আজতক', 'ইন্ডিয়া.কম' ভুয়ো টুইটকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের শেষ কথা বললো

ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলিতে বেশ বিছু গরমিল লক্ষ্য করেছে বুম, যা প্রমাণ করে টুইটগুলি ভুয়ো।

এক গুচ্ছ ভুয়ো টুইটারের স্ক্রিনশটে দাবি করা হয়েছে যে, অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুত টুইটার ব্যবহার করে সকলকে তাঁর মানসিক অবস্থার কথা জানাতে চেয়েছিলেন এবং "সব শেষ করে দেওয়ার" ইঙ্গিতও দিয়েছিলেন। টুইটারের সূত্র থেকে বুম নিশ্চিত হতে পেরেছে যে, টুইটের স্ক্রিনশটগুলি ভুয়ো।

স্ক্রিনশটগুলি ব্যাপক ভাবে হোয়াটসঅ্যাপে শেয়ার করা হচ্ছে এবং কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম এই মর্মে খবর করেছে যে, তাঁর মৃত্যুর কয়েক ঘন্টা আগে রাজপুত এই টুইটগুলি করেছিলেন।
'আজতক', 'ইন্ডিয়া.কম' এবং 'নিউজট্র্যাক লাইভ' সহ বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যম ওই স্ক্রিনশটগুলি সম্পর্কে খবরে মিথ্যে দাবি করে যে সেগুলি সত্যি এবং বলে সেগুলি ওই অভিনেতার শেষ টুইট।
৩৪ বছর বয়সী অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতকে ১৪ জুন ২০২০ তে মুম্বাইয়ে তাঁর ব্যান্ড্রার ফ্ল্যাটে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক অনুসন্ধানের পর মুম্বাই পুলিশ তাঁর মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে।
আজতক ভুয়ো টুইটগুলি সম্পর্কে মিথ্যে খবর করে বলে, ১৪ জুন ২০২০ তে মৃত্যুর কয়েক ঘন্টা আগে রাজপুত তিনটি টুইট করেন কিন্তু সেগুলি আবার ডিলিট করে দেন। চ্যানেলটি অবশ্য পরে টুইটটি ডিলিট করে দেয় এবং প্রতিবেদনটিও তুলে নেয়। সংবাদ ওয়েবসাইট ইন্ডিয়া.কম প্রথমে টুইটগুলি সম্পর্কে খবর করে, কিন্তু পরে তাঁদের প্রতিবেদনটির চরিত্র বদলে সেটিকে তথ্য যাচাইয়ের রূপ দেয়। তবে তাঁরা যে আগে মিথ্যে টুইটকে সত্য বলে খবর করেছিলেন, তার কোনও উল্লেখ করেন না।
ভাইরাল-হওয়া ভুয়ো স্ক্রিনশটগুলিতে দাবি করা হয়েছে যে, অভিনেতা তাঁর মানসিক স্বাস্থ্য উপেক্ষিত হওয়ার কথা টুইট করেন। তাঁর কঠিন পরিস্থিতির কথা বলেন। "সব কিছু শেষ হয়ে যাওয়ার" ইঙ্গিত দিয়ে বিদায় নিচ্ছেন বলে জানান। এবং আশা প্রকাশ করেন যে, ভবিষ্যতে নিজেদের আরও ভাল ভাবে প্রকাশ করতে পারবে লোকে। স্ক্রিনশটগুলির মধ্যে একটিতে বলা হয়েছে, "অমি কিছুক্ষণের মধ্যে এই টুইটগুলি ডিলিট করে দেব..." এই স্ক্রিনশটটিও ব্যাপক হারে শেয়ার করা হয় এবং খবর করে সংবাদ মাধ্যমগুলি। তাছাড়া, টুইটগুলি সত্যিই দেখা না যাওয়ায়, এই স্ক্রিনশটটি সত্য বলে ধরে নেওয়া হয়।
আর্কাইভ করা আছে এখানে

আজতকের ডিলিট করা টুইট

নিইজট্র্যাক লাইভ-ও ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলি সম্পর্কে খবর করে। এবং বলে যে, টুইটগুলি থেকে "আত্মহত্যার" কারণ জানা যাচ্ছে। আর্কাইভ করা আছে এখানে


ইন্ডিয়া.কম এর প্রতিবেদনের আগের সংস্করণ।

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল
ওই স্ক্রিনশটগুলি হোয়াটসঅ্যাপ আর টুইটারে ব্যাপক হারে শেয়ার করা হয়েছে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

স্ক্রিনশটগুলি সম্পর্কে জানতে চেয়ে সেগুলি বুমের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে বার্তা (৭৭০০৯০৬১১১) পাঠানো হয়।

