ভোট পরবর্তী হিংসা: জখম বাংলাদেশি মহিলার পুরনো ছবি ছড়াল বাংলার বলে

বুম দেখে ভাইরাল আহত মহিলার ছবিটি বাংলাদেশে ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে দুষ্কৃতী হামলার।

২০২০ সালের একটি ছবি, যাতে এক গুরুতর আহত মহিলাকে দেখা যাচ্ছে, সম্প্রতি ভাইরাল হল। এই ছবিটি আসলে বাংলাদেশের (Bangladesh)। জমি দখল সংক্রান্ত বিবাদে কিছু গুন্ডা ওই মহিলার পরিবারের উপর চড়াও হলে তিনি আহত হন। এই ছবিটি পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসার (West Bengal Post Poll Violence) ছবি বলে মিথ্যে দাবি করে শেয়ার করা হচ্ছে।

যখন পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন-পরবর্তী হিংসা সম্পর্কে বিভিন্ন প্রতিবেদন প্রকাশিত হচ্ছে, তখনই এই ছবিটি শেয়ার করা হল। বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) এবং কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া (মার্ক্সিস্ট) তাদের দলের কর্মীদের উপর তৃণমূল কংগ্রেস আক্রমণ করছে বলে অভিযোগ করেছে। ২০২১ সালের ২ মে মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। তারা ২১২টি বিধানসভা আসনে জয়ী হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ছবিতে এক জন আহত মহিলাকে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে। ছবিটি যে ক্যাপশনের সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে, তার অনুবাদ, "ইনি কি মহিলা নন, বাংলার মেয়ে নন, শুধু মমতাই একা বাঙ্গালি ও মহিলা। যাঁরা নিজেরা মহিলা হয়েও এখনও মমতাকে নির্লজ্জ ভাবে সমর্থন করছেন, তাঁদের ধিক্কার জানাই।"


পোস্টটি দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে

( হিন্দিতে লেখা মূল টেক্সট- आबरू लूट गयीं बंगाल की क्या ये महिला नहीं, क्या बंगाल की बेटी नहीं, क्या बंगाली और महिला केवल ममता ही है । धिक्कार उन को जो महिला है और ममता का अब भी बेशर्मी से समर्थन कर रही है)

বিজেপির মুখপাত্র অশ্বিনী উপাধ্যায় এই একই ছবি মিথ্যের দাবির সঙ্গে শেয়ার করেছেন।


পোস্টটি দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে

ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে

একই ক্যাপশন দিয়ে ফেসবুকে সার্চ করে আমরা দেখতে পাই যে, এই ভাইরাল ছবিটি সেখানেও মিথ্যে দাবির সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে।


আরও পড়ুন : অমিত শাহের সঙ্গে মহিলার ছবি মিথ্যে দাবিতে জড়াল ভোট পরবর্তী হিংসায়

তথ্য যাচাই

বুম দেখেছে যে, ছবিটি বাংলাদেশের চট্টগ্রামে ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে ঘটা একটি ঘটনার। ছবিটি মোটেই পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন-পরবর্তী হিংসার ছবি নয়।

রিভার্স ইমেজ সার্চ করে আমরা দেখতে পাই যে, আহত মহিলার ভাইরাল হওয়া ছবিটি ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে শেয়ার করা হয়েছিল। ছবিটি যিনি শেয়ার করেন, তাঁর বক্তব্য অনুযায়ী, ২০২০ সালের ৩ নভেম্বর মহম্মদ রুবেল নামে এক জমি ডাকাত হাটহাজারীর আমান বাজার এলাকার এক হিন্দু পরিবারের উপর চড়াও হয়।

এই সূত্র ধরে আমরা প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ডস দিয়ে সার্চ করি এবং দেখতে পাই যে, বাংলাদেশের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে এই ঘটনার উপর প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই সব প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে ভাইরাল হওয়া ছবিতে যে আহত মহিলাকে দেখা যাচ্ছে, তাঁর এবং তাঁর পরিবারের উপর জমি দখলকারীদের একটি দল আক্রমণ করে। পরিবারের অভিযোগ, যারা আক্রমণ করেছিল, তারা হল রুবেল, শাকিব, ওসমান, মোরশেদ সহ আরও কয়েক জন। সেই দুষ্কৃতীরা এই মহিলার বাড়ির একটা অংশ ভেঙ্গে দেয় বলেও অভিযোগ করা হয়।

চট্টগ্রাম প্রতিদিনে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, হাটহাজারী অঞ্চলের এক পরিবারের তিন সদস্য রতন কুমার নাথ, তাঁর পুত্রবধূ পুতুল নাথ এবং তাঁর ভাইঝি মুক্তা রানী নাথ এই ঘটনায় আহত হন।

ওই ঘটনার উপর প্রকাশিত প্রতিবেদন

এই প্রতিবেদন দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

বাংলাদেশের সংবাদ সংস্থা এইবেলাতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, যে মহিলার উপর জমি মাফিয়ারা আক্রমণ করে, তাঁর নাম অনামিকা দাস।

আরও পড়ুন : ৫ কেন্দ্রে পুনর্গণনায় জয়ী বিজেপি দাবিতে ছড়াল ভুয়ো সংবাদের গ্রাফিক

Updated On: 2021-05-11T17:28:17+05:30
Claim Review :   ছবিটি দেখায় পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসার ঘটনায় জখম মহিলা
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story