ফরাসি পুলিশ কি মুসলিম অভিবাসীদের হত্যা করেছিল? একটি তথ্য যাচাই

বুম দেখে ২০১৯ সালের নভেম্বরে ব্রাজিলের ঘটনা এটি। যেখানে মাদক চোরাচালানকারীদের সঙ্গে রক্ষীদের সংঘর্ষ ঘটেছিল।

ব্রাজিলের সাও পাওলোয় মাদক পাচারকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের একটি ভিডিও জিইয়ে তুলে দাবি করা হচ্ছে, এটি ফ্রান্সে রাস্তায় মুসলিম অভিবাসীদের দাঙ্গা বাধানোর সময় ধরা পরার ছবি।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বাইক-আরোহী এক পুলিশকে এক দল উশৃঙ্খল জনতা কব্জা করে ফেলেছে এবং তাকে রক্ষা করতে অন্য পুলিশরা ছুটে আসছে। এর পরই পুলিশ জববি হামলায় জনতার উদ্দেশে গুলি চালায় এবং একজনকে গুলিবিদ্ধও করে।

১ মিনিট ৩৫ সেকেন্ডের এই ভিডিও ক্লিপটি ফেসবুক এবং টুইটারে ভাইরাল করে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে: "নতুন যেসব মুসলিম অভিবাসীকে ঢুকতে দেওয়া হয়েছিল, পুলিশ তাদের সঙ্গে লড়াই করছে। ওরা এসেই ফ্রান্সের রাস্তায় দাঙ্গা বাধাতে শুরু করেছে। ওরা শরিয়তি আইন চায় এবং মুসলিম মহল্লায় অন্যদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে চায়। ব্রিটেন এবং অন্যান্য যেসব ইউরোপীয় দেশ মুসলিম অভিবাসীদের জন্য দরজা খুলে দিয়েছে, ভবিষ্যতে সেখানেও একই পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে। ফরাসি পুলিশের অন্তত তাদের গুলি করার অধিকারটা রয়েছে।…"

ভিডিওটি অস্বস্তিকর।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী তুমুল প্রতিবাদ-আন্দোলনের প্রেক্ষিতে এই ভিডিওটিকে ভাইরাল করা হয়েছে। অনেকগুলি টুইটে নয়াদিল্লির একটি পুরনো ঘটনার প্রসঙ্গও টেনে আনা হয়েছে যেখানে ট্রাফিক আইন ভাঙার দায়ে পুলিশ কিছু লোককে ধরায় তারা পুলিশের উপর সমবেতভাবে চড়াও হয়েছিল। টুইটগুলিতে ফ্রান্সের আইনের উল্লেখ করে সেখানে আইনভঙ্গকারীদের গুলি করার অধিকারকে ভারতের আইনি ব্যবস্থার সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে।

টুইটগুলিতে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে: "সাবধান ভারত! ফরাসি পুলিশের একটি দল যখন মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের দ্বারা আক্রান্ত হয়, তখন তারা পাল্টা জবাব দেয় এবং গুলি করে একজনকে হত্যাও করে। আক্রান্ত হলে ওদের গুলি করে আক্রমণকারীদের হত্যা করার অধিকার রয়েছে, কিন্তু এখানে? দিল্লিতে একটা চালানকে কেন্দ্র করে মুসলিম জনতা দুজন পুলিশকে পেটালো, পুলিশ পালিয়ে নিজেদের প্রাণ বাঁচালো!"

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম তার হেল্পলাইন নম্বর (৭৭০০৯০৬৫৮৮) -এও এই ভিডিওটি পেয়েছে।

তথ্য যাচাই

মূল কয়েকটি ফ্রেমে ভিডিওটিকে ভেঙে সেগুলির খোঁজ চালিয়ে বুম দেখেছে, এই ভিডিও ব্রাজিলের বেশ কয়েকটি সংবাদপত্রের প্রতিবেদনের সঙ্গে প্রকাশিত হয়েছে। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী ঘটনাটি গত বছরের নভেম্বরে ব্রাজিলের সাও পাওলোর। যখন মাদক পাচারকারী একটি দলের সঙ্গে রক্ষীদের সংঘর্ষ বাধে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সাও পাওলোর ক্র্যাকোলান্ডিয়া এলাকায় মেট্রোপলিটন সিভিল গার্ডের রক্ষীদের সঙ্গে এলাকার মাদক পাচারকারী দলের সংঘর্ষ হচ্ছে।
বি-নিউজের রিপোর্টে ঘটনাটির বর্ণনা করা হয়েছে যে, একজন মাদক পাচারকারী এক রক্ষীর মোটরসাইকেলোর পিছু নেয়। তারপর সে রক্ষীকে কব্জা করে ফেলে তার বন্দুক কেড়ে নেয় এবং রক্ষীকে তা দিয়ে গুলিও করে। এর পরেই অন্যান্য রক্ষীরা হাজির হয়ে পাচারকারীকে তাড়া করে এবং তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলিও চালায়। শেষ পর্যন্ত একজন রক্ষীই তাকে ধরে ফেলে। এই ব্যাপারে অন্য একটি প্রতিবেদন
এখানে
দেখা যেতে পারে।
মিউনিসিপ্যাল পুলিশও তাদের ফেসবুক পেজে একই ভিডিও শেয়ার করেছে।

Updated On: 2020-01-27T12:20:07+05:30
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.