না, ভিডিওটি সানি দেওলকে গুরুদোয়ারা থেকে বের করে দেওয়ার দৃশ্য নয়

বুম দেখে ভিডিওটি ২০১৯ সালের। গুরুদাসপুর গুরুদোয়ারায় প্রার্থনা করতে গেলে সানি দেওলকে ঘিরে জনতার ঠেলাঠেলির ঘটনা ঘটে।

বিজেপি সাংসদ অভিনেতা সানি দেওলকে (Sunny Deol) ঘিরে পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের ডেরা বাবা নানক গুরুদোয়ারায় ভিড়ে ধাক্কাধাক্কি হওয়ার ২০১৯ সালের ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে সানি দেওলকে শিখ উপাসনালয় গুরুদোয়ারার (Gurudwara) প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয়েছে।

দীর্ঘ নীরবতার পর ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে কৃষি আইনের স্বপক্ষে সানি দেওল টুইট করলে ক্ষুদ্ধ হন বিক্ষোভরত কৃষকরা। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সানি দেওলকে ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়া হয়। কেন্দ্রীয় সরকারের পাশ করা তিনটি কৃষক আইনের বিরুদ্ধে প্রায় এক বছর ধরে প্রতিবাদ করছেন পাঞ্জাব, রাজস্থান ও উত্তরপ্রদেশের কৃষকরা। ভিডিওটি এই প্রেক্ষিতে শেয়ার করা হচ্ছে যে সানি দেওল গুরুদোয়ারা পরিদর্শনে গেলে আক্রান্ত হয় তাঁর উপর ক্ষুব্ধ জনতার হাতে।

১৭ সেকেন্ডের ভাইরাল ভিডিওটিতে সানি দেওলের আশেপাশে ভিড়ে সমবেত জনতার মধ্যে ধাক্কাধাক্কি হওয়ার দৃশ্য দেখতে পাওয়া যায়। ভিডিওটির ক্যাপশন হিসাবে ফেসবুকে লেখা হয়, "গুরুদ্বার থেকে তাড়িয়ে দিলেন ডাই কিলো হাত ওয়ালা সানি কো"।


পোস্টটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে। হিন্দি ক্যাপশন সমেত ভিডিওটি একই দাবি করে ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে।

একই দাবিসহ ২০২০ সালেও এই ভিডিওটি ফেসবুক ও টুইটারে ভাইরাল হয়েছিল।

আরও পড়ুন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে ছড়াল আনন্দবাজারের সম্পর্কহীন লেখার শিরোনাম

তথ্য যাচাই

বুম ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটির বিষয়ে জানতে 'সানি দেওল গুরুদোয়ারা' শব্দগুলি কিওয়ার্ড সার্চ করে ২০১৯ সালের ২ মে প্রকাশিত দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক ভিডিও রিপোর্ট খুঁজে পায়। ভিডিওটির ক্যাপশন হিসাবে সেখানে লেখা হয়, "সানি দেওল প্রচার শুরু করলেন, প্রার্থনা করলেন ডেরা বাবা নানক গুরুদোয়ারায়"।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রকাশিত ভিডিওর সাথে ভাইরাল ভিডিওর তুলনা করলে অভিনেতা তথা সাংসদ সানি দেওলকে একই জামা পরে থাকতে দেখা যায়। তাছাড়া আমরা ভিডিও দুটিকে খুঁটিয়ে লক্ষ্য করলে উভয় ভিডিওতে দেখতে পাওয়া জায়গার মধ্যেও অনেক মিল খুঁজে পাই। সানি দেওল গুরুদোয়ারায় প্রদর্শনে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন এরকম কোনও সাম্প্রতিক প্রতিবেদন খুঁজে পায়নি বুম।

নিচে ভাইরাল ভিডিও এবং দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রকাশিত ভিডিও দুটির স্ক্রিনশটের তুলনা করা হল।


২ মে ২০১৯ প্রকাশিত সংবাদসংস্থা এনআইয়ের এক ভিডিও রিপোর্টে পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের ডেরা বাবা নানক গুরুদোয়ারায় সানি দেওলকে প্রার্থনা করতে দেখা যায়। সেসময় প্রকাশিত অন্যান্য সংবাদ প্রতিবেদনে সানি দেওলকে দেখতে আসা মানুষজনের ভিড় সামলাতে হিমশিম খাওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। তবে কোনও প্রতিবেদনেই দাবি করা হয়নি যে তিনি শিখ ব্যক্তিদের হাতে সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: জনমতে রাজ্যে এগিয়ে তৃণমূল, গ্রাফিকটি ভুয়ো জানাল হেডলাইনস ত্রিপুরা

Claim Review :   ভিডিওর দাবি সানি দেওলকে গুরুদোয়ারা থেকে বের করে দেওয়া হচ্ছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story