দ্রৌপদী মুর্মু ও রামনাথ কোবিন্দের একসঙ্গে পূজা অর্চনার ছবি হালের নয়

বুম যাচাই করে দেখে ২০২০ সালে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের ঝাড়খণ্ড সফরের সময় তৎকালীন রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের একটি ছবিতে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু (Droupadi Murmu) এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে (Ramnath Kovind) ঝাড়খণ্ডের দেওঘরে বাবা বৈদ্যনাথ মন্দিরে পূজা দিতে দেখা যাচ্ছে। ছবিটি সাম্প্রতিক বলে বিভ্রান্তিকর দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে মিথ্যা দাবি করা হয়েছে যে, ২০২২ সালের ২৫ জুলাই মুর্মু রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নেওয়ার, এবং আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের আগে তাঁরা দু'জন একসঙ্গে একটি বৈদিক প্রথা পালন করেন।

২১ জুলাই ২০২২ তারিখে অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিংহকে বিপুল ভোটে পরাজিত করেএনডিএ প্রার্থী মুর্মু ভারতের প্রথম জনজাতিভুক্ত মহিলা রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছেন। ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন রাজ্যপাল মুর্মু তৃতীয় পর্যায়ের ভোটগণনার শেষে মোট বৈধ ভোটের ৫০ শতাংশ পেয়েছিলেন।

হিন্দি থেকে ফেসবুক পোস্টটির বাংলা অনুবাদ হল, "উত্তরাধিকার প্রদান করা বা ক্ষমতা হস্তান্তর করা আপনাতেইএক ধরনের যজ্ঞ। দেবগণ ও মহাদেবের উপস্থিতিতে যজ্ঞ সম্পন্ন হয়। হস্তান্তরের এই মুহূর্তটি, এই সময়ের আবেগ, অনুভুতি এবং পারিপার্শ্বিক দিয়েই ইতিহাস রচিত হয়। রাষ্ট্রপতি পদের হস্তান্তর দেখুন। রাজনৈতিক অনুষ্ঠান চলতেই থাকবে, কিন্তু বৈদিক প্রথা এই প্রথমবার পালিত হচ্ছে... এবার দেশের শুভ এবং লাভ দুইই প্রাপ্তি হবে।"

হিন্দিতে লেখা # विरासत सौंपना या सत्ता हस्तांतरण करना , अपने आप में एक यज्ञ होता है । यज्ञ देवों और महादेव के साक्षित्व में होता है । हस्तांतरण के ये क्षण , इन क्षणों के भाव, अंतर्भाव और वातावरण ही इतिहास लिखते हैं । राष्ट्रपति पद का हस्तांतरण देखिए । राजनैतिक औपचारिकताएं होती रहेंगी , वैदिक प्रतिबद्धता प्रथमतः हो रही है .. अब शुभ और लाभ दोनों ही मिलेंगे देश को.)


পোস্টটি দেখুন এখানে

দক্ষিণপন্থী সোশাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েটলি ছবিটিকে নতুন করে পোস্ট করেছে। তবে তারা সঙ্গে কোনও মিথ্যা দাবি করেনি। বুম এর আগেও ক্রেটলিতে প্রকাশিত মিথ্যে তথ্যের সত্যতা যাচাই করেছে।


পোস্টটি দেখুন এখানে

ছবিটি এই মিথ্যে দাবির সঙ্গে ফেসবুকে ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হয়েছে।


তথ্য যাচাই

বুম অনুসন্ধান করে দেখল যে, ছবিটি ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের। সেই সময় রাষ্ট্রপতির সরকারি সফরের সময় তৎকালীন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং ঝাড়খণ্ডের তৎকালীন রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মু দেওঘরের বাবা বৈদ্যনাথ মন্দিরে এক সঙ্গে পূজা দেন।

আমরা গুগুল ইমেজেস ব্যবহার করে ভাইরাল হওয়া ছবিটির উপর রিভার্স ইমেজ সার্চ করি, এবং ২০২০ সালে প্রকাশিত একাধিক সংবাদ প্রতিবেদনে এই ছবিটি দেখতে পাই। ওই সময় কোবিন্দ ঝাড়খণ্ডের তৎকালীন রাজ্যপাল মুর্মুর সঙ্গে বাবা বৈদ্যনাথ মন্দিরে যান।


২০২০ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারিপ্রভাত খবর-এ প্রকাশিত একটি হিন্দি প্রতিবেদনেও এই একই ভাইরাল ছবি ব্যবহার করা হয়। ওই প্রতিবেনের কিছু অংশের বাংলা অনুবাদ: "রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ দেওঘরের বাবা বৈদ্যনাথ মন্দিরে পূজা দেন, এবং দেশের সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।"


ওই প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয় বিমানবন্দরে রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মু কোবিন্দকে স্বাগত জানান। তৎকালীন রাষ্ট্রপতির সরকারি সফর প্রসঙ্গে আরও অনেকগুলি প্রতিবেদন আমরা দেখতে পাই।

এছাড়াও, ২০২০ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি দেওঘর জেলা প্রশাসনের যাচাই করা টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও কোবিন্দ এবং মুর্মুর পূজা দেওয়ার একটি ভিডিও আপলোড করা হয়।

২০২২ সালের ২৫ জুলাই দেশের প্রধান বিচারপতি এন ভি রমানা রাষ্ট্রপতি মুর্মুকে দেশের রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথবাক্য পাঠ করান।

আরও পড়ুন: পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নাচের ভিডিওর সুর বদল

Updated On: 2022-07-29T17:53:08+05:30
Claim :   ছবি দেখায় রাষ্ট্রপতি দৌপদী মুর্মু শপথ বাক্য পাঠের আগে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে বৈদিক আচার পালন করছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.