না, এটি প্রয়াত পাকিস্তানি চিকিৎসক ওসামা রিয়াজের শেষ ভিডিও বার্তা নয়

ব্রিটেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগীর ভিডিওকে মিথ্যে করে পাকিস্তানে কোভিড-১৯'এ মৃত তরুণ চিকিৎসকের সঙ্গে জোড়া হল।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক ব্রিটিশ রোগীর ভিডিও প্রয়াত পাকিস্তানি চিকিৎসক ওসামা রিয়াজের বলে ভুল ভাবে প্রচার করা হল। এই ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

ডাক্তার ওসামা রিয়াজ প্রথম পাকিস্তানি চিকিৎসক, যিনি কোভিড-১৯'এ আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। তিনি গিলগিট-বালুচিস্তান অঞ্চলে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার সময় এই রোগে আক্রান্ত হন।

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে, ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে, তিনি ডাক্তার ওসামা রিয়াজ নন, তিনি ডাক্তার মুবাশির আহমেদ। ওসামা রিয়াজ রবিবার মারা যান। ডাক্তার আহমেদেরও করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছিল, তবে তাঁকে খুব শীঘ্রই ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

ভিডিওটির ক্যপশনে লেখা হয়েছে, "আপনাদের জন্য ডাক্তার অসামা রিয়াজের শেষ বার্তা (তাঁর মৃত্যুর ঠিক আগে) অন্তত এখন পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝুন। নিজের বাড়ি থেকে বেরবেন না।"

(হিন্দিতেঃ डॉ उसामा रियाज़ का आखिरी मैसेज (अपनी आखिरी सांस लेते हुए) आपके लिए। अब तो समझ जाइये! घर से बाहर मत निकलिए।)

ভাইরাল হওয়া ক্লিপটিতে এক ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে আছেন, তাঁর মুখে মাস্ক পরা রয়েছে এবং তাঁর কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে। তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে, "আমি আজ একটু ভাল আছি তাই আমি ভাবলাম আপনাদের সবাইকে সালাম জানাই। এই ভাইরাসকে খুব গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়ার জন্য আমি আপনাদের কাছে আবেদন করছি। আজ আমি অনেকটাই ভাল আছি। এই ভাইরাসটি খুব খারাপ একটা ভাইরাস। খাবার আর মুদিখানার জিনিসের পিছনে দৌড়াবেন না। আপনার বন্ধু, পরিবার এবং সমাজের জন্য এটিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখুন। ঈশ্বরের দোহাই, আপনাদের প্রিয়জনের যত্ন নিন। যদি এই অসুখের লক্ষণ থাকে তবে বাড়িতে থাকুন। যদি তা না হয় তবে এক জন চিকিৎসকের কাছে যান অথবা করোনাভাইরাসের জন্য দেওয়া নিয়মাবলি পালন করুন। এটিকে মজা হিসাবে নেবেন না। সোশাল মিডিয়ায় লোকে এটি নিয়ে মজা করছে। কিন্তু এই বিষয়টি নিয়ে তা করা উচিত নয়। আজ আমি অনেক ভাল আছি, আল্লাহকে ধন্যবাদ।
আপনার বন্ধু, পরিবার এবং সমাজের শিশুদের যত্ন নেওয়ার জন্য আমি আপনাদের কাছে আবেদন করছি। সৌভাগ্যবশত আমি এখানে ছিলাম তাই ভালো চিকিৎসা পেয়েছি। আমি এখনও হাসপাতালে আছি। দয়া করে এই ভিডিওটি শেয়ার করুন এবং মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করুন।"।

এই একই ক্যাপশনের সঙ্গে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যপক ভাবে শেয়ার করা হয়েছে। কিছু ভিডিওতে ডাক্তার ওসামা রিয়াজের নাম ভুল বানানে উসমান এবং উসামা লেখা হয়েছে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নীচে দেখতে পাবেন এবং ভিডিওটি আর্কাইভ করা আছে এখানে, এখানেএখানে

পাকিস্তানি চিকিৎসক ওসামা রিয়াজ গিলগিটে রোগীদের চিকিৎসা করতে গিয়ে এই ভয়াবহ করোনাভাইরাসের সংস্পর্শে আসেন। এই তরুণই প্রথম পাকিস্তানি চিকিৎসক যিনি কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান। মার্চ মাসের ২২ তারিখ তিনি মারা যান।

দ্য ট্রিবিউনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে লেখা হয়, "গিলগিট-বালুচিস্তান পাকিস্তান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন রিয়াজের মৃত্যুতে তাদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে এবং চিকিৎসকদের সমস্যা অবহেলা করার জন্য সরকারকে দোষারোপ করেছে।"

একই দাবির সঙ্গে এক ব্যক্তির ছবি দিয়ে অন্য একটি পোস্টও ভাইরাল হয়েছে। ছবির সঙ্গে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে 'দিল্লির চিকিৎসক উসমান রিয়াজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন। তিনি ভারতের প্রথম চিকিৎসক যাঁর করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে। তাঁর জন্য আমাদের সমবেদনা রইল।'

