'কংগ্রেসকে ভোট দিন'—জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার ভাষণ বিভ্রাটের ভিডিও উত্তরপ্রদেশের নয়

বুম দেখে ভিডিওটি মধ্যপ্রদেশে ২০২০ সালের ৩ নভেম্বর উপনির্বাচনের আগে বিজেপির প্রচারে বিঘ্ন হওয়ার ঘটনা।

বিজেপি নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার (Jyotiraditya Scindia) একটি পুরনো ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে যে, উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) একটি নির্বাচনী জনসভায়, (Assembly Elections 2022) সিন্ধিয়াকে কংগ্রেসের জন্য ভোট চাইতে দেখা যাচ্ছে।

উত্তরপ্রদেশে ২০২২-এর বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে শেয়ার করা হচ্ছে এই ভিডিও।

১৪ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটিতে সিন্ধিয়াকে বলতে শোনা যাচ্ছে, "নিজেদের হাত মুঠো করুন আর আমাদের আশ্বাস দিন যে, ৩ তারিখে হাতের বোতাম টেপা হবে ও কংগেসে (নিজেকে সুধরে নেন)...পদ্মফুলের বোতাম টেপা হবে।"

ভিডিওটির সঙ্গে হিন্দিতে লেখা ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "উত্তরপ্রদেশে পুরনো স্মৃতি জেগে উঠেছে। জয় হো সিন্ধিয়া।"

(আসল ক্যাপশন: Proper Comedy उत्तरप्रदेश में बौखला गयी है पुरानी यादें। जय हो सिंधिया)

পোস্টটি দেখুন এখানে

তথ্য যাচাই

সিন্ধিয়ার 'কংগেসকে ভোট দিন' বিভ্রাট সম্পর্কে বুম ইন্টারনেটে কি-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করে। তার ফলে, ১ নভেম্বর, ২০২০, দ্য ট্রিবিউন-এ প্রকাশিত একটি রিপোর্ট আমাদের সামনে আসে। তাতে ওই একই ভিডিও ব্যবহার করা হয় ও ওই ঘটনাটি সম্পর্কে জানা যায়।

ভিডিওটি দ্য ট্রিবিউন-এর ইউটিউব চ্যানেলেও দেখা যাবে।

ট্রিবিউন-এর খবরে বলা হয়, "মধ্যপ্রদেশে, ৩ নভেম্বরের উপনির্বাচনের প্রচারের সময়, বিজেপি'র রাজ্যসভা সদস্য জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া মুখ ফসকে তাঁর আগের পার্টিকে ভোট দিতে বলেন।"

ওই ঘটনা সম্পর্কে 'নিউজ-১৮'ও খবর করে। লেখাটিতে বলা হয়, "নির্বাচনী বিধি ভাঙ্গার জন্য, নির্বাচন কমিশন বিজেপি প্রার্থী ইমর্তি দেবীকে, ১ নভেম্বর, এক দিনের জন্য প্রচার করতে না দেওয়ায়, সিন্ধিয়া তাঁর হয়ে প্রচার করছিলেন। সেই সময় ভিডিওটি তোলা হয়।"

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, "২০২০'র মার্চে, তাঁর ২২ জন অনুগামী বিধায়কদের নিয়ে, সিন্ধিয়া কংগ্রেস থেকে পদত্যাগ করেন। তার ফলে রাজ্যে কমলনাথ সরকারের পতন ঘটে।"

আরও পড়ুন: 'মাথ্রুভূমি' রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বলে দেখাল ভিডিও গেম আর্মা-৩-এর দৃশ্য

Updated On: 2022-02-25T18:08:52+05:30
Claim :   উত্তরপ্রদেশের র‍্যালিতে বিজেপির মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বললেন কংগ্রেসকে ভোট দিন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.