Farmers Protest এর জন্য Boris Johnson এর ভারত সফর বাতিল?

ব্রিটেনে নতুন COVID-19 পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় ভারতে আসতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

একটি ভাইরাল গ্র্যাফিকে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে যে, ভারতে কৃষক আন্দোলন চলছে বলে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (UK prime minister Boris Johnson) তাঁর ভারত সফর বাতিল করেছেন।

২৬ জানুয়ারি, ২০২১-এ, ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস (Republic Day) উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি (Chief Guest) হিসেবে যোগ দেওয়ার কথা ছিল বরিস জনসনের। কিন্তু ব্রিটেনে Novel Coronavius একটি নতুন স্ট্রেন দেখা দেওয়ায়, সে দেশে নতুন করে সম্পূর্ণ লকডাউন (Lockdown) ঘোষণা করা হয়েছে। সেই কারণেই জনসন তাঁর সফর বাতিল করতে বাধ্য হন।
দিল্লিতে (Delhi) ঢোকার মুখে নানা জায়গায় কৃষকরা অবস্থান করে আছেন। সেই আন্দোলন চলা কালেই এই মিথ্যে রটনা করা হল। কেন্দ্রের আনা নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে মূলত পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশের কৃষকরা ২৬ নভেম্বর ২০২০ থেকে আন্দোলন চালাচ্ছেন। প্রবল শীত ও পুলিশের লাঠিচার্জ উপেক্ষা করে তাঁরা বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন।
ভাইরাল গ্র্যাফিকটিতে, বরিস জনসনের ছবি সহ হিন্দিতে লেখা একটি বয়ান আছে। তাতে বলা হয়েছে, "আন্তর্জাতিক স্তরে কৃষকদের বড় জয়: প্রজাতন্ত্র দিবসে ভারত সফর বাতিল করেছেন ব্রিটেনের প্রথানমন্ত্রী।"
পোস্ট দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে
(হিন্দিতে লেখা বয়ান: किसान आंदोलन की अंतराष्ट्रीय मंच पर बड़ी जीत ब्रिटेन के पीएम ने गणतंत्र दिवस पर होने वाला भारतीय दौरा रद्द किया)

ফেসবুকে ভাইরাল
একই ক্যাপশন দিয়ে ফেসবুকে সার্চ করলে আমরা দেখি যে, একই মিথ্যে দাবি সমেত গ্র্যাফিকটি সেখানেও শেয়ার করা হচ্ছে।

তাছাড়া, পিটিআই-এর (PTI) একটি খবর থেকে জানা গেছে যে, আন্দোলনরত কৃষক ইউনিয়নগুলির (Farmer Unions) যৌথ সংগঠন '
সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা
' দাবি করেছে যে, বরিস জনসনের সফর বাতিল হওয়াটা আসলে কৃষকদের রাজনৈতিক জয় আর সরকারের পরাজয়।
তথ্য যাচাই
বুম দেখে, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর অফিস (PMO) ৫ জানুয়ারি ২০২১-এ একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। তাতে বলা হয়, জনসন মোদীকে (Modi) টেলিফোন করে জানান যে, COVID-19 এর এক নতুন স্ট্রেন দেখা দিয়েছে ব্রিটেনে এবং সংক্রমণের হার দ্রুত বাড়ছে।
ওই বিবৃতিতে বলা হয়, "ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে তাঁকে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী জনসন ভারতকে ধন্যবাদ জানান। কিন্তু তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন যে, ব্রিটেনে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত এক নতুন পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায়, তিনি আসতে পারছেন না। উনি অদূর ভবিষ্যতে ভারত সফরে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেন।"

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

লন্ডনে ভারতের হাই কমিশন দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে কথোপকথন সম্পর্কে পিএমও-র প্রেস বিজ্ঞপ্তির একটি লিঙ্ক টুইট করে।
তাছাড়া, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল করার পেছনে যে কারণ রয়েছে বলে ভারত সরকার জানিয়েছে, সে সম্পর্কে কোনও বিশ্বাসযোগ্য সংবাদ মাধ্যম প্রশ্ন তুলেছে, এমনটা দেখতে পাইনি আমরা।
কৃষক আন্দোলন সম্পর্কে মিথ্যে খবর বুম আগেও খণ্ডন করেছে।
সেগুলি পড়তে, বুমে কৃষক বিক্ষোভ সংক্রান্ত মিথ্যে খবরের থ্রেডটি দেখুন।
Claim Review :   পোস্ট দাবি করে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন কৃষক বিক্ষোভের জন্য তাঁর আসন্ন ভারত সফর বাতিল করেছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story