মিথ্যে: প্রধানমন্ত্রী মোদীর রাত ৯ টায় ৯ মিনিট সংহতির আলোকিত ভারতের ছবি

বুম খুঁজে পেয়েছে ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি সম্পাদিত এবং মহাকাশ থেকে তোলা ছবি নয়। নাসা এই ধরণের কোনও ছবি প্রকাশ করেনি।

সোশাল মিডিয়ায় একটি ভাইরাল হওয়া বিশ্ব মানচিত্রের গ্রাফিক ছবি ছড়িয়ে দাবি করা হয়েছে, সেটি ৫ ই এপ্রিল ২০২০ রবিবার রাতের ছবি। ছবিটি এই প্রেক্ষিতে ছড়ানো হচ্ছে যখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেদনে সারা দিয়ে রবিবার রাত ৯ টায় ৯ মিনিট বাড়ির আলো নিভিয়ে তেলের প্রদীপ ও মোমবাতি জ্বালিয়ে ভারতে কোভিড-১৯ মোকাবিলার সংহতি জানানো হয়েছে।

ভাইরাল পোস্টের ছবিটিতে বিশ্বের মানচিত্রের মধ্যে শুধু ভারতকে উজ্বল আলোকিত অবস্থায় দেখা যাচ্ছে এবং দাবি করা হয়েছে ছবিগুলো স্যাটেলাইট থেকে তোলা।

এই ছবি সহ ফেসবুক পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "ঐতিহাসিক মুহূর্ত। নরেন্দ্র মোদির ডাকে সারা দিল গোটা দেশ। দেখুন স্যাটেলাইট চিত্র।"

পোস্ট দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

একই ধরনের ছবি সহ ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া অন্য আরেকটি ফেসবুক পোস্টের ক্যাপশনে দাবি করা হয়েছে ছবিটা নাসা থেকে তোলা। ক্যাপশনে লেখা আছে, " রাত ৯.০৬ নাসা থেকে তোলা ভারতের ছবি। এক অনন্য অভূতপূর্ব অনুভূতির সাক্ষী হয়ে থাকল ১৩০ কোটি দেশবাসী।"

পোস্ট দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে একই ক্যাপশনে ভাইরাল হওয়া পোস্টগুলি দেখা যাবে এখানে

টুইটারেও হিন্দি ক্যাপশনের সাথে একইরকম গ্রাফিক ছবি পোস্ট করা হয়েছে এবং টুইটে লেখা আছে, "বিশ্ব যখন জুবুথুবু হয়ে আছে, ভারত তখন ঝলমলে, এই ছবি এটাই বর্ণনা করে।"

(মূল হিন্দি ক্যাপশন: ''विश्व जब डगमगा रहा था ! हिंदुस्तान जगमगा रहा था !! आज की तस्वीर यही बयां कर रही है")

টুইটটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

টুইটারে বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনও এই ভুয়ো ছবিটি কোট করে টুইট করেছেন, "বিশ্ব আমাদের দেখছে। আমরা সবাই এক।"

আরও পড়ুন: না, মাস্ক বিক্রি করা বাচ্চা ছেলের এই ভাইরাল ছবিটি কাশ্মীরের নয়

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখছে আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা এবং ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো কোনও ছবি প্রকাশ করেনি। ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি কৃত্রিমভাবে সম্পাদনা করে তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়াও ভাইরাল হওয়া আরেকটি ছবি ৫ এপ্রিল ২০২০ রবিবার রাতে ৯ টার আগেই রসিকতা করে শেয়ার করা হয়েছিল।

ভাইরাল হওয়া এই ছবিটি হায়দরাবাদের একটি বিজ্ঞাপন সংস্থা অ্য়াডমায়ার আইবিএস-এর প্রচারের অঙ্গ ছিল বলে দাবি করেছে। এই ছবিটির ভাবনা তাদেরই মস্তিস্কপ্রসূত বলে দাবি করেছে সংস্থাটি।

নাসার গডডার্দ ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল রাতের আকাশের বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছিল নাসার ওয়েবসাইটের সেই ছবিগুলি দেখা যাবে এখানে। এই ছবিগুলির সঙ্গে ভাইরাল ছবিগুলি মেলে না।

আগে একবার ২০১৫ সালের ১২ নভেম্বর নাসা টুইট করে জানিয়েছিল দেওয়ালির রাতে ভারতের ছবি বলে ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি ভুয়ো।

Updated On: 2020-04-07T12:30:41+05:30
Claim Review :  ছবির দাবি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সংহতি জানাতে রবিবার ৫ এপ্রিল ২০২০ রাত ৯ টায় ৯ মিনিটে আলোকিত ভারতের স্যাটেলাইট মানচিত্র
Claimed By :  Facebook Posts & Twitter users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story