যশোদাবেন মোদী কি শাহিনবাগে সিএএ-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন?

ছবিটি আসলে ২০১৬ সালের। যশোদাবেন মোদী তখন মুম্বইয়ে বস্তি উচ্ছেদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে শামিল হয়েছিলেন।

সোশাল মিডিয়ার পোস্টে যশোদাবেন মোদীর একটি ছবিতে বিভ্রান্তিকর ভাবে দাবি করা হয়েছে যে, তিনি নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে শাহিনবাগে মহিলাদের প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন। এই দাবি বিভ্রান্তিকর কারণ ছবিটি ২০১৬ সালের এবং সাম্প্রতিক প্রতিবাদের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে যশোদাবেন একদল মহিলার সঙ্গে বসে আছেন এবং দেখে মনে হয় এটি কোনও প্রতিবাদসভা। প্রধানমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে নেতিবাচক মজার ক্যাপশন দিয়ে ছবিটি ফেসবুক ও টুইটারে ভাইরাল হয়েছে।

''ভক্ত তোমার মা যশোদা মোদী শাহিনবাগ প্রতিবাদে পয়সা নিতে পৌছে গেছে। কিন্তু তোমার বাবা মোদীজি কবে শাহিনবাগে আসবে।'' (মূল হিন্দিতে ক্যাপশন: "भक्तो तुम्हारी अम्मा यसोदा मैया भी #ShaheenBaghProtest पहुंच गई पैसे लेने ...🧐 लेकिन तुम्हारे पप्पा #मोदीजी_शाहीनबाग_कब_आओगे")

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
বুম তার হেল্পলাইন নম্বরে (৭৭০০৯০৬৫৮৮) এই একই ছবি পেয়েছে যাচাইয়ের জন্য।

যশোদাবেন মোদী এক জন অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষিকা। তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্ত্রী, তবে তাঁরা এক সঙ্গে থাকেন না।

২০১৯ সালের ১৫ ডিসেম্বর থেকে শাহীনবাগে সিএএ, এনআরসি এবং এনপিআর-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলছে। এই প্রতিবাদে মূলত মহিলারা শামিল হয়েছেন। দিল্লি পুলিশ জামিয়া মিলিয়া ছাত্রদের উপর পুলিশি আক্রমণের পরই এই প্রতিবাদ শুরু হয়। জামিয়া মিলিয়ার ছাত্ররা নতুন নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছিলেন।

তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে এবং দেখতে পায় যে ছবিটি যথেষ্ট পুরানো। ২০১৬ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি ডেকান ক্রনিকলে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আমরা এই ছবিটি দেখতে পাই। সেই প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, " নরেন্দ্র মোদীর স্ত্রী অনাথ ও ফুটপাথবাসীদের জন্য অনশন করছেন।"

প্রতিবেদনে ছবিতের ক্যাপশনে লেখা হয়, "আজাদ ময়দানে বর্ষাকালে বস্তি উচ্ছেদের প্রতিবাদে অনশনরত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্ত্রী যশোদাবেন মোদী। (ফোটো ডিসি)"


ডেকান ক্রনিকেলের প্রতিবেদন অনুসারে সভায় সংবাদমাধ্যমের অনুরোধে যশোদাবেন গুজরাটিতে বলেন, "আমি অনাথ শিশু, গৃহহীন ও বস্তীবাসীদের জন্য কাজ করতে চাই। বস্তিগুলি ভাঙ্গা উচিত নয়। আমি তাদের জন্য আজ অনশন করছি। আমি সামাজিক দাবির পক্ষে কাজ করতে চাই।"

আমরা দ্য হিন্দুতে প্রকাশিত অন্য একটি প্রতিবেদন দেখতে পাই। এই প্রতিবেদনে এই একই সভার ভিন্ন অ্যাঙ্গেল থেকে নেওয়া অন্য একটি ছবি দেওয়া হয়।

Updated On: 2020-01-24T20:29:35+05:30
Claim Review :  শাহিনবাগে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে যশোদাবেন প্রতিবাদ করছেন
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story