'মাথ্রুভূমি' রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বলে দেখাল ভিডিও গেম আর্মা-৩-এর দৃশ্য

ভিডিও গেম আর্মা-৩'এর ক্লিপ ছড়িয়ে ভুয়ো দাবি করা হয় ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের আসল দৃশ্য।

এক যুদ্ধ বিমানকে আকাশ থেকে বোমা ফেলতে ও সেটিকে প্রতিহত করতে বিমান বিধ্বংসী কামানের গোলাবর্ষণ দেখা যাচ্ছে। ওই ভিডিওটিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের (Russia Ukraine Crisis) আসল দৃশ্য বলে শেয়ার করা হচ্ছে সোশাল মিডিয়ায়। মালয়ালম গণমাধ্যম 'মাথ্রুভূমি'ও (Mathrubhumi) একই দাবি সমেত ভিডিওটি শেয়ার করে।

বুম দেখে দাবিটি মিথ্যে। সেটি আসলে, যুদ্ধ-যুদ্ধ খেলার ভিডিও গেম আর্মা-৩-এর একজন ব্যবহারকারীর তৈরি ক্লিপ।

রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের পটভূমিতেই শেয়ার করা হচ্ছে ভিডিওটি।

ওই সংঘর্ষ পুরনো ও সম্পর্কহীন ভিডিও'র জোয়ার সৃষ্টি করেছে ও ভিডিও গেম আর্মা-৩-এর ক্লিপ ওই আক্রমণের দৃশ্য, এই মিথ্যে দাবি করে শেয়ার করা হচ্ছে।

আমরা দেখি ভিডিওটি টুইটারে শেয়ার করা হচ্ছে। সঙ্গে ক্যাপশনে বলা হচ্ছে, "#দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ব্রেকিং নিউজ!! রাশিয়ায় এখনকার অবস্থা! ইউক্রেনের ওপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ কায়েম করেছে। ইজরায়েল/চিন/ট্রাম্প/দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ/ক্রিমিয়া/ইউক্রেন/পুতিন/বাইডেন/ইউএসএসআর/কিভ/ইরান/পোল্যান্ড#দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ।"


আর্কাইভ করা আছে এখানে

আমরা দেখি যুদ্ধের দৃশ্য বলে মালয়ালম সংবাদ চ্যানেল মাথ্রুভূমিও একই ভিডিও শেয়ার করেছে।

নীচের ইউটিউব ভিডিওটির ৩:০৫ সময় থেকে খবরের ওই অংশটি দেখা যাবে।


চ্যানেলটির ফেসবুক পেজেও সেটি শেয়ার করা হয়। দৃশ্যটি ৪:৩৯ সময় থেকে দেখা যাবে।


তথ্য যাচাই

যে টুইটার ভিডিওতে ওই দৃশ্যটি রয়েছে, সেটি সম্পর্কে কয়েকটি মন্তব্যে বলা হয় যে, ভিডিও গেম আর্মা-৩'ই সেটির উৎপত্তি। এবং'এ-১০' নম্বরটি রয়েছে সেটিতে।

ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে আমরা রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। আমরা খোঁজ করি সেই ক্লিপের যাতে 'এ-১০' আর্মা-৩ লেখা আছে।

তার ফলে, আমরা একটি 'ইউটিউব শর্টস ভিডিও' দেখতে পাই। ৬ জানুয়ারি, ২০২২ আপলোড করা হয় সেটি। সেটির শিরোনামে লেখা ছিল, "এ-১০ ওয়ারথগ মিসাইল গান রান - সি র‌্যাম মিলিটারি সিমুলেশন – আর্মা৩#শর্টস"।

ভিডিওটির বিবরণে বলা হয়, "এ-১০ থান্ডারল্ট-২'র পাইলটরা সেটিকে ওয়ারথগ বা হগ বলে থাকেন। জিএইউ-৮ অ্যাভেঞ্জার হলো একটি ৩০ মিলিমিটারের সাত-নলা গ্যাটলিগ কামান, যেটি এ-১০ ওয়ারথগ/থান্ডারবোল্ট-২ তে লাগানো থাকে"।


ভিডিওটির অত্যন্ত বাস্তব সম্মত গ্রাফিক জনপ্রিয় করে তুলেছে সেটিকে। কারণ, সেটির সাহায্যে সাজানো দৃশ্যকেও বাস্তব বলে মিথ্যে দাবি করা যায়।

তাছাড়া সোশাল মিডিয়া এখন পুরনো ও সম্পর্কহীন ভিডিওয় ছয়লাপ। মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে যে, সেগুলি ইউক্রেন-এ চলমান আক্রমণের দৃশ্য। বিগত দু'দিনে বুম এই ধরনের বেশ কয়েকটি দাবি খন্ডন করেছে।

(অতিরিক্ত রিপোর্টিং সুজিথ এ)

আরও পড়ুন: না, ভিডিওটি ১৯৩ বছর বয়সী পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষের নয়

Updated On: 2022-02-25T16:22:46+05:30
Claim :   ভিডিও দেখায় রাশিয়া ইউক্রেনের যুদ্ধ
Claimed By :  Mathrubhumi & Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.