কোভিড-১৯ এর মৃত্যুর জেরে ইতালিয়রা কী রাস্তায় তাদের টাকা ছুড়ে ফেলছে?

ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি ২০১৯ সালের মার্চ মাসে তোলা হয়েছিল ভেনিজুয়োলায়, যখন দুর্বৃত্তরা বাতিল টাকা ছড়িয়েছিল।

সোশাল মিডিয়ায় রাস্তায় ছড়ানো টাকার ছবি শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে ইতালিতে মানুষজন হতাশ হয়ে রাস্তায় টাকা ছড়িয়ে দিয়েছেন। ইতালিতে কোভিড-১৯'এ ইতিমধ্যে মারা গেছেন ১২, ৪২৮ জন, সেরে উঠেছেন ১৫, ৭২৯ জন। ভুয়ো পোস্টগুলিতে দাবি করা হয়েছে, এই মত্যু দেখে হতাশার জেরেই নাকি ইতালির নাগরিকরা তাদের টাকা ছুঁড়ে ফলে দিচ্ছেন।

ভাইরাল হওয়া পোস্টগুলিতে তিন ধরণের ছবি দেখা যাচ্ছে। প্রথম ছবিতে গাড়ির সামনের চাকা দেখা যাচ্ছে, সেখানে রাস্তার কিনারা বরাবার টাকা ছড়িয়ে রয়েছে। দ্বিতীয় ছবিতে সারা রাস্তা জুড়ে ছড়ানো রয়েছে টাকা। ছবিটিতে কয়েকজন লোককে অবিচল ভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। তৃতীয় ছবিটিতে বাড়ির উপর থেকে তোলা। ওই ছবিতেও রাস্তায় ছড়িয়ে রয়েছে নোট।

বুম খুঁজে পেয়েছে রাস্তাজুড়ে নোট ছড়িয়ে থাকার ছবিগুলি আসলে ভেনেজুয়েলার মেরিদুহ নামক একটি শহরের। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে দুর্বৃত্তরা ব্যাঙ্ক লুটপাটের পর বাতিল টাকা রাস্তায় ছড়িয়ে দিয়েছিল।

ফেসবুক পোস্টে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "ইতালিয়ানরা রাস্তায় টাকা ছড়িয়ে দিয়ে সারা বিশ্ববাসীর কাছে বার্তা দিল, টাকা জীবনের সব কিছু নয়। যে টাকা নিজের আপনজনদের বাঁচাতে পারে নি সেই টাকা রেখে কি লাভ।"

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্তটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ছবিগুল ফেসবুক ও টুইটারে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুক পোস্টগুলি ইংরেজিতেও একই বয়ানে শেয়ার করা হয়েছে।

টুইটার সার্চের ফলাফল।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: না, এটি প্রয়াত পাকিস্তানি চিকিৎসক ওসামা রিয়াজের শেষ ভিডিও বার্তা নয়

তথ্য যাচাই

বুম উপরের একটি ছবি দিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে ভেনেজুয়েলার একটি স্থানীয় গণমাধ্যম 'মাদুরাদাস'-এ ১২ মার্চ ২০১৯ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের হদিস পায়। এই প্রতিবেদনে ভেনেজুয়েলার মেরিদুহ শহরে দুর্বৃত্তদের ব্যাঙ্ক লুঠতরাজের কথা বলা হয়েছে আর রাস্তায় ছড়িয়ে থাকা নোটগুলি সেদেশে ২০১৮ সালে হওয়া নোটবাতিলের অচল টাকা। এই প্রতিবেদনে বেশ কয়েকটি রাস্তায় ছড়ানো নোটের ছবি দেখা যায়। আর সেগুলিই এখন ইতালির রাস্তায় ছড়ানো টাকা বলে ভাইরাল হয়েছে।


বিগত কয়েক বছর থেকে লাতিন আমেরিকার এই রাষ্ট্র ভেনেজুয়েলা তীব্র অর্থনৈতিক অনটন ও রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। সিএনএন-এর প্রতিবেদন অনুসারে ২০১৮ সালের শুরুতে মুদ্রাস্ফীতিরে জেরে অর্থনীতি তলানিতে পৌছালে দেশটি নোটবাতিল করতে বাধ্য হয়। নিকোলাস মাদুরোর নেতৃত্বাধীন সরকার পুরনো নোট বাতিল করে 'বলিভার সবেরানো' নামে নতুন নোট চালু করে।

এই ছবিগুলি আগে ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের রাস্তায় টাকা ছুঁড়ে ফেলে দিচ্ছে বলে মিথ্যে দাবি করা হয়েছিল। তথ্য-যাচাইকারী সংস্থা স্নোপস সেসময় ভুয়ো খবরটিকে খণ্ডন করে।

আরও পড়ুন: বাদুড়-সঙ্গমে মানুষের মধ্যে ছড়ায় কোভিড-১৯ দাবির মূলে একটি ভুয়ো ওয়েবসাইট

Updated On: 2020-04-01T21:41:10+05:30
Claim Review :  কোভিড-১৯ এর প্রকোপে ইতালির নাগরিকরা হতাশ হয়ে রাস্তায় টাকা ছুঁড়ে ফোলছে
Claimed By :  Facebook Posts & Twitter users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story