বুম ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলি বিশ্লেষণ করে দেখে রাজপুত সেগুলি টুইট করেননি, এবং সেগুলি ভুয়ো। টুইটগুলির ছবিতে বেশ কিছু অসামঞ্জস্যতা চোখে পড়ে। তা থেকে বোঝা যায় সেগুলি জোড়াতালি দেওয়া এবং ভুয়ো।
টুইটারের এক সূত্র বুমকে জানান টুইটের ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলি ভুয়ো।
অভিনেতার টুইটার টাইমলাইন থেকে স্পষ্ট হয় যে, রাজপুত শেষ টুইট করেন ২৭ ডিসেম্বর ২০১৯। তারপর আর কোনও টুইট করেননি।

আর্কাইভ করার সরঞ্জাম 'ওয়েব্যাক মেশিন' ব্যবহার করে আমরা দেখি যে রাজপুতের টাইমলাইন ১৪ জুন ২০২০ তারিখে তিন বার আর্কাইভ করা হয়। কিন্তু যে স্ক্রিনশটগুলি সেখানে রয়েছে তাতে কোনও সাম্প্রতিক টুইট নেই, বা ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলির বয়ানের সঙ্গে মেলে, তেমন কোনও টুইটও নেই।
রাজপুতের টুইটার হ্যান্ডেল @itsSSR ব্যবহার করে আমরা এক উন্নত টুইটার সার্চও করি। কিন্তু স্ক্রিনশটটিতে উল্লেখ করা সময় ও তারিখে (সকাল ৫.৪৩, ১৪ জুন ২০২০), অভিনেতার দ্বারা ডিলিট-করা কোনও টুইটের জবাবে কোনও মন্তব্য দেখা যায় না।
১৪ থেকে ১৫ জুন ২০২০, এই সময় ধরে উন্নত সার্চ করেও তাঁর ডিলিট-করা কোনও টুইটের উদ্দেশে দেওয়া জবাব পাওয়া যায় না। এবং টুইটার হ্যান্ডেলের প্রথম উল্লেখ ছিল ১৪ জুন ২০২০ সকাল ৮.৩৮-এ।
এর পর আমরা স্ক্রিনশটগুলি বিশ্লেষণ করি। দেখা যায়, লেখা, ধরণ আর অ্যালাইনমেন্টে বিস্তর গরমিল রয়েছে। তা থেকে পরিষ্কার হয়ে যায় যে, স্ক্রিনশটগুলি ভুয়ো এবং কোনও প্রকৃত টুইটের ছবি নয় সেগুলি।
'টুইট কার্যকলাপ' দেখা যাচ্ছে
ভাইরাল স্ক্রিনশটগুলি ভাল করে লক্ষ করলে দেখা যায় যে, তাতে 'ভিউ টুইট অ্যাক্টিভিটি' বা 'টুইট কার্যকলাপ দেখুন' অপশনটি দেখা যাচ্ছে। সেটি কিন্তু কেবল যিনি টুইট করেন তিনিই দেখতে পান এবং সেটি ব্যবহার করতে পারেন। অন্য কেউ তা পারে না। তার মানে, তাঁর অ্যাকাউন্টে 'ভিউ টুইট অ্যাক্টিভিটি' অপশনটি একমাত্র রাজপুত নিজে দেখতে পেতেন, তাঁর অনুগামীরা নয়।

লেখায় গরমিল
প্রতিটি ভাইরাল স্ক্রিনশটে টুইটের যে সময় দেখানো হয়েছে, তাতে ছোট হাতের am লেখা হয়েছে, যখন টুইটার সব সময় বড় হাতের AM ব্যবহার করে। ভাইরাল স্ক্রিনশটে সময় দেখানো হয়েছে '5:43 am' হিসেবে, কিন্তু টুইটারের নিয়ম হল '5:43 AM' লেখা।
উদাহরণ নীচে।

তাছাড়া, লেখা আর প্রোফাইল ছবির অ্যালাইনমেন্টও টুইটারের নিয়মের সঙ্গে মেলে না। নীচে দেখা যাচ্ছে, ভাইরাল টুইটে (বাঁ দিকে) প্রোফাইল ছবিটা লেখার মার্জিন ছাড়িয়ে একটু বেরিয়ে গেছে। আসল টুইটে(ডান দিকে) প্রোফাইল ছবি আর লেখা একই লাইনে আছে।

এ ছাড়াও, ভাইরাল স্ক্রিনশটে কোনও 'লাইক' বা 'রিটুইট' করার অপশন নেই।
বুম আগেও বিখ্যাত ব্যক্তিদের নিয়ে ভুয়ো টুইটের স্ক্রিনশট খণ্ডন করেছে

Claim Review :   ছবির দাবি সুশান্ত সিংহ রাজপুতের শেষ কয়েকটি টুইট
Claimed By :  News Outlets
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story