শিখ ব্যক্তির ছদ্মবেশে এক মুসলিম এই মিথ্যে দাবিতে ছাড়াল ভুয়ো ছবি

বুম একটি ভিডিও পেয়েছে সেখানে ওই ব্যক্তির স্পষ্ট গোঁফ দেখা যায়।

ডিজিটাল পদ্ধতিতে বদলে ফেলা এক পাগড়ি-পরা ব্যক্তির ছবি মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করে বলা হচ্ছে ওই গোঁফ কামানো ব্যক্তি আসলে শিখের ছদ্মবেশে কৃষক আন্দোলনে যোগ দেওয়া এক মুসলিম।

ভাইরাল ছবিটিতে এক ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে যাঁর মাথায় পাগড়ি আছে, মুখে দাড়ি আছে, অথচ গোঁফ কামানো। কিন্তু বুম একটি ভিডিওর হদিস পেয়েছে যেখানে ওই ব্যক্তিকেই গোঁফ সমেত দেখা যাচ্ছে।
বর্তমান কৃষক আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে স্ক্রিনশটটি ভাইরাল হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন কৃষি বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে পঞ্জাব ও হরিয়ানা থেকে কয়েক হাজার কৃষক দিল্লি গিয়ে পৌঁছেছেন এবং আরও অনেকে এখনও রাজধানীর দিকে চলেছেন।
ছবিটি একটি অবমাননাকর ক্যাপশন সমেত শেয়ার করা হচ্ছে। এই ছবি সহ একটি ফেসবুক পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "গোঁফ বিহীন সর্দার-ও আছে, কিষান আন্দোলন না হলে একথা জানতে পারতাম না...!!!"
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে, আর্কাইভ করা আছে এখানে
অপর একটি পোস্টে হিন্দিতে লেখা ক্যাপশনটি অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, "গোঁফ ছাড়া এক 'চুসলমান' সর্দার।" (হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: बिना मूछों वाला चूसलमान सरदार)
পোস্ট দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে

পোস্ট দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে
ফেসবুকে ভাইরাল
মিথ্যে দাবি সমেত ওই একই সম্পাদনা-করা ছবি ফেসবুকেও শেয়ার করা হচ্ছে।

তথ্য যাচাই

বুম দেখে যে, ছবিটি কারসাজি করে তৈরি করা হয়েছে। যে আসল ফুটেজটি থেকে স্ক্রিনশটটি নেওয়া হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে যে, প্রবীণ শিখ ব্যক্তির মুখে গোঁফ রয়েছে।
একটি ফেসবুক পোস্টের ওপর এক মন্তব্যে বলা হয়েছে যে, ছবিটি ভুয়ো। তাতে একটি ফেসবুক লাইভের উল্লেখ করা হয়। তাতে ওই ব্যক্তিকে গোঁফ সমেতই দেখা যাচ্ছে। ওই ফেসবুক ব্যবহারকারী ফেসবুক পেজ 'Hindustan LIVE Farhan Yahiy'-এর উল্লেখ করেন। সেটিতে ২৯ নভেম্বর ২০২০ তে তোলা ৩৩ মিনিটের একটি ভিডিও রয়েছে এবং তাতে ওই ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওটিতে বিক্ষোভকারীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন একজন। তিনি জানান যে, সাক্ষাৎকারগুলি নেওয়া হচ্ছে বুরারির নিরাঙ্কারি ময়দানে। সেটি হল দিল্লির সিঙ্গলু সীমান্তের কাছে, যেখানে কৃষকরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। তিনি আরও জানান যে, শিখ ছাড়াও মুসলমান সম্প্রদায়ের কিছু মানুষও সেখানে রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে আম আদমি পার্টির এমএলএ আমানাতুল্লাহ খান আবদুল রহমানও আছেন। এবং তাঁদেরকে দেখানো হয় ভিডিওতে।
৭.২৭ মিনিটের মাথায় আমরা ভাইরাল ছবির লোকটিকে গোঁফ সমেতই দেখতে পাই।
ভিডিওটিতে দেখা যায় লোকটির মুখে গোঁফ রয়েছে, কিন্তু ভাইরাল ছবিটিতে তা মুছে দেওয়া হয়।

বর্তমান কৃষক আন্দোলন সংক্রান্ত ভুয়ো খবর বুম আগেও খণ্ডন করেছে।
Claim Review :   ছবি দেখায় শিখ সম্প্রদায়ের ছদ্মবেশে গোঁফ কামানো এক মুসলিম কৃষক বিক্ষোভে এসেছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story