পলাতক ব্যবসায়ী নীরব মোদীর বক্তব্য বলে ছড়াল মিথ্যে বিবৃতি

নীরব মোদীর কথা বলে দাবি করা টুইটটি পরে ডিলিট করে দেওয়ার হয়। বুম ওই কথার সত্যতা খুঁজে পায়নি।

সোশাল মিডিয়া পোস্টে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে যে, ফেরার হীরা ব্যবসায়ী নীরব মোদী (Nirav Modi) লন্ডনের আদালতে (London Court) বলেছেন যে, তিনি দেশ ছেড়ে পালাননি বরং ভারতীয় জনতা পার্টির (BJP) নেতারা তাঁকে পালাতে বাধ্য করেন।

বুম দেখে, নীরব মোদীর উক্তি বলে চালানো হচ্ছে যে কথা, তা উনি কোথাও বলেননি।

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ওই পলাতক ভারতীয় ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ১.৮ বিলিয়ন ডলারের (১৮০ কোটি ডলার) জালিয়াতির অভিযোগ এনেছে। উনি জানুয়ারি ২০১৮ তে ভারত ছেড়ে চলে যান বলে জানা গেছে। এই বছর ১৬ মার্চ, ওই হীরে ব্যবসায়ী ব্রিটেনে ধরা পড়েন। ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেটের কোর্ট তাঁর জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন এবং ২৯ মার্চ পর্যন্ত তাঁকে হাজতে রাখার নির্দেশ দেন। পড়ুন এখানে

ভাইরাল পোস্টটিতে দাবি করা হয়েছে যে, নীরব মোদী ওই কথা বলেছেন। স্বীকারোক্তিটি এই রকম: " 'আমি ভারত থেকে পালাইনি। আমাকে বহিষ্কার করা হয়। আমার শেয়ার ১৩,০০০ কোটি, যা হল ৩২%। বাকিটা @BJP4India নেতারা নেন' – লন্ডনের আদালতে নীরব মোদী। সিবিআই চুপ..."

@aditi_munshi নামের এক হ্যান্ডেল থেকে করা টুইটের স্ক্রিনশটও সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

ওই একই উক্তি টুইটারেও শেয়ার করা হচ্ছে।


একাধিক ফেসবুক পাতা থেকেও দাবিটি ভাইরাল হয়েছে।


আরও পড়ুন: কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী কি আগে রেজিস্ট্রার ছিলেন?

তথ্য যাচাই

নীরব মোদীর উক্তি, যাতে তিনি নাকি দাবি করেন যে, বিজেপি নেতাদের কারণে তিনি দেশ ছাড়তে বাধ্য হন, সেই সংক্রান্ত কোনও খবর বুম খুঁজে পায়নি।

২১ মার্চ টাইমস অফ ইন্ডিয়া'র একটি খবরে বলা হয় যে, "মঙ্গলবার, লন্ডনের মেট্রো ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে ব্যাঙ্কের এক কর্মী পুলিশকে খবর দিলে, নীরব মোদী গ্রেফতার হন।"

ওই রিপোর্টে আরও বলা হয়, পরে মোদীকে ওয়েস্টমিনস্টার আদালতে তোলা হয়। সেখানে তাঁকে ভারতে ফেরত পাঠানোর বিরুদ্ধে সওয়াল করেন মোদী। কিন্তু বিচারক মারি ম্যালন তাঁর জামিনের আর্জি নাকচ করে দেন ও তাঁকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত হাজতে রাখার নির্দেশ দেন।

বুম টুইটার হ্যান্ডেল @aditi_munshi সন্ধান পায়। সেখান থেকে করা নীরব মোদীর ভুয়ো উক্তির টুইটের স্ক্রিনশট এখন ভাইরাল হয়েছে।

অদিতি মুন্সি হলেন একজন গায়িকা ও রাজনীতিবিদ। ২০২১-এ উনি তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে রাজারহাট-গোপালপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়লাভ করেন। ওনার নামের টুইটার অ্যাকেউন্টে লেখা আছে, "গায়িকা, রাজনীতিবিদ ও বিধানসভার মাননীয়া সদস্যা (সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস), পশ্চিমবঙ্গ। তাঁর অফিসিয়াল টু্‌ইটার হ্যান্ডেলে আপনাকে স্বাগত।"

তবে, বুম দেখে ওই অ্যাকাউন্টটি থেকে কেবল দু'টি টু্‌ইট করা হয়।


প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করে বুম দেখে যে, ওই উক্তির কথা @aditi_munshi টুইটার হ্যান্ডেল থেকে ৩ জুন টুইট করা হয়। এখন যে স্ক্রিনশটটি ভাইরাল হয়েছে, তাতেও ওই একই তারিখ রয়েছে।


কিন্তু লিঙ্কটিতে ক্লিক করলে, একটি পাতা খুলছে, যাতে লেখা আছে, 'এই টুইট এখন পাওয়া যাচ্ছে না'। তার মানে টুইটটি ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে।


তবে ওই টুইটার অ্যাকাউন্টটি অদিতি মুন্সির অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট কিনা, বুম নিজস্ব উপায়ে তা যাচাই করে দেখতে পারেনি।

আমরা ওই টুইটার হ্যান্ডেলের 'ক্যাশড' সংস্করণ দেখি, কিন্তু সেখানেও ডিলিট করা টুইটটি দেখা যায়নি।

আরও পড়ুন: ২০১৭'র বিহারের বেহাল রাস্তার ছবি বাংলার বলে জিইয়ে উঠল

Updated On: 2021-06-08T13:18:05+05:30
Claim Review :   নীরব মোদী লন্ডন কোর্টে বলেছেন তিনি ভারত থেকে পালিয়ে যাননি বিজেপি নেতারা তাঁর অংশ দখল করে তাড়িয়ে দিয়েছে
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story