নূপুর শর্মার মন্তব্য বিতর্ক: ছড়াল পুরনো সম্পাদিত কাশ্মীরের ভিডিও

বুম দেখে ভিডিওটি আসলে কাশ্মীরে মহিলাদের স্বাধীনতার দাবিতে মিছিলের দৃশ্যের।

পয়গম্বর মহম্মদকে নিয়ে বিজেপির (BJP) নিলম্বিত (Suspended) মুখপাত্র নূপুর শর্মার (Nupur Sharma) বিতর্কিত মন্তব্যের মাঝে হিজাব পরিহিত বহু সংখ্যক মহিলার রাস্তায় নেমে প্রতিবাদের এক ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

কিছুদিন আগে সর্বভারতীয় এক টিভি চ্যানেলে বর্তমানে বহিষ্কৃত বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মার নবী মহম্মদকে নিয়ে বলা এক বক্তব্য সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলে দেশে ও বিদেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। নূপুর শর্মার মন্ত্যবের বিরোধিতায় বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। বিতর্কিত সেই মন্ত্যবের প্রতিবাদে দেশের একাধিক জায়গায় গত কয়েকদিনে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

ফেসবুকে মহিলাদের প্রতিবাদের সেই ভিডিওটি পোস্ট করে ক্যাপশনের একাংশে লেখা হয়, "আমরা মুসলিমরা কখনোই আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর অপমান সহ্য করব না"।


পোস্টটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে


পোস্টটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

আরও পড়ুন: বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে গণপিটুনি ভুয়ো দাবিতে ছড়াল ২০০৮ সালের ছবি

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির বিষয়ে জানতে তার একটি ফ্রেমকে রিভার্স সার্চ করে ২০১৮ সালের ১৩ ডিসেম্বর প্রকাশিত তুরস্কের এক সংবাদমাধ্যম টাইম তুর্কের এক ভিডিও প্রতিবেদনে আসল ভিডিওটিকে খুঁজে পায়।

আসল ভিডিওতে হিজাব পরিহিত ওই মহিলাদের 'আজাদি' তথা স্বাধীনতার স্লোগান দিতে দেখা যায়।

২০১৮ সালে প্রকাশিত টাইম তুর্কের প্রতিবেদন

ভিডিওটির ক্যাপশন অনুবাদ করে জানা যায় ভারতের কাশ্মীরে সেসময় মহিলাদের এই প্রতিবাদ মিছিল বের হয়েছিল।

এছাড়াও আমরা রিভার্স সার্চ করে এই একই ভিডিও দীর্ঘ সংস্করণকে ২০১৯ সালের এক টুইটে খুঁজে পাই। ওই ভিডিওর ৩৪ সেকেন্ড অংশে এক ব্যানারে 'বারামুল্লা সেন্ট্রাল কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেড, হাজিন' লেখা দেখতে পাওয়া যায়।

টুইটটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

বারামুল্লা সেন্ট্রাল কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেডের ব্যানারের দৃশ্য

এই তথ্যকে সূত্র হিসাবে গ্রহণ করে আমরা কীওয়ার্ড সার্চ করায় ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর সংবাদসংস্থা এপির প্রকাশিত এক প্রতিবেদন খুঁজে পাই। ওই প্রতিবেদনে সেসময় ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে মৃত দুই ভারত-বিরোধী প্ৰতিবাদী কিশোরের শেষকৃত্যে হাজিন গ্রামে স্বাধীনতার স্লোগান দেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়।

গেটি ইমেজেসের ওয়েবসাইটেও একই তথ্যের উল্লেখ করে অনুরূপ এক ছবির খোঁজ পাওয়া যায়।

সূত্র: গেটি ইমেজেস

আরও পড়ুন: ২০২১ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উক্তি ভুয়ো দাবিতে ছড়াল

Claim :   ভিডিওতে নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর অপমানের প্রতিবাদে মিছিল হতে দেখা যায়
Claimed By :  Social Media Users
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.