দিল্লি স্টেশনের ভবিষ্যত কল্পিত রূপরেখা ছড়াল অযোধ্যা স্টেশন বলে

বুম যাচাই করে দেখে দিল্লি স্টেশন ২০৫০ সালে কেমন হতে পারে তার কাল্পনিক ছবি অযোধ্যা স্টেশনের ছবি বলে ছড়াচ্ছে।

ভবিষ্যতে রেল স্টেশন কেমন হতে পারে সে ব্যাপারে কাল্পনিক নতুন দিল্লি স্টেশনের (New Delhi Station) প্যাটফর্মের নক্সাকে বলা হল সদ্য সমাপ্ত হতে চলা অযোধ্যা স্টেশন (Ayodhya Station)।

ভাইরাল হওয়া ছবিটিটে দেখা যায় অত্যাধুনিক কারিগরি প্রযুক্তির ব্যবহার হওয়া একটি রেল স্টেশনের ভেতরের দৃশ্য। ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "রেলওয়ে স্টেশনটি আমেরিকা, ইউরোপ, চিন বা জাপানের নয়।

রেলওয়ে স্টেশনটি হিন্দু ধর্মের পবিত্রতম তীর্থস্থান শ্রী রামচন্দ্রের জন্মস্থান উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির সংলগ্ন অযোধ্যা রেলওয়ে স্টেশন। অযোধ্যা রেলওয়ে স্টেশনের কাজ শেষের পথে। আর কিছুদিনের মধ্যেই ভারতবর্ষের যশস্বী প্রধানমন্ত্রী মাননীয় শ্রী নরেন্দ্র মোদীজী জনগণের উদ্দেশ্যে সমর্পণ করবেন। মোদীজী আছেন, তাই সম্ভব।"

ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স সার্চ করে ইনস্টিটিউট অফ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনায়ার্স এর ২০১৪ সালের ২৪ জুন প্রকাশিত এক প্রতিবদনে খুঁজে পায় ভাইরাল হওয়া ছবিটি।

ওই প্রতিবেদনে লেখা হয় কারিগরি সংস্থা অরুপ (Arup) তাদের "ফিউচার অফ রেল ২০৫০" (Future Of Rail 2050 ) শীর্ষক রিপোর্টে ভবিষ্যতের কারিগরি উন্নতি সম্পর্কে ধারণা দেন।

এই সূত্র ধরে বুম অরুপের ওয়েবসাইটে মূল ফিউচার অফ রেল ২০৫০ রিপোর্টটি খুঁজে পায় (Future Of Rail 2050 Report)। ২০১৪ সালে প্রকাশিত রিপোর্টি ২০২০ সালের সংস্করণ করা হয়। ওই রিপোর্টের ৮ নম্বর পাতায় রয়েছে ভাইরাল হওয়া ছবিটি। ছবির ক্যাপশনে দিল্লি রেল স্টেশনের কাল্পনিক উন্নয়ণ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। ছবির সূত্র হিসেবে রেল বিভাগ ও টিএফপি ফারেলস-এর নাম উল্লেখ করা হয়েছে। সংস্থার ওয়েবসাইট অনুযায়ী আন্তর্জাতিক সংস্থা অরুপ কারিগরি বিভিন্ন নক্সা ও পরিকাঠামো গঠন প্রভৃতি পরিষেবা প্রদান করে।

টিপিএফ ফারেল আন্তর্জাতিক অর্কিটেকচার সংস্থা যা বিভিন্ন ইমারতি ও কারিগরি স্থাপনার নক্সা তৈরি করে।

এই একই ছবি দেখা যায় ভারতের রেল মন্ত্রকের ২০০৯ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রকাশিত রিপোর্টে

বুম নিশ্চিত হয়েছে ভাইরাল ছবিটি অযোধ্যা স্টেশনের ছবি নয়। ছবিটি ভারতের রেলমন্ত্রকের নিজস্ব কাজ নাকি টিপিএফ ফারেল সংস্থার বুম তা স্বাধীনভাবে যাচাই করেনি।

আরও পড়ুন: রুশ শিল্পীর আঁকা ছবিকে বলা হল আফগানিস্তানের পঞ্জশিরের শিল্পকর্ম

Updated On: 2021-09-22T16:25:52+05:30
Claim :   ছবির দাবি উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির সংলগ্ন অযোধ্যা রেল স্টেশন
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.