করাচির পেট্রোল পাম্পে বিস্ফোরণ ছড়াল ত্রিপুরায় হিংসার ঘটনা বলে

ভাইরাল ভিডিওটিতে ২৯ অক্টোবর, ২০২১ করাচির নিজামাবাদ এলাকায় একটি পেট্রোল পাম্পে ঘটা বিস্ফারণের দৃশ্য দেখা যায়।

পাকিস্তানের করাচিতে (Karachi) একটি পেট্রোল পাম্পে (Bomb Blasts) বিস্ফোরণের পর আহত মানুষের রাস্তায় পড়ে থাকার দৃশ্য সোশাল মিডিয়ায় ভুয়ো দাবি সহ ত্রিপুরা রাজ্য পুলিশ হিংসা (tripura violence) সৃষ্টি করছে বলে ছড়ানো হচ্ছে।

কিছু হিন্দু সংগঠন সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় হিংসা ছড়ায় বলে খবরে প্রকাশ। মসজিদ, ঘরবাড়ি, ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের দোকান ভাঙ্গচুর করা হয় বলে দাবি করা হয় রিপোর্টে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ভিডিওটি শেয়ার করা হচ্ছে। কিন্তু ত্রিপুরার সহকারী মুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেব বর্মা ত্রিপুরায় হিংসাত্মক ঘটনার রিপোর্ট অস্বীকার করেছেন। সম্প্রতি দক্ষিণপন্থী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের অভিযোগের ভিত্তিতে দু'জন মহিলা সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়। "ধর্মের ভিত্তিতে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে শত্রুতা তৈরি করার" অভিযোগ আনা হয় তাঁদের বিরুদ্ধে।

হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন সমেত ভিডিওটি শেয়ার করা হচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, "আমাদের দেশে, পুলিশ দফতর হল এমন একটি দফতর যেটি ন্যায়ের জন্য কাজ করে। সেটি অন্যায়কারী ও অত্যাচারীদের শাস্তি দেয়। কিন্তু ত্রিপুরা পুলিশের অদ্ভুৎ কার্যকলাপ সারা দেশের পুলিশ দফতরের জন্য লজ্জার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।"

(হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: पुलिस डिपार्टमेंट हमारे देश का एक ऐसा डिपार्टमेंट है जो हमेशा अपने इंसाफ के लिए जाना जाता है जो ज़ालिमों को सज़ा और मज़लूमों को इंसाफ दिलाता है, लेकिन #त्रिपुरा पुलिस की वाहियात हरकतें पूरे देश के पुलिस डिपार्टमेंट के लिए शर्म की बात है।)

ভিডিওটি অস্বস্তিকর


টুইটটির আর্কাইভ করা আছে এখানে

যাচাইয়ের জন্য ভিডিওটি বুমের হেল্পলাইন নম্বরেও আসে (+৯১৭৭০০৯০৬৫৮৮)।


তথ্য যাচাই

ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। দেখা যায়, ভাইরাল ভিডিওটি ৩০ অক্টোবর, ২০২১ তে করা একটি টুইটে দেওয়া হয়েছিল। ওই টুইটে বলা হয়, ঘটনাটি পাকিস্তানের করাচিতে ঘটে।

(বিচলিত করার মতো দৃশ্য)

এই সূত্র ধরে আমরা কিওয়ার্ড সার্চ করি। তার ফলে, আমরা দেখি, 'জিও টিভি' ও 'আজ নিউজ' ওই ঘটনা সম্পর্কে সংবাদ বুলেটিন ও লেখা প্রকাশ করে। তাতে ওই ভাইরাল ক্লিপটির একটি অংশ ব্যবহার করা হয়।

৩০ অক্টোবর, ২০২১, 'দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন' প্রকাশিত একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, "শুক্রবার, করাচির নাজিমাবাদ এলাকায়, 'শর্ট-সারকিটের কারণে' একটি পেট্রোল পাম্পে বিষ্ফোরণ হলে, অন্তত চারজন মারা যান ও দুই মহিলা সহ ছ'জন আহত হন। পুলিশ জানায়, বিস্ফোরণের ফলে তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় আরও একজনের মৃত্যু হয়। ছ'জনের চিকিৎসা চলছে।"

ত্রিপুরায় সাম্প্রদায়িক হিংসার বলে চালানো বেশ কয়েকটি ভিডিও ও ছবি বুম নস্যাৎ করেছে। আমাদের তথ্য-যাচাইগুলি পড়ুন এখানে

আরও পড়ুন: ১৯৮৩ সালের সিনেমার দৃশ্য ছড়াল সাংবাদিকের তোলা সাভারকরের বিরল ভিডিও বলে

Claim Review :   ভিডিওর দাবি পুলিশ ত্রিপুরায় হিংসা ছড়াচ্ছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story