিছু ভাইরাল দাবিতে।
Updated On: 2021-02-02T12:07:45+05:30
Claim Review :   ভারতীয় জনতা পার্টির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র দাবি করেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল কৃষি বিল সমর্থন করেছেন
Claimed By :  Sambit Patra
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story