রাম মন্দিরের নক্সা বলে ৬ বছরের পুরনো থ্রি-ডি অ্যানিমেশন ভিডিও ভাইরাল

বুম ভাইরাল এই অ্যানিমেশন ভিডিও নির্মাতাদের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছে যে এই ভিডিওটি রাম মন্দিরের প্রস্তাবিত নক্সা নয়।

একটি জৈন মন্দিরের ত্রিমাত্রিক অ্যানিমেশন ভিডিওকে ফেসবুকে শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে এটি উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দিরের প্রস্তাবিত নক্সা।

বুম যাচাই করে দেখেছে এই ভিডিওটি ছয় বছরের পুরনো। সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলার রায় আসার অনেক আগে থেকেই ভিডিওটি ইউটিউবে ছিল। বুম ভাইরাল ভিডিওটির আরেকটি দীর্ঘ সংস্করণ খুঁজে পায়, এই ভিডিওটি কেইএমএস স্টুডিও নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৪ সালের ৩০ জুন আপলোড করা হয়। বুম আরও জানতে পারে যে, এই ভিডিওতে থাকা মন্দিরের প্রতিরুপটি আসলে অন্ধ্রপ্রদেশের তিরুপতিতে নির্মিত হতে যাওয়া শ্রী পার্শ্বনাথ নভরাগ ৭২ জৈনালয় তীর্থ নামের একটি জৈন মন্দিরের।

আসন্ন ৫ আগস্ট বহু আলোচিত অযোধ্যার ভুমিতে রাম মন্দিরের ভুমি পুজা করা হবে এবং এতে অংশগ্রহন করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পুরো অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করা হবে প্রসারভারতীর দূরদর্শন চ্যানেলে
২৭ সেকন্ডের এই অ্যানিমেশন ভিডিওটিতে একটি মন্দির প্রাঙ্গনের দৃশ্যকে বিভিন্ন দিক থেকে দেখানো হয়েছে এবং গোটা ভিডিও জুড়ে নেপথ্যে বেজে চলেছে একটি হিন্দি গান "রাম রাজ্যকা সারা সুখ কলিযুগ মে লানা হে, হিন্দকে কোনা কোনা মে ভাগবা লেহেরানা হে।"
ফেসবুকে ২৭ সেকেন্ডের এই ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে," 3D effect এ রাম মন্দির স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছেচ, 3D effect রাম মন্দির, #জয়_শ্রী_রাম"
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। ভিডিওটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
বুম গভীরভাবে ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে এবং দেখতে পায় যে এই ভিডিওতে থাকা মন্দিরের প্রতিরুপটি বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদনে থাকা প্রতিরুপ থেকে আলাদা।
বুম কয়েকটি সংবাদ প্রতিবেদন পেয়েছে যেখানে প্রস্তাবিত ১৬১ ফুট উঁচু রাম মন্দিরের নক্সার ছবি রয়েছে। প্রতিবেদনগুলি পড়া যাবে এখানে এবং এখানে

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত রাম মন্দিরের প্রস্তাবিত মডেলের থ্রি ডি ছবি

রাম মন্দিরের গঠন কাঠামো প্রাথমিকভাবে তিন দশক
পুরনো মডেলের
অনুকরনেই তৈরি হবে। তবে মূল নক্সা থেকে রাম মন্দিরের উচ্চতা সম্প্রতি ২০ ফুট বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

অ্যানিমেশন ভিডিওর উৎস

'3D Temple Design Animation' এই কিওয়ার্ড দিয়ে ইউটিউবে সার্চ করে বুম ভাইরাল ভিডিওর ছয় বছর পুরনো একটি দীর্ঘ সংস্করণ খুঁজে পায়। ভিডিওটি মুম্বইয়ের কেইএমএস স্টুডিও তাদের ইউটিউবে আপলোড করেছিল। দীর্ঘ সময়ের সম্পূর্ণ ভিডিওটিতে একাধিক জৈন মূর্তি দেখা যায়।
বুম কেইএমএস স্টুডিওর মালিক কমলেশ পাঞ্চালের সাথে কথা বলেছে তিনি বলেছেন, "ভাইরাল দাবিগুলি মিথ্যে, এটি রাম মন্দিরের নয়, এটি একটি জৈন মন্দিরের মডেল। এমনকি ভিডিওর মধ্যেও মহাবীর মহারাজকে দেখা যাচ্ছে। কয়েক বছর আগে অন্ধ্রপ্রদেশে একটি জৈন মন্দিরের জন্য আমরা এই অ্যানিমেশনটি তৈরি করি। আমাদের কাজের নমুনা হিসেবে ভিডিওটি আমরা আপলোড করেছিলাম।"
সম্প্রতি রাম মন্দিরের জন্য তারা কোনও অ্যানিমেটেড মডেল বানিয়েছে কিনা জানতে চাইলে, কমলেশ জানান, "আমরা কোনওভাবেই অযোধ্যার রাম মন্দিরের নির্মাণের সাথে যুক্ত নই।"
কমলেশ পাঞ্চাল আরও জানান যে "আমি দেখেছি এই ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ভুয়ো দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে এবং থ্রি ডি অ্যানিমেশন তৈরির পরে অন্ধপ্রদেশে মন্দিরটি আদৌ তৈরি হয়েছে কিনা তা আমি বলতে পারবো না।"
ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে। ভাইরাল ভিডিওটি এই ভিডিও থেকে কেটে (৫০ সেকেন্ড সময় থেকে) নেওয়া হয়েছে।

Updated On: 2020-07-27T16:44:23+05:30
Claim Review :   ভিডিও দেখায় অযোধ্যায় নির্মীয়মান রাম মন্দিরের থ্রি ডি গঠন
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story