সিপিআই-এম ভারতের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে, ছবিগুলি সম্পাদিত

বুম দেখে সীতারাম ইয়েচুরি ও বৃন্দা কারাতের গলায় ঝোলানো প্ল্যাকার্ডগুলি কারসাজি করে বদলে দেওয়া হয়েছে।

সোশাল মিডিয়াতে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে মার্কসবাদী কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিআই-এম) নেতা সীতারাম ইয়েচুরি ও বৃন্দা কারাত ভারতীয় সেনাবাহিনী বিরোধী প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন।

বুম দেখে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের ভারত-বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে সিপিআই(এম) ১৬ জুন প্রতিবাদ করে।
ইয়েচুরি আর কারাত যে প্ল্যাকার্ড ধরে আছেন, সেগুলি পাল্টে দেওয়া হয়েছে। সেগুলির আসল বয়ানের জায়গায় সম্পাদনা করে বসানো হয়েছে, "ভারতীয় সেনা নিপাত যাক...নিপাত যাক, আমরা চিনকে সমর্থন করি...জিন্দাবাদ"। বুম দেখে, ইয়েচুরি যে প্ল্যাকার্ডটি ধরে আছেন, সেটিতে আসলে লেখা ছিল, "আয়করের বাইরে যাঁরা, তাঁদের অবিলম্বে তিন মাস ধরে প্রতি মাসে ৭৫০০ টাকা দিতে হবে।" কারাটের প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, "প্রতিটি দরিদ্র ব্যক্তিকে ছ'মাস ধরে প্রতি মাসে বিনামূল্যে ১০ কেজি খাদ্যশস্য দিতে হবে।"
সম্পাদনার মাধ্যমে জোড়াতালি দেওয়া ওই ছবিগুলির সঙ্গে হিন্দিতে মিথ্যে দাবি করে বলা হয়েছে, "এই বামপন্থী বিশ্বাসঘাতকদের শনাক্ত করুন। একজন হলেন বৃন্দা কারাট আর অন্যজন সীতারাম ইয়েচুরি। এই নির্লজ্জ বামপন্থীরা ১৯৬২ তেও চিনের পক্ষে দাঁড়িয়ে ছিল আর আজও এই নির্লজ্জ লোকেরা ভারতীয় সেনাবাহিনীকে হেয় করছে।"
(হিন্দিতে লেখা হয়: पहचानो इन देशद्रोही झामपंथी गद्दारों को एक वृंदा_करात है और दूसरा सीताराम_येचुरी इन दोगले झामपंथियों ने 1962 में भी इसी तरह #चीन का साथ दिया था। और आज भी ये निर्लज्ज भारतीय #सेना को नीचा दिखा रहे हैं।)
ভারত আর চিনের মধ্যে বাড়তে থাকা উত্তেজনার মধ্যে এই ছবিগুলি ভাইরাল হয়েছে। ১৫ জুন রাতে, পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারত আর চিনের সেনাদের মধ্যে সীমান্ত বিরোধ চরমে ওঠে। দুই পক্ষের মধ্যে এক বর্বরোচিত সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা প্রাণ হারান। চিনের হতাহতের সংখ্যা এখনও প্রকাশ্যে আসেনি। এখানে পড়ুন।
পোস্টগুলি নীচে দেখা যাবে। সেগুলির আর্কাইভ সংস্করণ দেখা যাবে এখানেএখানে

ইয়েচুরি আর কারাতের ছবি সমেত এরকমই এক মিথ্যে প্রচারকে নস্যাৎ করেছিল বুম। কিন্তু সেই সময় ছবিগুলি সম্পাদনা করে বদলে দেওয়া হয়নি।
সিপিআই-এম এর নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডেল আসল ছবিগুলি পোস্ট করেছিল। কিন্তু সেগুলি জোড়াতালি দিয়ে বদলে ফেলা হয়। সরকারের বেশ কয়েকটি নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতেই ওই বিক্ষোভ দেখানো হয়। সিপিআই(এম) মনে করে ওই নীতিগুলি শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষের স্বার্থের পরিপন্থী। ওই বিক্ষোভ প্রদর্শন সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ছিল না, যেমনটা দাবি করা হয়েছে ভাইরাল পোস্টগুলিতে।
আসল মেসেজটি সিপিআই-এম এর টুইটার হ্যান্ডেল থেকে পোস্ট করা হয়। তাতে লেখা ছিল, "মোদী সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে সারা-ভারত প্রতিবাদ কর্মসূচি। #পিপলপ্রোটেস্টমোদীগভরনমেন্ট।"
১৫ জুন আয়োজিত হয় ওই সর্বভারতীয় প্রতিবাদ কর্মসূচি। কমিউনিস্ট পার্টি অফ ইন্ডিয়া (মার্ক্সিস্ট)-এর যাচাই-করা ফেসবুক পেজে ওই বিক্ষোভ সরাসরি দেখানো হয়। ক্যাপশনে বলা হয়, "মোদী সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে সর্বভারতীয় প্রতিবাদ। সাধারণ সম্পাদক কম: সীতারাম ইয়েচুরি অন্যান্য কমরেডদের সঙ্গে দিল্লিতে একেজি ভবনের সামনে মোদী সরকারের বিধ্বংসী নীতির প্রতিবাদ করছেন।"
ওই ঘটনার আসল ও সম্পাদনা করে বদলে দেওয়া ছবিগুলি তুলনা করা হয়েছে নীচে।

আসল এবং সম্পাদিত ছবির মধ্যে পার্থক্য পরিষ্কার



Updated On: 2020-06-24T13:59:48+05:30
Claim :   ছবি দেখায় সিপিয়াই-এম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি ও বৃন্দা কারাত ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.