২০২১ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উক্তি ভুয়ো দাবিতে ছড়াল

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল ভিডিওটি ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য।

২০২১ সালের অক্টোবর মাসে বাংলাদেশের (Bangladesh) কুমিল্লায় দুর্গা পুজো মণ্ডপে কোরান রাখার ঘটানাকে কেন্দ্র করে ছড়ানো সাম্প্রদায়িক হিংসার প্রেক্ষিতে বলা দেশটির প্রধানমন্ত্রী সেখ হাসিনার (Sheikh Hasina) বক্তব্য ভুয়ো দাবি (false claim) সহ ছড়ানো হচ্ছে।

বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এক টেলিভিশন বিতর্কে বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মা পয়গম্বর মহম্মদ সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করলে মধ্য প্রাচ্য সহ একাধিক ইসলামিক রাষ্ট্র ভারতের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে। বিজেপি নূপুর শর্মাকে সাসপেন্ড করে। দল থেকে বরখাস্ত করা হয় দলের আরেক নেতা দিল্লি বিজেপির মুখপাত্র নবীন জিন্দালকে। নূপুর শর্মার মন্তব্য ঘিরে বাংলাদেশে তীব্র প্রতিবাদ বিক্ষোভে সামিল হয় ইসলামিক সংগঠনগুলি। ভাইরাল ভিডিওটি এই প্রেক্ষিতে ছড়াচ্ছে

১ মিনিট ১০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সেখ হাসিনাকে বলতে শোনা যায়, "ভারত আমাদের মুক্তি যুদ্ধের সময় সহযোগিতা করেছে। তাদের কথা সবসময় আমরা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করি। সেখানে এমন কিছু যেন না করা হয়, যার প্রভাব আমাদের দেশে এসে পড়ে, আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর আঘাত আসে। সে ব্যাপারে তাদেরও কেউ একটু সচেতন থাকতে হবে, এটা আমার অনুরোধ থাকল। আমি চাই যে আমাদের দেশের মানুষ সুন্দর ভাবে জীবন যাপন করবে এবং সব ধর্মের মানুষই একটা তার ধর্মীয় স্বাধীনতা ভোগ করবে। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আর আমি আবারও এই অনুরোধ করবো, যে আপনারা কখনই নিজে সংখ্যালঘু সংখ্যালঘু নিজেদেরকে সংখ্যালঘু ভাববেন না। আমরা আপনাদের সংখ্যালঘু না, আমরা আপনদের আপনজন হিসেবে মানি। আমরা নিজেদের এই দেশের নাগরিক হিসেবে মানি। সম অধিকারে আপনারা বসবাস করেন। আপনারা সম অধিকার ভোগ করবেন। সম অধিকার নিয়ে আপনাদের ধর্ম পালন করবেন উৎসব করবেন। কাজেই সেটাই আমরা চাই। এবং এটাই হচ্ছে আমাদের বাংলাদেশের আসল নীতি এবং আমাদের আদর্শ।"

ভিডিওটি ফেসবুকে পোস্ট করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "বিশ্বনবীকে নিয়ে কটুক্তি করায় প্রধানমন্ত্রী এটা কি বললেন? নবীর অপমানে যদি কাঁদে না তোমার মন মুসলিম নয় তুমি মুরাফিক রাসূলের দুশমন।"

বুম দেখে একই দাবি সহ ভিডিওটি ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে। এরকম দুটি ফেসবুক পোস্টটি দেখুন এখানেএখানে



আরও পড়ুন: ভারতে মাথাপিছু আয় এখন দ্বিগুণ, বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার দাবি সত্যি?

তথ্য যাচাই

বুম গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করে দেখে ভাইরাল ভিডিওটি ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য।

"সাম্প্রদায়িকতা রুখতে সচেতন হতে হবে ভারতকে: প্রধানমন্ত্রী" এই শিরোনামে ১৪ অক্টোবর ২০২১ একই বক্তব্য সংবলিত ভিডিওটি ইউটিউবে প্রকাশ করা হয়, নিউজ বাংলা ২৪ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে।

২৯ সেকেন্ড সময়ের পর দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একই বক্তব্য। ভাইরাল ভিডিওর মত একই শাড়ি পরে রয়েছেন শেখ হাসিনা।

এবিপি আনন্দে ২০ অক্টোবর ২০২১ প্রকাশিত খবরে একই বক্তব্য রাখতে দেখা যায় শেখ হাসিনাকে।

কুমিল্লায় ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে দূর্গা পুজো মণ্ডপে কোরান রাখাকে কেন্দ্র করে যে হিংসা ছড়াই তারই প্রেক্ষিতে এই মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী হাসিনার বক্তব্যের অংশ নিয়ে ১৪ অক্টোবর ২০২১ বিবিসি বাংলাতে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল।

এই হিংসার ঘটনা নিয়ে কূটনৈতিক পর্যায়ে দিল্লি ও ঢাকার মধ্য নোট বিনিময় হয়।

ডেকান হেরাল্ডে ১১ জুন ২০২২, প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের শাসকদল আওয়ামী লিগের ধর্ম বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির চেয়ারম্যান খন্দকার গোলাম মাওলা নকশেবন্দী বলেন, বাংলাদেশে সরকার নাগরিক সমাজ ও মৌলবিদের পক্ষ থেকে পয়গম্বর মন্তব্য ঘিরে পদক্ষেপের জন্য চাপের সম্মুখীন হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানেন এই বিষয় কিভাবে মোকাবিলা করবেন। ভারত বাংলাদেশের বন্ধু দেশ। এই ঘটনা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

শেখ হাসিনা ভারতের পয়গম্বর বিতর্ক নিয়ে গণমাধ্যমে এপর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেননি।

আরও পড়ুন: বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে গণপিটুনি ভুয়ো দাবিতে ছড়াল ২০০৮ সালের ছবি

Claim :   ভিডিওর দাবি পয়গম্বর মহম্মদ মন্তব্য বিতর্কে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.