মুখ্যমন্ত্রীর নামে তৈরি নকল টুইট থেকে লকডাউনের গুজব ছড়ালো ত্রিপুরায়

২৪ জুলাই থেকে ত্রিপুরায় ফের লকডাউনের খবরটি ভুয়ো। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের নামে তৈরি নকল টুইট থেকে এই গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

কোভিড-১৯ সংক্রমণ রুখতে আগামী ২৪ জুলাই থেকে এক সপ্তাহের জন্য ত্রিপুরায় ফের সম্পূর্ণ লকডাউন হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের নামের তৈরি সম্পাদনা করা ভুয়ো টুইট থেকে গুজব ছড়ালো। এই ভুয়ো টুইটকে ভিত্তি করে স্থানীয় সংবাদ চ্যানেলে সংবাদ পরিবেশনের ফলে রাজ্যবাসীরা বিভ্রান্ত হয়ে পড়েন।

পরে বিভ্রান্তি দূর করতে ত্রিপুরা সরকারের তরফে সোশাল মিডিয়ায় একটি বিবৃতি জারি করে বলা হয় যে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউনের সংবাদটি সম্পূর্ণ ভুয়ো এবং টুইটটি মুখ্যমন্ত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে করা হয়নি।

ত্রিপুরা সরকার গত ১৭ জুলাই থেকে রাজ্যের গ্রামাঞ্চলে ভারত বাংলাদেশ সীমান্তরেখা থেকে ১ কিলোমিটার ব্যাসের এলাকা এবং পৌর এলাকায় ৫০০ মিটার পর্যন্ত এক সপ্তাহের জন্য সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা করে।
গত সোমবার রাতে মুখ্যমন্ত্রীর নামে টুইটার অ্যাকাউন্টের নকল করা একটি ভুয়ো টুইট সম্পাদনা করা হয় যেখানে ইংরেজিতে লেখা ছিল, "অতিমারি অবস্থার কথা মাথায় রেখে ত্রিপুরা সরকার ২৪ জুলাই থেকে সাত দিনের সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেছে"
এই মুখ্যমন্ত্রীর নামে তৈরি এই ভুয়ো টুইটের উপর ভিত্তি করে খবর পরিবেশন করে স্থানীয় বাংলা সংবাদ চ্যানেল 'নিউজ ভ্যানগার্ড।'
২১ জুলাই মঙ্গলবার সম্প্রচার করা নিউজ ভ্যানগার্ডের প্রতিবেদনের অংশটি সহ বুম একটি ফেসবুক পোস্ট খুঁজে পায়। পোস্টের ক্যাপশন: "কিভাবে একটি নামজাদা চ্যানেল সত্যতা যাচাই না করে এরকম ভুয়ো নিউজ সম্প্রচার করে? আপনারা বিপ্লব কুমার দেবের টুইটার এবং ফেসবুক পেজগুলি দেখে নিলে পারতেন, লজ্জা # নিউজ ভ্যানগার্ড, যদিও পড়ে তারা এই প্রতিবেদন সরিয়ে নেয়।"
(ইংরেজিতে: "How can a reputed news channel publish fake news like this without checking it's authenticity ? You guys could have checked Biplab Kumar Deb's Twitter and Facebook page.Shame #News_Vanguard though the live has been removed by Vanguard later")
এই ক্লিপে সংবাদ উপস্থাপককে বলতে শোনা যায়, "আগামী ২৪ জুলাই থেকে রাজ্যে শুরু হতে যাচ্ছে সাতদিনের সম্পূর্ণ লকডাউন, রাজ্যের মুখ্যমিন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব নিজের সামাজিক মাধ্যমে টুইট করে এই কথা জানিয়েছেন"
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে, আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ২৪ জুলাই থেকে সাত দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেনি ত্রিপুরা সরকার। সরকারী বিবৃতিতে জানানো জানানো হয় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সামাজিক মাধ্যমে কোনও বিবৃতি দেননি বা টুইট করেনননি।
ত্রিপুরা মুখ্যমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা সঞ্জয় মিশ্র ভুয়ো টুইটের স্ক্রিনশট সহ ২১ জুলাই দুপুর ১২ টা ৪৫ মিনিটে টুইট করে জানান, "এই খবরটি ভুয়ো, যেখানেই এই খবরটি যারা প্রচার করবে তাদের বিরুদ্ধে ত্রিপুরা সরকার কঠোর পদক্ষেপ নেবে। দয়া করে যেখানেই এই খবরটি দেখাবেন বলবেন যে এরকম কোন সিদ্ধান্ত ত্রিপুরা সরকার নেয়নি।"
(হিন্দিতে: "यह ख़बर ग़लत है और इसे फैलाने वालों पर त्रिपुरा सरकार सख़्त से सख़्त कार्यवाही करेगी। कृपया जहाँ भी यह ख़बर मिले वहाँ बताएँ कि ऐसा कोई भी फ़ैसला त्रिपुरा सरकार ने नहीं लिया है।")
@mygovtripura থেকে টুইট করে একই ভুয়ো টুইটের ছবি শেয়ার করে বলা হয়, "ত্রিপুরা সরকার ২৪ জুলাই ২০২০ থেকে কোনো লকডাউন ঘোষণা করেনি। দুর্ভাগ্যবশত কিছু লোক অস্থিরতা তৈরী করবার জন্য খবরটি ছড়াচ্ছেন। ত্রিপুরা পুলিশ এটির তদন্ত করছে।"

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরের টুইটার হ্যান্ডেল (@tripura_cmo) থেকেও টুইট করে এই ভুয়ো টুইট সম্পর্কে অবগত করা হয়।

সম্পাদনা করা ভুয়ো টুইটের মাধ্যমে লকডাউন সম্পর্কে ভু্য়ো খবর ছড়ানোর জন্য মঙ্গলবার রাজধানী আগরতলার ধলেশ্বর অঞ্চলের দশম শ্রেণীর এক ছাত্র রাজবীর দাসকে ত্রিপুরা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। নিজের অপরাধ স্বীকার করেছে রাজবীর। অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় রাজবীরকে জুভেনাইল কাস্টডিতে রাখা হয়েছে।

বুম ত্রিপুরা মুখ্যমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা সঞ্জয় মিশ্রের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, "এটি কোন টুইটার হ্যাকিং এর ঘটনা নয়, এটি একটি প্রতারণা, ফটোশপ ব্যবহার করে ভুয়ো টুইট সম্পাদনা করা হয়েছে, এটি গুরুতর অপরাধ, রাজ্যের মানুষ চরম উৎকণ্ঠায় ছিল কিছু সময়।"
ত্রিপুরাতে গত দু'দিনে ৪৫৬ জন নতুন করে কোভিড-১৯ সংক্রমিত হয়েছেন, রাজ্যে মোট কোভিড সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৩৩৫২ জন, ইতিমধ্যে মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৯২৬ জন। রাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের।

Claim Review :   টুইটের দাবি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বলেছেন ২৪ জুলাই থেকে ত্রিপুরায় ফের সম্পূর্ণ লকডাউন হবে
Claimed By :  Facebook Post & News Vanguard
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story