দেবী দুর্গার পূর্বপুরুষ নিয়ে বিতর্কসভায় ঠিক কী বলেছেন Dilip Ghosh?

বুম দেখে গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের বিতর্কতে বলা রাজ্য সভাপতি ও সাংসদ দিলীপ ঘোষের বক্তব্যের অংশ সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

''দিলীপ ঘোষ মা দুর্গাকে অপমান করলেন!'' এই দাবিতে তৃণমূলের কংগ্রেসের প্রচারের অ্যাকাউন্ট 'বাংলার গর্ব মমতা' সহ একাধিক তৃণমূল কংগ্রেসপন্থী সোশাল মিডিয়া প্রোফাইলগুলি থেকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সাংসদ দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) বক্তব্যের একটি ভিডিও ছড়ানো হচ্ছে।

২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের মুখে বিজেপির 'জয় শ্রীরাম' ধ্বনির পাল্টা হিসেবে তৃণমূল কংগ্রেস হাতিয়ার করেছে 'জয় সিয়ারাম'। ভোট আবহে এই বিতর্কে নবতম সংযোজন এবার দেব-দেবীদের বংশলতিকাও!

৪৫ সেকেন্ডের ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে সাংসদ দিলীপ ঘোষকে বলতে শোনা যায়, ''কোনও আদর্শ নেই। এমন একটি দল ধর্মের জায়গায় রাজনীতির কথা বলে। রাজনীতির জায়গায় ধর্মের কথা বলে। আমরা এরকম কথা বলি না। আমরা রাজনীতি করি খোলাখুলি করি। ভগবান রাম একজন রাজা ছিলেন। কেউ ওনাকে অবতার মানেন। আর ওনার ১৪ পূর্বপুরুষের নামও আপনি খুঁজে পাবেন। দুর্গার মিলবে কি?

তারপর দিলীপ ঘোষ বলেন, ''এইজন্য এক রাজা সুশাসক, মর্যাদাবান, পুরুষোত্তম এরকম মানা হয়। আর আমাদের এখানে যে রামচরিত লেখা হয়েছে, বাঙালি লিখেছে। রামচরিত মানস প্রথমে বাল্মীকির রামায়ণ থেকে, এখানেও বাংলায় রামায়ণ আছে। বাংলায় লেখা হয়েছে। তো আদর্শ পুরুষ মর্যাদা পুরুষোত্তম। গাঁধীজি আমাদের রাম রাজত্বের কল্পনা দিয়েছেন। দুর্গা জানিনা কোথা থেকে চলে আসে।''

তৃণমূলের কংগ্রেসের প্রচারের অ্যাকাউন্ট 'বাংলার গর্ব মমতা' থেকে ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়, ''ভাইরাল হওয়া ফেসবুকে দিলীপ ঘোষ মা দুর্গাকে অপমান করলেন! এই অপমান সারা বাংলার অপমান, এই অপমান সমগ্র দেশের অপমান। দিলীপ ঘোষ এবং তাঁর দলকে ক্ষমা করা সম্ভব নয়। #BJPInsultsMaaDurga #ShameOnDilipGhosh ##BengalRejectsBJP।'' ওই ভিডিওতে পাল্টা বক্তব্য রাখতে দেখা যায় তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডঃ কাকলি ঘোষ দোস্তিদারকে।

ফেসবুক পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরেকটি টুইটার অ্যাকাউন্টে সংশ্লিষ্ট হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে ইংরেজিতে টুইটে লেখা হয়, "আজকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ জাতীয় টিভিতে মা দুর্গাকে অপমান করেছে, "এই দুর্গা কোথা থেকে এল!'' সর্ব শক্তিমান দেবীকে অশ্রদ্ধা করা যাঁর কাছে ভগবান রাম মাথা নত করেন—রাবনের সঙ্গে তাঁর যুদ্ধের আগে; সরাসরি হিন্দুধর্মকে অপমান।

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: ফেসবুকে ভাইরাল সংঘ সমালোচকদের প্রসঙ্গে দলাই লামার ভুয়ো মন্তব্য

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি সম্পাদিত নয়। গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের ২০২১ সালের পূর্ব কনক্লেভ অনুষ্ঠানে এক বিতর্ক সভায় ওই বক্তব্য পরিবেশন করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

'রাম বনাম দুর্গা' রাজনীতি নিয়ে ওই বিতর্ক সভায় দিলীপ ঘোষের পাশাপাশি অংশ নেন সিপিআইএম সাংসদ ফুয়াদ হালিম, কংগ্রেস নেতা পবন খেরা ও তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডঃ কাকলি ঘোষ দোস্তিদার।

সঞ্চালক শিব অরুর এর প্রশ্নের জবাবে সংশ্লিষ্ট ভাইরাল বক্তব্য পেশ করেন সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

২ মিনিট ১ সেকেন্ড সময় থেকে জবাব দিতে শোনা যায় সাংসদ দিলীপ ঘোষকে। ২ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড সময়ের পর তিনি আরও বলেন, ''দুর্গা তো ভগবান রামের আরাধ্য ছিলেন। রাবনকে বধ করার জন্য উনি দুর্গার পুজো করেন। ওনার আরাধনা করেন। তাঁর আশীর্বাদে রাবন বধ হয়। এইজন্য এটি আলাদা ব্যাপার। আপনি রামের বিরুদ্ধে কিভাবে দুর্গাকে দাঁড় করিয়ে দেন। আমার বোধগম্য হয় না। রাম ভক্ত সারা দেশে রয়েছে।''

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ইউটিউবে আপলোড করা ইন্ডিয়াটুডের ভিডিওটি নিচে দেখুন।

দেবী দুর্গার পূর্বপুরুষ কারা?

পুরাণবিদ নবকুমার ভট্টাচার্য গণমাধ্যম আনন্দবাজারকে বলেছেন, ''দুর্গার পিতৃপরিচয় নেই এমনটা মানা যাবে না। সেই উল্লেখ রয়েছে পুরাণেই। দেবীসূক্তে এমন উল্লেখ আছে যে তিনি আম্ভূণ ঋষির বাক‍্‍রূপী কন্যা।... দেবীপুরাণ অনুয়ায়ী দেবী হলেন 'পর্বতরাজপুত্রিম্'। তিনি যেমন হিমালয় কন্য তেমনই দক্ষের কন্যা। তিনি যেমন মা মেনকার সন্তান তেমনই এটাও বলা হয় যে, দুর্গা অযোনিসম্ভবা। তিনি এনেক দেবতার শক্তি নিয়ে জন্ম নেন।''

আরও পড়ুন: কাঁথির জনসভার পর সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চড় মেরেছে এক ব্যক্তি?

Updated On: 2021-02-14T20:28:38+05:30
Show Full Article
Next Story