"আমাকে ঘৃণা করো, কিন্তু জার্মানিকে নয়": ভাইরাল হিটলারের ভিডিওর অংশটি বিভ্রান্তিকর

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে, ক্লিপটিতে যে সাবটাইটল আছে, তাতে হিটলারের বক্তব্যের যথার্থ প্রতিফলন ঘটেনি।

অ্যাডলফ হিটলারের জার্মান ভাষায় এক বক্তৃতা থেকে তুলে নেওয়া ১৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও মিথ্যে এবং বিভ্রান্তিকর সাব-টাইটেলের সঙ্গে শেয়ার করা হচ্ছে।

ভিডিওটির সঙ্গে যে সাবটাইটেল যোগ করা হয়েছে, তার ফলে অনেক দর্শকই এই বক্তৃতাটির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাম্প্রতিক বক্তৃতার তুলনা করতে পারেন।

ভাইরাল হওয়া ক্লিপটিতে দেখা যাচ্ছে, হিটলার জার্মান ভাষায় খুব জোরের সঙ্গে বক্তৃতা দিচ্ছেন। সঙ্গের সাবটাইটেলে লেখা রয়েছে, "আমি জানি কারা আমাকে ঘৃণা করছে। তোমাদের ইচ্ছে হলে আমাকে ঘৃণা করো, কিন্তু জার্মানিকে ঘৃণা কোরো না।"

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দিকে ইঙ্গিত করে অনেক টুইটার ব্যবহারকারী এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। এদের চলচ্চিত্র পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও আছেন।


প্রধানমন্ত্রী মোদী ২০১৯ সালের ২২ ডিসেম্বর রবিবার রামলীলা ময়দানে দেওয়া একটি বক্তৃতায় বলেছেন, "চাইলে আমাকে ঘৃণা করতে পারেন, কিন্তু ভারতকে ঘৃণা করবেন না।"

নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় যে প্রতিবাদ চলছে, সেই প্রসঙ্গেই প্রধানমন্ত্রী এই কথাগুলি বলেছিলেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই প্রতিবাদ হিংসাত্মক রূপ নেয় এবং এরফলে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই সঙ্গে রাষ্ট্রীয় সম্পত্তির ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

এই বিভ্রান্তিকর ভিডিওটি হিন্দিতে ফেসবুকে অনেকবার শেয়ার করা হয়।

(ক্লিপটিতে হিন্দিতে লেখা আছে ('आप मुझसे नफरत करो लेकिन देश से नफरत मत करो – प्रधानमंत्री नरेंद्र मोदी Hate me, But don't hate Germany - Adolf Hitler जर्मनी हम शर्मिंदा है, हिटलर अभी जिंदा है'। এই কথাগুলির অনুবাদ: চাইলে আমাকে ঘৃণা করতে পারো কিন্তু দেশকে ঘৃণা কোরো না"—প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। "আমাকে ঘৃণা করো, কিন্তু জার্মানিকে ঘৃণা কোরো না"—অ্যাডলফ হিটলার। জার্মানি আমরা লজ্জিত, হিটলার এখনও বেঁচে আছে।)

ইন্ডিয়ান ইয়ুথ কংগ্রেসও এই ক্লিপটি শেয়ার করেছে।


তথ্যযাচাই

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে যে ভিডিও ক্লিপটি হিটলারের ১৯৩৬ সালের শীতে অনুষ্ঠিত একটি জনসভার ভাষণের অংশ। ডান দিকে একেবারে উপরে ব্রিটিশ পাথে-র (Pathé) লোগো দেখা যাচ্ছে।

এই সূত্র ধরে আমরা ইউটিউবে ভিডিওটির খোঁজ করি। ভিডিওটির ডেস্ক্রিপশনে লেখা ছিল 'Winterhilfswerk 1936-37' যার অর্থ হল শীতকালীন অবকাশ।


বুম নিশ্চিতভাবে জানতে চেষ্টা করে যে ওই ভাইরাল হওয়া ক্লিপটিতে ঠিক কী লেখা আছে। আমরা একজন স্থানীয় জার্মানভাষী মানুষের সঙ্গে কথা বলি। এ ছাড়াও, জার্মান ভাষায় স্বচ্ছন্দ আর এক জন লোকের সঙ্গেও আমরা কথা বলেছি।

নীচে ১৫ সেকেন্ডের এই ভিডিওটির দুটি অনুবাদ দেওয়া হল। ভিডিওটি একটি বাক্যের মাঝখান থেকে শুরু হয়েছে।

অনুবাদ ১- "সবাইকে যে ভাই মনে করতেই হবে, তা নয়। কিন্তু বারে বারে সাধারণ মানুষের কাছে যেতে হবে, তাঁদের মনের বিভিন্ন সংস্কার দূর করতে হবে।"

অনুবাদ ২- "শুধু মুখের কথায় ভাই বললেই চলবে না, মানুষের কাছে পৌঁছোতে হবে। তাঁদের মনের বিভিন্ন সংস্কারের বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্য করতে হবে। বার বার সাহায্য করতে হবে।"

যদিও বুম হিটলারের বলা কথাগুলির আক্ষরিক অনুবাদ পায়নি, কিন্তু ওপুরের দুটি অনুবাদ থেকে এটুকু বোঝা সম্ভব যে হিটলার অভাবী মানুষকে সাহায্য করার প্রসঙ্গে কথা বলছিলেন। তাঁকে বা দেশকে ঘৃণা করা-না করার প্রসঙ্গে নয়। সুতরাং ভাইরাল ভিডিওর দাবিটি ভুয়ো।

Updated On: 2019-12-25T20:36:40+05:30
Show Full Article
Next Story