২০১২ সালে ক্যালিফোর্নিয়ায় তোলা ছবি অটল টানেল বলে ভাইরাল

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি অটল টানেলের নয়, সানফ্রান্সিস্কোর অদূরে ডেভিলস স্লাইড টানেলের।

ক্যালিফোর্নিয়ায় নির্মীয়মান ডেভিলস স্লাইড টানেলের ছবি মানালি-লেহ রাস্তায় সদ্য উদ্বোধন-করা অটল টানেলের ছবি বলে মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে।

বুম দেখে, ভাইরাল ছবিতে ডেভিলস স্লাইড টানেলের দু'টি গোলাকার মুখ দেখা যাচ্ছে। টানেলটির আরেক নাম টম ল্যান্টস টানেল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সেটি ২০১৩ সালে উদ্বোধন করা হয়।
৩ অক্টোবর ২০২০ তারিখে অটল টানেল উদ্বোধন হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে। ৯.০২ কিলোমিটার লম্বা এই টানেলটি এখন সড়ক পথে বিশ্বের সবচেয়ে বড় টানেল বলে মনে করা হচ্ছে। এটি হিমাচলপ্রদেশের মানালি ও লাহুল-স্পিতিকে হাইওয়ের মাধ্যমে সারা বছর যুক্ত রাখবে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১০,০০০ ফিট ওপরে, এই টানেল লেহ ও মানালির মধ্যে দূরত্ব ৪৬ কিলোমিটার কমিয়ে দেবে।
বেশ কয়েকটি প্রথম সারির সংবাদ পরিবেশক, যেমন টাইমস নাও (আর্কাইভ), ইন্ডিয়া টুডে (আর্কাইভ) ও নিউজ-১৮ (আর্কাইভ), অটল টানেলের ওপর লেখায় ডেভিলস স্লাইড টানেলের ছবি ব্যবহার করেছে। তারা অবশ্য ছবিটির জন্য টুইটার ও পিটিআইকে কৃতিত্ব দিয়েছে।
নীচে দেখুন।

একই দবি সমেত ছবিটি বেশ কিছু টুইটার হ্যান্ডেল থেকেও শেয়ার করা হয়েছে।
স্টিল অথরিটি অফ ইন্ডিয়া লিমিটেড বা সেল-এর টুইটার হ্যান্ডেল থেকে করা টুইটে বলা হয়েছে, রোহতাংয়ে অটল টানেল তৈরির জন্য সেল ৯,০০০ টন ইস্পাত সরবরাহ করেছে। কিন্তু সেই সঙ্গে ছবি দেওয়া হয়েছে ডেভিলস স্লাইড টানেলের।

আর্কাইভ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।
অন্যান্য যে সব টুইটে ভাইরাল ছবিটিকে অটল টানেলের ছবি বলে চালানো হয়েছে, সেগুলি এখানে দেখুন।
একই দাবি সমেত ছবিটি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে।
তথ্য যাচাই
ভাইরাল ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করে বুম দেখে সেটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডেভিলস স্লাইড বা টম ল্যান্টস টানেলের ছবি। সেটি সানফ্রান্সিস্কো থেকে আনুমানিক ১৫ কিলোমিটার দক্ষিণে। এবং ক্যালিফোর্নিয়ার বে এরিয়ার প্যাসিফিকা ও মনটারার মধ্যে সংযোগ স্থাপন করে সেটি।
এই ছবিটি নেওয়া হয়েছে ২০১২ সালে প্রকাশিত একটি ব্লগ থেকে, যাতে নির্মীয়মান ওই টানেলটির আরও কিছু ছবিও আছে।
টানেলের ছবিটি আরও অনেক ফোরামে রয়েছে।
ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্য সরকারের পরিবহন দপ্তরের (ক্যালট্রান) ২০১৪ সালের বার্ষিক রিপোর্টে টানেলটির উল্লেখ রয়েছে এবং সেটির প্রবেশ মুখের ছবিও রয়েছে। তাতে বলা হয়েছে টানেলটি ২০১৩ সালের মার্চে উদ্বোধন করা হয়।
ক্যাট্রান-এর ২০১৪'র রিপোর্ট এখানে পড়া যাবে।
টানেলটির দু'টি মুখ এই ভিডিওটিতেও দেখা যাবে। ডেভিলস স্লাইড টানেলের নক্সা যাঁরা প্রস্তুত করেছিলেন, সেই এইচএনটিবি করপোরেশন ভিডিওটিও তৈরি করেন।

অটল টানেলের আসল মুখ দেখা যাচ্ছে যে সব ভিডিওতে, আমরা সেগুলিও দেখি। দেখা যায়, সেটির মুখ চৌকো।
অটল টানেলের ছবি প্রধানমন্ত্রী মোদী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহও শেয়ার করেছেন। সেখানেও অটল টানেলের মুখের আকৃতি দেখে নেওয়া যায়।

Updated On: 2020-10-05T18:47:18+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি হিমাচল প্রদেশে সম্প্রতি উদ্বোধন হওয়া অটল টানেল
Claimed By :  Users of Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story