Mamata Banerjee কী বলেছেন ছাত্রছাত্রীদের বোর্ডের পরীক্ষা দিতে হবে না?

বুম দেখে ২০২০ সালের নভেম্বর-এ নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর প্রেস কনফারেন্সের কাটছাঁট করা ভিডিও বিভ্রান্তিকর দাবিতে ছড়িয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের ফাইনাল পরীক্ষা নিয়ে একটি সাংবাদিক সম্মেলনের কাটছাঁট করা ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর দাবিতে ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল পোস্টে দাবি করা হচ্ছে যে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে ২০২১ সালে যেসব পরীক্ষার্থীরা দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক তাদের পরীক্ষা নেওয়া হবে না।

বুম যাচাই করে দেখে যে, সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী প্রথমবারে ভুলবশত 'মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে হবে না' বললেও পর মুহূর্তেই ভুল শুধরে নিয়ে আবার বিজ্ঞপ্তিটি পড়েন যেখানে 'মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা'-র কথা বলা হয়েছে এবং আরও বলেন যে ২০২১ সালে পর্ষদের দুটি পরীক্ষায় গ্রহণ করা হবে।
পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ ও পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ আয়োজিত দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর ফাইনাল পরীক্ষার বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ২৩ সেকন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে পোস্ট এবং শেয়ার করা হচ্ছে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীকে স্পষ্ট বলতে শোনা যায় যে, 'মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা ২০২১, এবার যেহেতু অতিমারি চলছে, তারা ইস্কুলে যেতে পারছে না, যারা পরীক্ষায় বসতে ইচ্ছুক তাদের কারও পরীক্ষা নেওয়া হবে না।'
এই পোস্টকে বিভিন্ন ক্যাপশনে ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে।
এরকই একটি পোস্টের ক্যাপশনে লেখা আছে, "আমি মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক দেওয়ার সময় আপনি কেন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না,তাহলে কষ্ট করে পড়াশুনা করে ২০০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হতো না, এমনি পাস করে যেতাম, তাহলেই বলতাম মমতা দি আরেকবার।"
পোস্ট দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে
অন্য পোস্টগুলি দেখা যাবে এখানে, এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে এবং এখানে

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে ২৩ সেকেন্ডের ভিডিওটি সম্পূর্ণ ভিডিও থেকে কাটছাঁট করে পোস্ট করা হয়েছে। ভিডিওটি ২০২০ সালের ১১ নভেম্বর নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের একটি সাংবাদিক সম্মেলনের।
বুম কি ওয়ার্ডের মাধ্যমে ফেসবুক থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যাচাই করা ফেসবুক পেজে নবান্নের ওই সাংবাদিক সম্মেলনের লাইভ ১১ মিনিট ৯ সেকেন্ডের
ভিডিও খুঁজে পায়
বুম দেখে, সেই ভিডিওর ৩ মিনিট ১০ সেকেন্ড থেকে ৪ মিনিট ১৫ সেকেন্ডের মধ্যের অংশকে সম্পাদনা করে ভাইরাল ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।
সরকারি বিজ্ঞপ্তি পড়ে শোনানোর সময়ে মুখ্যমন্ত্রী প্রথমবার ভুলবশত 'ইচ্ছুক পরীক্ষার্থীদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা দিতে হবে না, তারা এমনিতেই এ্যালাউ হয়ে যাবে' এই কথা বলতে শোনা যায় কিন্তু পর মুহূর্তে তিনি ভুল শুধরে নেন এবং সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি আবার পড়েন এবং বলেন যে, "মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা ২০২১ এর জন্য এবার টেস্ট পরীক্ষা হবে না। দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত সমস্ত ছাত্রছাত্রীদেরই ২০২১ সালের সংশ্লিষ্ট মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেওয়া হবে।"
বুম ইন্টারনেটে ২০২০ সালের ১১ নভেম্বরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নবান্ন সাংবাদিক সম্মেলন নিয়ে আনন্দবাজারে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখতে পায়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, "আগামী বছরের মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের জন্য টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হবে না। বুধবার নবান্নের সভাঘর থেকে একথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই শিক্ষা দফতর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান তিনি। ফলে পড়ুয়ারা ২০২১-এ মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকে সরাসরি বসতে পারবে।"
উল্লেখ্য কোভিড অতিমারির জন্য ২০২১ সালের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্ধারিত মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাস থেকে পিছিয়ে দিয়ে জুন মাসে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে
Updated On: 2021-01-14T17:58:52+05:30
Claim Review :   মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন ২০২১ সালে যারা মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে চায় তাদের পরীক্ষা নেওয়া হবে না
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story