বুম এই ব্যক্তিকে ডাক্তার রিয়াজ উসমান হিসাবে শনাক্ত করেছে। তিনি দুবাই-এর এক জন চিকিৎসক।

(হিন্দিঃ दिल्ली के डाँ उस्मान रियाज साहब करोना पीडि़त का इलाज करतें करतें आज खुद जिदंगी की जंग हार गए | भारत में करोना से मरने वालें पहलें डॉ उस्मान रियाज़ जी | भावपूर्ण श्रद्धांजलि |)

ভি়ডিওটি নীচে দেখতে পাবেন এবং পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম ডাক্তার ওসামা রিয়াজের মৃত্যুসংক্রান্ত বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদন অনুসন্ধান করে। বেশির ভাগ প্রতিবেদন থেকে জানা যায় গত শুক্রবার অর্থাৎ ২০ মার্চ রাতে তাঁকে অচেতন অবস্থায় কম্বাইন্ড মিলিটারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গিলগিটের জেলা সদর হাসপাতালে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয়। গিলগিটের জেলা সদর হাসপাতালে তাঁকে ভেন্টিলেশন দেওয়া হয়। পরে রবিবার সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এবং দ্যনিউজ ডাক্তার রিয়াজের মৃত্যু বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।


ভাইরাল হওয়া ক্লিপটিতে ওই রোগীকে বলতে শোনা যাচ্ছে, "সৌভাগ্যবশত আমি এখানে ছিলাম এবং ভাল চিকিৎসা পেয়েছি। আমি এখন অনেকটাই ভাল আছি।" বুম দেখেছে এই ভাইরাল হওয়া একই ক্লিপ ২২ মার্চ ইউটিউবে আপলোড করা হয়। ওই দিনই ডাক্তার রিয়াজের মৃত্যু হয়।

বুম ডাক্তার রিয়াজের একটি ভিডিও দেখে এবং দেখতে পায়, ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে ডাক্তার রিয়াজকে সে রকম দেখতে নয়। ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে, 'সমস্যাটা কী, আমরা তা দেখব। যদি তাঁদের (রোগীদের) পরবর্তী চিকিৎসার দরকার হয়, আমরা তাঁদের ডিএইচকিউ-গিলগিট বা শহরে নিয়ে যাব। যদি এখানে তাঁদের চিকিৎসা করা সম্ভব হয়, তবে এখানে তাঁদের চিকিৎসা হবে।' ওই চিকিৎসককে সাধারণ মাস্ক পরে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

নীটে ভিডিওটি দেখুন।

বুম তারপর ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিকে ডাক্তার রিয়াজের শেষ বার্তা বলে যে সব টুইট করা হয়েছে, তার কমেন্ট দেখে।

এই সব কমেন্টের একটিতে বলা হয়, ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে, তিনি প্রয়াত চিকিৎসক নন—তিনি মুবাশির নামের এক ব্যক্তি। টুইটটিতে মুবাশিরের ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশটও দেওয়া হয়।

এই টুইটটির সূত্র ধরে বুম মুবাশির আহমেদের ফেসবুক প্রোফাইল দেখে এবং আমরা জানতে পারি ২০২০ সালের ২২ মার্চ এই ভিডিওটি তাঁর টাইমলাইনে শেয়ার করা হয়।

নীচে এই ভিডিওটি দেখতে পাবেন।

২৫ মার্চ মুবাশির আহমেদ আর একটি ভিডিও পোস্ট করেন, যাতে তিনি যে ভুয়ো পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে সে সম্পর্কে পরিষ্কার ভাবে জানান।

ড আহমেদ তাঁর পোস্টে লিখেছেন, "আমকে যাঁরা প্রয়াত ডাক্তার উসামা রিয়াজ বলে ভুল করছেন, তাঁদের ভ্রান্তি দূর করার জন্য এই পোস্ট। আমার নাম ডাক্তার মুবাশির আহমেদ, আমি পাকিস্তানের মর্দানের লোক, তবে এখন ব্রিটেনের বাসিন্দা। ভারত, বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের বহু মানুষ— তাঁদের মধ্যে বহু বিখ্যাত লোক এবং পার্লামেন্টের সদস্যরাও রয়েছেন— তাঁরা আমার অনুমতি ছাড়াই ভিডিওটিকে ডাক্তার রিয়াজের মৃত্যুর আগে জাতির উদ্দেশে বার্তা বলে আমার ভিডিও শেয়ার করেছেন। এ ছাড়া এই অতিমারির সময় আমি মানুষকে শান্ত থাকতে বলব এবং আমাদের সমাজের দুর্বল মানুষদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার জন্য আবেদন করব।"

ডঃ আহমদের ভিডিওটি নীচে দেখতে পাবেন।

তিনি বুধবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

Updated On: 2020-04-01T10:37:24+05:30
Claim Review :  ভিডিও সহ পোস্টের দাবি এটি পাকিস্তানের প্রয়াত ডাক্তার ওসামা রিয়াজের শেষ ভিডিও যিনি করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হন রোগীদের চিকিৎসা করতে গিয়ে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story